জি এম কাদের

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

গোলাম কাদের নিবন্ধের সাথে বিভ্রান্ত হবেন না।

গোলাম মোহাম্মদ কাদের
বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী
কাজের মেয়াদ
৭ ডিসেম্বর ২০১১ – ১১ জানুয়ারি ২০১৪
পূর্বসূরীফারুক খান
উত্তরসূরীতোফায়েল আহমেদ
বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী
কাজের মেয়াদ
৭ জানুয়ারি ২০০৯ – ৭ ডিসেম্বর ২০১১
পূর্বসূরীমাহবুব জামিল
উত্তরসূরীফারুক খান
লালমনিরহাট-৩ আসনের সংসদ সদস্য
কাজের মেয়াদ
৩০ ডিসেম্বর ২০১৮ – বর্তমান
পূর্বসূরীআবু সালেহ মোহাম্মদ সাঈদ
কাজের মেয়াদ
২৯ ডিসেম্বর ২০০৮ – ১১ জানুয়ারি ২০১৪
পূর্বসূরীআসাদুল হাবিব দুলু
উত্তরসূরীআবু সালেহ মোহাম্মদ সাঈদ
কাজের মেয়াদ
১২ জুন ১৯৯৬ – ১ অক্টোবর ২০০১
পূর্বসূরীরিয়াজ উদ্দিন আহমেদ
উত্তরসূরীআসাদুল হাবিব দুলু
রংপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য
কাজের মেয়াদ
১ অক্টোবর ২০০১ – অক্টোবর ২০০৬
পূর্বসূরীহুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ
উত্তরসূরীহুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম (1948-02-24) ২৪ ফেব্রুয়ারি ১৯৪৮ (বয়স ৭১)
জাতীয়তাবাংলাদেশি
রাজনৈতিক দলজাতীয় পার্টি (এরশাদ)
পেশারাজনীতিবিদ

গোলাম মোহাম্মদ কাদের (জিএম কাদের নামে অধিক পরিচিত) একজন বাংলাদেশি রাজনীতিবিদ ও সাবেক মন্ত্রী। তিনি সপ্তম, অষ্টম, নবমএকাদশ জাতীয় সংসদ সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। কাদের লালমনিরহাট-৩রংপুর-৩ আসন থেকে জাতীয় পার্টির মনোনয়নে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। তিনি বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ছিলেন। এছাড়া তিনি জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

জিএম কাদের ২৪ ফেব্রুয়ারি ১৯৪৮ সালে জন্মগ্রহণ করেন।[১] তার পিতার নাম মকবুল হোসেন ও মাতার নাম মজিদা খাতুন। শিক্ষাজীবনে কাদের মেকানিক্যালে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন। শিক্ষাজীবন শেষে তিনি নারায়নগঞ্জ ডকইয়ার্ডে মেকানিক্যাল প্রকৌশলী হিসেবে যোগদানের মাধ্যমে কর্মজীবন শুরু করেন। পরবর্তীতে বাংলাদেশ টোবাকো কোম্পানি, ইরাকের কৃষি মন্ত্রণালয় ও যমুনা তেল কোম্পানিতে চাকুরী করেন। সবশেষ বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশনে পরিকল্পনা ও অপারেশন্স পরিচালক থাকাকালীন চাকুরী থেকে পদত্যাগ করে রাজনীতিতে যুক্ত হন।

রাজনৈতিক জীবন[সম্পাদনা]

রাজনৈতিক জীবনে জিএম কাদের জাতীয় পার্টিতে যোগদান করেন এবং দলটির প্রেসিডিয়াম সদস্য হন। পরবর্তীতে লালমনিরহাট-৩ আসন থেকে জাতীয় পার্টির মনোনয়নে জুন ১৯৯৬ সালে সপ্তম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রথমবারের মত সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।[২] ২০০১ সালে অষ্টম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি রংপুর-৩ আসন থেকে নির্বাচন করে সংসদ সদস্য হন।[৩][৪] ২০০৮ সালে নবম[৫]২০১৮ সালে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পুনরায় লালমনিরহাট-৩ আসন থেকে নির্বাচন করে জয়ী হন।[৬][৭] তবে, ২০১৪ সালে দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিয়ে পরাজিত হন।[৭]

২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করলে কাদের ৭ জানুয়ারি ২০০৯ তারিখে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পান।[৮] ৭ ডিসেম্বর ২০১১ সালে তাকে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয় এবং ১১ জানুয়ারি ২০১৪ সাল পর্যন্ত তিনি এ দায়িত্ব পালন করেন।[৯]

বর্তমানে তিনি জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।[১০]

ব্যক্তিগত ও পারিবারিক জীবন[সম্পাদনা]

জিএম কাদেরে বড় ভাই সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ। এরশাদের স্ত্রী রওশন এরশাদ ছিলেন দশম জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা ও বর্তমানে জাতীয় পার্টির সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান। এরশাদ ও কাদেরের বোন মেরিনা রহমান সাবেক সংসদ সদস্য, মেরিনার ছেলে আহসান আদেলুর রহমান নীলফামারী-৪ আসনের সংসদ সদস্য। মেরিনার মেয়ে জেবুন্নেসা রহমান জিয়া উদ্দীন আহমেদ বাবলুর সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "নির্বাচনী এলাকার নাম ও নম্বর ১৮ লালমনিরহাট-৩"www.parliament.gov.bd। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০১৯ 
  2. "৭ম জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  3. "৮ম জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  4. "সংসদ নির্বাচন ২০১৮ ফলাফল"বিবিসি বাংলা (ইংরেজি ভাষায়)। ২৭ ডিসেম্বর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০১৯ 
  5. "৯ম জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা"জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার 
  6. "একাদশ সংসদ নির্বাচন"সমকাল (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০১৯ 
  7. "জি এম কাদের"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০১৯ 
  8. "প্রাক্তন মন্ত্রী/প্রতিমন্ত্রী/উপদেষ্টাগণ"বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০১৯ 
  9. "মন্ত্রীদের নামের তালিকা"বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০১৯ 
  10. "প্রেসিডিয়াম সদস্য"জাতীয় পার্টি। সংগ্রহের তারিখ ১ জানুয়ারি ২০১৯