জার্মান বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশ

স্থানাঙ্ক: ২৩°৪৭′৪৩″ উত্তর ৯০°২৪′০৮″ পূর্ব / ২৩.৭৯৫২৩৮° উত্তর ৯০.৪০২২১১° পূর্ব / 23.795238; 90.402211
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
জার্মান বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশ
জার্মান বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশ.jpeg
ধরনবেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়
স্থাপিত২০১৩
আচার্যরাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ
উপাচার্যমো. শামস-উদ-দীন[১]
শিক্ষায়তনিক ব্যক্তিবর্গ
অবস্থান,
২৩°৪৭′৪৩″ উত্তর ৯০°২৪′০৮″ পূর্ব / ২৩.৭৯৫২৩৮° উত্তর ৯০.৪০২২১১° পূর্ব / 23.795238; 90.402211
শিক্ষাঙ্গনশহর
সংক্ষিপ্ত নামজিইউবি
অধিভুক্তিবিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন
ওয়েবসাইটgub.edu.bd

জার্মান বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশ বাংলাদেশের একটি বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়। ডিগ্রি ও সম্মানসহ মোট ৬টি অনুষদ নিয়ে বাংলাদেশে এই প্রথম বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় (জিইউবি) যাত্রা শুরু করে ছিল। বিশ্ববিদ্যালয়টি প্রথমবারেই বিবিএ, বিএসএস, এআইএস, বিএ (ইংরেজি ও অর্থনীতি) অনুষদে ভর্তি করে।[২]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

জার্মান বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশ (জিইবি) বাংলাদেশ সরকার এবং ইউজিসি বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন দ্বারা অনুমোদিত। জার্মানিতে বসবাসকারী বাংলাদেশী অধ্যাপক সাইফুল্লাহ খান্ডকার বাংলাদেশে একটি জার্মান বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নেন। তার প্রাথমিক পরিকল্পনা ছিল টাংগাইল জেলার সখিপুরে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করা। জার্মান ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ ট্রাস্টের উদ্যোগী জার্মান বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয়। ট্রাস্ট ২০১২ সালে ঢাকায় নিবন্ধিত হয়। বিশ্ববিদ্যালয়টি ২০১৩ সালে গাজীপুর জেলায় প্রতিষ্ঠিত হয়। সাইফুল্লাহ খন্দাকার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারপারসন ছিলেন।

নভেম্বর ২০১৬ সালে, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন জানিয়েছিল যে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনও উপাচার্য না থাকার কারণে বিশ্ববিদ্যালয়ের শংসাপত্রগুলি স্বীকৃত হবে না। বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালক মেসবাহউদ্দিন আহমেদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের আওয়ামী লীগ সমর্থিত নীল প্যানেলের নেতা ছিলেন।

অধ্যাপক ড. মো. শামস-উদ-দীন ২ জুলাই ২০১৮ সালে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ কর্তৃক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য নিযুক্ত হন। বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলররা হলেন ডঃ টমাস এম ক্লাপোয়েকে, ডঃ মারি-লুইস ক্লোটজ, ডঃ লিও ব্রুনবার্গ এবং ডঃ কর্নেলিয়াস ফ্রোয়েমেল।

অনুষদ[সম্পাদনা]

  • ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ
  • সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ
  • কলা অনুষদ
  • প্রকৌশল বিজ্ঞান অনুষদ

প্রোগ্রামের নাম ক্রেডিট[সম্পাদনা]

  • বিএসসি। খাদ্য বিজ্ঞান ও প্রকৌশল (এফএসই) ১৫৬
  • বিএসসি। ডিপ্লোমা হোল্ডারের জন্য খাদ্য বিজ্ঞান ও প্রকৌশল (এফএসই) ১৩৫
  • বিএসসি। কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল (সিএসই) ১৬৫
  • বিএসসি ডিপ্লোমা হোল্ডারের জন্য কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল (সিএসই) ১৪৫
  • বিএসসি। পরিবেশ সুরক্ষা প্রযুক্তি (ইপিটি) ১৩৬
  • বিএসসি। ডিপ্লোমা হোল্ডারের জন্য পরিবেশ সুরক্ষা প্রযুক্তি (ইপিটি) ১১৬
  • বিএসসি। (জনসাধারণ।) জৈব প্রযুক্তি (বিটি) ১৩৬
  • বিএসসি (জনসাধারণের) ডিপ্লোমা জন্য জৈব প্রযুক্তি (বিটি) ১১৬
  • মানব স্বাস্থ্য ব্যাচেলর (এইচ এইচ) ১৫৫
  • ডিপ্লোমা হোল্ডারের জন্য হিউম্যান হেলথের ব্যাচেলর (এইচএইচ) ১৩৫
  • বিবিএ (বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন ব্যাচেলর) ১৩৭
  • পাবলিক অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (বি.পি.এ.) ১৩৩
  • সামাজিক বিজ্ঞান বিভাগের (স্নাতক) ১৩০
  • ইংরেজি (বিএ) ১২৫
  • অর্থনীতিতে বিএ (অনার্স)

ভবিষৎ পরিকল্পনা[সম্পাদনা]

এই বিশেষ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান উদ্দেশ্য হবে - বাংলাদেশী শিক্ষা পাঠ্যক্রম, বিশেষত: পরিবেশ সুরক্ষা প্রযুক্তি, খাদ্য বিজ্ঞান ও জৈব প্রযুক্তি, কৃষি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি, জৈব-প্রকৌশলবিদ্যা, ইত্যাদিতে গুণমান শিক্ষা এবং কিছু অনির্ধারিত অবৈতনিক বৈজ্ঞানিক ক্ষেত্রের সম্প্রসারণ করা। এবং মেডিসিন (ভেটেরিনারী ওষুধ ও জনস্বাস্থ্য)। এই গবেষণা ক্ষেত্রগুলি ৪-অনুষদের মধ্যে শ্রেণীবদ্ধ করা হবে এবং ২০ টিরও বেশি বিভাগের অধীনে উপবিভাজন করা হবে। তাছাড়া ইউরোপীয় ক্রেডিট ট্রান্সফার সিস্টেম (ইসিটিএস) অনুযায়ী জার্মানির অভিজ্ঞ অধ্যাপকগণ স্ট্যান্ডার্ড এবং কোয়ালিটি অফ কোয়ালিটি বজায় রাখার পাশাপাশি এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রিগুলির স্বীকৃতির জন্য দায়ী থাকবেন। প্রথম উপাচার্য অধ্যাপক ড। মেড। লিও ব্রুনবার্গ, একজন অত্যন্ত অভিজ্ঞ জার্মান অধ্যাপক ড। অবশেষে বিশ্বব্যাপী চাহিদা অনুযায়ী অত্যন্ত দক্ষ, বৈজ্ঞানিক ও প্রযুক্তিগত জনশক্তি জলাশয় গড়ে তোলার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় পরিবেশন করবে।[৩]

অবস্থান[সম্পাদনা]

  • নগর ক্যম্পাস

জার্মান ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি ভবন, ৩৮ তেলিপাড়া টি ও টি রোড, চন্দনা চৌরাস্তা; গাজীপুর সদর-১৭০২; বাংলাদেশ।[৪]

  • স্থায়ী ক্যাম্পাস

জার্মান ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি স্ট্রিট গুপ্তব্রীন্দবান, সাগরগড়ী, ঘাটাইল, টাঙ্গাইল।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]