জামারাত সেতু

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
নতুন অংশ জামারাত সেতু, হজ্জ ২০০৭
নিম্ন অংশ

জামারাত সেতু (আরবি: جسر الجمرات‎‎; আরবি: Jisr Al-Jamarat) হজ্জ পালনের সময় মুসলমানরা মক্কার নিকটে ব্যবহৃত সৌদি আরবের মিনায় পথচারী সেতু। সেতুর উদ্দেশ্য হজযাত্রীদের মাটির স্তর থেকে বা সেতু থেকে তিনটি জামরা স্তম্ভের উপরে শয়তানকে পাথর নিক্ষেপ করতে সহজ করা। [১]

জামারাত সেতু Jamarat Bridge
جسر الجمرات
Jamaraat Bridge 2.jpg
নতুন জামারাত সেতু
স্থানাঙ্কস্থানাঙ্ক: ২১°২৫′১৭″ উত্তর ৩৯°৫২′২২″ পূর্ব / ২১.৪২১৩৯° উত্তর ৩৯.৮৭২৭৮° পূর্ব / 21.42139; 39.87278
বহন করেপথচারী
স্থান সৌদি আরব
ইতিহাস
চালু১৯৬৩ (প্রথম)
২০০৭ (নতুন)

এই সেতুটি ১৯৬৩ সালের প্রথম দিকে নির্মিত হয়েছিল এবং এর পর থেকে বেশ কয়েকবার প্রসারিত হয়েছে। সেতুতে তিনটি দিকের মধ্য দিয়ে স্তম্ভগুলি প্রসারিত হয়। ২০০৬ অবধি, এই সেতুর একক স্তর ছিল । নির্দিষ্ট সময়ে, সেতুটিতে দশ লক্ষেরও বেশি লোক জড়ো হতে পারে, যা কখনও কখনও মারাত্মক দুর্ঘটনার কারণ হয়। [২]

নতুন সেতু[সম্পাদনা]

জানুয়ারী ২০০৬ হজের পরে, পুরাতন সেতুটি ভেঙে দেওয়া হয়েছিল এবং একটি নতুন বহু-স্তরের সেতু নির্মাণের কাজ শুরু হয়েছিল। ২০০৬/২০০৭ হজের জন্য স্থল এবং প্রথম স্তরের কাজ সম্পূর্ণ হয়েছিল। বাকী দুটি স্তরের নির্মাণ কাজ ২০০৭ সালের ডিসেম্বরে শেষ হয়েছে।

নতুন সেতুটি দার আল-হ্যান্ডাসাহ ডিজাইন করেছেন এবং সৌদি বিনলাদিন গ্রুপ দ্বারা নির্মিত।

দূর্ঘটনা[সম্পাদনা]

  • ২৩ শে মে, ১৯৯৪ একটি পদদলে কমপক্ষে ২০০ জন হজযাত্রী মারা যান। [১]
  • ৯ ই এপ্রিল, ১৯৯৮ সালে ১১৮ জন হজযাত্রী পদদলিত হয়ে মারা যান এবং ১৮০ জন আহত হন
  • ৫ ই মার্চ, ২০০১-তে ৩৫ জন হজে পদদলিত হয়ে পদদলিত হয়ে মারা যান।
  • ১১ ফ্রেবুয়ারী ২০০৩ সালে ১৪ জন পদদলিত হয়ে মারা যান। [২]
  • ১ ফ্রেবুয়ারী ২০০৪ সালে ২৫১ জন মারা গিয়েছে ২৪৪ জন আহত হয়েছে। .[৩]
  • ১২ জানুয়ারি ২০০৬ সালে ৩৪৬ জন মৃত্যু ও ২৮৯ জন আহত হয়েছে।
  • ২০১৫ হজ্জ পদদলন আহত এবং নিহত হন। [৪][৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]