জন গোমেজ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মেজর জেনারেল (অব.) জন গোমেজ
আনুগত্য বাংলাদেশ
পদমর্যাদা08.maj gen Bd.jpg মেজর জেনারেল
Two star.jpg

মেজর জেনারেল(অব.) জন গোমেজ একজন অবসরপ্রাপ্ত বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর কর্মকর্তা ও কূটনীতিক। তিনি ফিলিপাইনে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

জন্ম ও শিক্ষাজীবন[সম্পাদনা]

জন গোমেজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং নটর ডেম কলেজ থেকে স্নাতক করেন। প্রতিরক্ষা গবেষণায় হনোলুলু ইউনিভার্সিটি থেকে মাস্টার্স ডিগ্রি ও এমবিএ করেন। [১]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

১৯৭৭ সালে ইনফ্যান্ট্রি অফিসার হিসেবে জন গোমেজ বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে যোগ দেন। সাভার ক্যান্টনমেন্টে 'মর্নিং গ্লোরি স্কুল এন্ড কলেজ' প্রতিষ্ঠা করেন। বাংলাদেশ সামরিক খৃস্টান ফেলোশিপের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। [১] সেনাবাহিনী থেকে অবসর গ্রহণের পর স্কয়ার হাসপাতালের ম্যানেজমেন্ট সাপোর্ট সার্ভিসের জেনারেল ম্যানেজার হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন। [২][৩]

২০১২ সালের অক্টোবরে জন গোমেজ ফিলিপাইনে বাংলাদেশ রাষ্ট্রদূত নিযুক্ত হন। [১] ২০১৬ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি মাসে বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ থেকে ৮ কোটি ১০ লাখ ডলার চুরি করে হ্যাকাররা।[৪] চুরি হওয়া অর্থ ফেরতে তাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল।[৫] তার প্রচেষ্টায় দেড় কোটি ডলার ফেরত আনার মাধ্যমে শুভ সূচনা করেন। [৬] ২০১৬ সালের নভেম্বরে সরকার তার স্থলে আসাদ আলমকে ফিলিপাইনের রাষ্ট্রদূত হিসাবে নিযুক্ত করেন। [৭]

জাতিসংঘ মিশন[সম্পাদনা]

তাজিকিস্তানের জাতিসংঘ মিশন অব অবজারভার্সের অপারেশন ম্যানেজার ছিলেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "John Gomes new envoy to the Philippines"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ৪ অক্টোবর ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ১৫ অক্টোবর ২০১৮ 
  2. "Condition of Tofail improves"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২৫ সেপ্টেম্বর ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ ১৫ অক্টোবর ২০১৮ 
  3. "Notre Dame College Alumni Association gathering Nov 17"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ১৫ অক্টোবর ২০১৮ 
  4. "অর্থ লোপাটের তদন্ত শুরু করেছে এফবিআই | অর্থনীতি | Jugantor"www.jugantor.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৬-১৯ 
  5. "রিজার্ভ লুট: উদ্ধার হওয়া অর্থ ফেরত প্রক্রিয়া শুরু || জাতীয়"জনকন্ঠ (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৯-০৬-২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৬-১৯ 
  6. "Gambling with the sweat of our workers' brow!"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ১৮ মার্চ ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১৫ অক্টোবর ২০১৮ 
  7. "Asad made Philippines ambassador"banglanews24.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৫ অক্টোবর ২০১৮