চূর্ণী গাঙ্গুলি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন


চূর্ণী গাঙ্গুলি
জন্ম
চূর্ণী ব্যানার্জী

কার্শিয়াং, পশ্চিমবঙ্গ
বাসস্থানগড়িয়া, কলকাতা
পেশাঅভিনেত্রী
কার্যকাল২০০৪ থেকে বর্তমানে
দাম্পত্য সঙ্গীকৌশিক গাঙ্গুলি
সন্তানউজান গাঙ্গুলি(পুত্র)
আত্মীয়সুনীল গাঙ্গুলি (শ্বশুর)

চূর্ণী গাঙ্গুলি একজন বাংলা চলচিত্রের এবং ভারতীয় টেলিভিশনের অভিনেত্রী। তিনি তার ছোটবেলা শৈলশহর কার্শিয়াংএ কাটানর পরে কলকাতা চলে আসেন এবং যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন। যাদবপুরে পড়াকালীন তিনি একটি নাট্যদলে অভিনেত্রী হিসাবে যোগ দেন। তারপর তিনি মুম্বাইতে চলে যান এবং বেশ কয়েকটি টেলিভিশন ধারাবাহিকে অভিনয় করেন। পরবর্তীকালে তিনি আবার কলকাতায় ফেরত আসেন এবং বাংলা চলচিত্রে অভিনয় শুরু করেন। চূর্ণী ২০০৫ সালে ওয়ারিস চলচিত্রের জন্য, সেরা অভিনেত্রী বিভাগে বাংলা চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি পুরস্কার পান,যেখানে তিনি একজন একক-মায়ের অভিনয় করেন। [১]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

চূর্ণী গাঙ্গুলির ছোটবেলা কার্শিয়াংএ কাটে । তার পিতা,মাতা শিক্ষক ছিলেন। তিনি দাউহিল আবাসিক বিদ্যালয়ের ছাত্রী ছিলেন।আবাসিক বিদ্যালয়ের ছাত্রী হওয়া সত্বেও চূর্ণী এবং কয়েকজন ছাত্রীর তাদের বাবা,মায়ের সঙ্গে বাড়িতে থাকার অনুমতি ছিল।তার বাবা অসম্ভব যত্নশীল কিন্তু রাশভারী মানুষ ছিলেন, যিনি চূর্ণীকে সর্বাদাই খেলাধুলা এবং পড়াশুনায় উৎসাহ দিতেন কিন্তু চূর্ণীর খেলাধুলায় বিশেষ আগ্রহ ছিল না । যদিও চূর্ণী তার বিদ্যালয়ে ভাল ছাত্রী ছিলেন কিন্তু কখনোই পরীক্ষায় স্থানলাভের কথা ভাবেন নি। [২]

চূর্ণী পরে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী থাকাকালীন ,১৯৮৭ সালে সুমন মুখোপাধ্যায়ের ও হবু স্বামী কৌশিক গাঙ্গুলির সঙ্গে একটি নাটিকের দল গঠন করেন। [৩] চূর্ণী চিত্র পরিচালক কৌশিক গাঙ্গুলিকে বিবাহ করেন এবং তাদের একটি পুত্র সন্তান আছে।পুত্রের নাম উজান গাঙ্গুলি।[৪]

মুম্বাই কর্মজীবন[সম্পাদনা]

প্রথমত চূর্ণী হিন্দি চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন শিল্পে সফল হবার চেষ্টা করেন। তিনি মুম্বাইতে চলে যান এবং জি টেলিভিশনের প্রথম দৈনিক ধারাবাহিক রাহত এ অভিনয় করেন এবং পরবর্তী দুবছর মুম্বাইতেই থাকেন। এই সময়ে তিনি যখন তার কুড়ির কোঠায় ছিলেন, তিনি ছোটি সি আশা তে এক ৩৫বছরের মায়ের ভূমিকায় অভিনয় করেন যিনি ৬০ বছর বয়ষ্কার মত পরিণত ছিলেন । [৫] পরে তিনি কলকাতায় ফিরে আসা মনস্থ করেন। [৬]

বাংলা চলচ্চিত্র শিল্পে কর্মজীবন[সম্পাদনা]

কলকাতায় ফিরে আসার পর চূর্ণী বাংলা চলচ্চিত্র শিল্পে যোগদান করতে মনস্থ করেন । [৬]

২০০৪—২০০৫[সম্পাদনা]

২০০৪ সালে চূর্ণী বাংলা ছায়াছবিতে প্রথম অভিনয় করেন ওয়ারিশ নামক ছবিতে । ছবিটি কৌশিক গাঙ্গুলির নির্দেশনায় তৈরী।এই ছবিতে তিনি একক-মায়ের ভূমিকায় অভিনয় করেন, চরিত্রটির নাম মেধা। মেধা শুভঙ্করের প্রাক্তন প্রেমিকা ছিলেন এবং অবাধ মেলামেশায় ,সন্তানসম্ভবা হবার পর,তিনি গর্ভপাত করতে অসম্মত হন,যদিও তিনি শুভঙ্করের সঙ্গে বিবাহসুত্রে আবদ্ধ ছিলেন না ।তিনি শিশু পুত্রটির জন্ম দেন, নাম দেন মেঘ।।বহু বছর পর যখন যখন তিনি জানতে পারেন ,তিনি কর্কট /ক্যান্সার রোগে আক্রান্ত ,তিনি শুভঙ্করের সঙ্গে দেখা করেন,ততদিনে শুভঙ্কর অন্য এক নারীর সঙ্গে বিবাহ সুত্রে আবদ্ধ। মেঘা শুভঙ্করকে মেঘের দায়িত্ব নিতে বলেন। যদিও ছবিটিতে চূর্ণীর অভিনয় ব্যাপকভাবে প্রশংসা করা হয় ,ছবিটি বাণিজ্যিক সাফল্য পাইনি ।[৭] ২০০৫ সালে , চূর্ণী কৌশিক গাঙ্গুলির নির্দেশনায় শূন্য এ বুকে নামক ছবিটিতে অভিনয় করেন । [৮]

২০০৭—২০১০[সম্পাদনা]

২০০৭ সালে চূর্ণী অঞ্জন দাস পরিচালিত যারা বৃষ্টিতে ভিজেছিল নামক ছবিটিতে অভিনয় করেন। [৯] ছবিটি সমকামী সম্পর্ক ঘিরে।[১০]

২০০৮ সালে চূর্ণী অঞ্জন দত্ত পরিচালিত চলো লেট'স গো ছবিটিতে অভিনয় করেন।ছবিটির বিষয়বস্তু নয়টি যাত্রীর একটি ভ্রমণ নিয়ে। চূর্ণী 'মিস গাঙ্গুলির' চরিত্রে অভিনয় করেন,যাকে সহযাত্রীরা মিস গম্ভীর বলে ডাকতেন । [১১]

২০০৯ সালে চূর্ণী শুভময় চট্টোপাধ্যায় পরিচালিত সকালের রং নামক ছবিটিতে অভিনয় করেন। ছবিটির বাজেট ছিল ৯,০০,০০০ (US$১২,৫২৩.১৪) [১২]

২০১০ সালে চূর্ণী কৌশিক গাঙ্গুলি পরিচালিত আর একটি প্রেমের গল্প নামক ছবিটিতে অভিনয় করেন। তিনি রানি/গোপা র চরিত্রে অভিনয় করেন।এই ছবিটিতে ঋতুপর্ন ঘোষ এবং ইন্দ্রনীল সেনগুপ্ত মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেন। এবং বইটি একটি সমকামী সম্পর্ক ঘিরে ।[১৩]

২০১১—বর্তমান[সম্পাদনা]

২০১১ সালে চূর্ণী, কৌশিক গাঙ্গুলির আর একটি পরিচালিত ছবি রং মিলান্তিতে অভিনয় করেন। এই ছবিটিতে তিনি কমলিনী নামক একজন সফল টেলিভিশন অভিনেত্রীর ভূমিকায় অভিনয় করেন.।[১৪] এই বছরেই চূর্ণী, ঋভু দাসগুপ্তর পরিচালনাসংক্রান্ত আত্মপ্রকাশ, মাইকেল নামক ছবিটিতে অভিনয় করেন ।এই ছবিটিতে তিনি নাসিরুদ্দিন শাহর স্ত্রী রিয়ার ভূমিকায় অভিনয় করেন। ছবিটির প্রয়োজক ছিলেন অনুরাগ কাশ্যপ[১৫]

২০১২ সালে চূর্ণী দুটি বাংলা চলচিত্রে অভিনয় করেন- ল্যাপটপ, কৌশিক গাঙ্গুলির আর একটি পরিচালিত ছবি এবং প্রেম মোদি পরিচালিত অর্জুন-কালিম্পঙে সীতাহরণ । ল্যাপটপ ছবিটিতে একটি ল্যাপটপের সঙ্গে জুড়ে থাকা কিছু বিভিন্ন ধরনের মানুষের কাহিনী বলা হয়েছে। অন্যদিকে অর্জুন-কালিম্পঙে সীতাহরণ ছবিটি লেখক সমরেশ মজুমদারের একটি গোয়েন্দা গল্পের চরিত্র অর্জুনের ওপর নির্মিত।[১৬]

২০১৩ সালে কৌশিক গাঙ্গুলি পরিচালিত শব্দ বহুলভাবে সমালোচকদের দ্বারা প্রশংসিত হয়।ছবিটি তারক নামে একটি চরিত্রকে ঘিরে যিনি বাংলা চলচিত্র শিল্পে 'ফলি' (একটি ছবি শুটিং সমাপ্তির পরে, যিনি রেকর্ড করা শব্দ প্রভাব ছাড়াও আলাদা শব্দ সৃষ্টি করে যোগ করেন) শিল্পী হিসাবে কাজ করেন। চূর্ণী, ছবিটিতে এক মনোবিদের ভূমিকায় অভিনয় করেন। [১৭]

চূর্ণী কৌশিক গাঙ্গুলির কেয়ার অফ স্যারের জন্য চুক্তিবদ্ধ হন, কিন্তু পরে সময়াভাবে তার বদলে সুদীপ্তা চক্রবর্তী ঐ চরিত্রে অভিনয় করেন। [১৮]

তিনি প্রদীপ্ত ভট্টাচার্যের পরিচালিত বাকিটা ব্যক্তিগত ছবিতে অভিনয় করেন ।ছবির কাহিনীতে প্রমিত, একটি অপেশাদার তথ্যচিত্র নির্মাতা, যিনি বারবার মেয়েদের কাছ থেকে প্রত্যাখ্যাত হয়ে প্রেমের ওপর একটি তথ্যচিত্র বানাবার সিদ্ধান্ত নেন।[১৯]।একজন মানুষের সঙ্গী খোঁজার গল্প নিয়েই ছবি ‘বাকীটা ব্যক্তিগত’। প্রেমের জন্যে অপেক্ষার ইচ্ছে, হৃদয় দিয়ে দেখার আনন্দ, অবিরত পথ চলা-মনের এমন অনুভূতি ও জীবনের এমন কিছু মুহুর্তই ধরা দিয়েছে রূপালি পর্দায় । [২০]

অভিনেত্রী চূর্ণী গাঙ্গুলি প্রথমবার চালক হিসাবে নির্বাসিত নামক দ্বিভাষিক(বাংলা এবং ইংরাজী)ছবিতে আত্মপ্রকাশ করেন। ছবিটির শুটিং যথাক্রমে কলকাতা ও সুইডেনে হয়। বাস্তববুদ্ধি দিয়ে বহু ছবি নির্মাতাদের চেষ্টার পর প্রথমবার তসলিমা নাসরিনের জীবনভিত্তিক ছবি অক্টোবর ২০১৪ তে মুম্বাই আন্তর্জাতিক চলচিত্র উৎসবে মুক্তি পায়। [২১] ২০১৫ সালে এই চলচ্চিত্রটি শ্রেষ্ঠ বাংলা চলচ্চিত্র বিভাগে ৬২তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরষ্কার অর্জন করেছে। [২২]

পুরস্কার[সম্পাদনা]

কার্যের তালিকা[সম্পাদনা]

ছায়াছবিগুলি[সম্পাদনা]

বছর ছায়াছবি নির্দেশক ভূমিকা / চরিত্র সহ-অভিনেতাগণ
২০০৪ ওয়ারিশ কৌশিক গাঙ্গুলি মেধা সব্যসাচি চক্রবর্ত্তি, দেবশ্রী রায়
২০০৫ শুন্য এ বুকে কৌশিক গাঙ্গুলি শিল্পীর বৌ কৌশিক সেন, খরাজ মুখার্জী
২০০৭ যারা বৃষ্টিতে ভিজেছিল অঞ্জন দাস ইন্দ্রানী হালদার, সুদীপ মুখার্জী
২০০৮ চলো লেট'স গো অঞ্জন দত্ত মিস গম্ভীর রুদ্রনীল ঘোষ, শাশ্বত চ্যাটার্জী, পরমব্রত চ্যাটার্জী
২০০৯ সকালের রং শুভময় চট্টোপাধ্যায় ভাবি তরঙ্গ সরকার,ছবি তালুকদার, পৌলমি দে ,মনু মুখোপাধ্যায়
২০১০ আর একটি প্রেমের গল্প কৌশিক গাঙ্গুলি রানি / গোপা ঋতুপর্ণ ঘোষ, ইন্দ্রনীল সেনগুপ্ত, রাইমা সেন
২০১১ রং মিলান্তি কৌশিক গাঙ্গুলি কমলিকার বড় দিদি শাশ্বত চ্যাটার্জী, ঋধিমা ঘোষ, তানাজী দাশগুপ্ত, গৌরব চট্টোপাধ্যায়, ইন্দ্রাশিস রায়
মাইকেল রিভু দাশগুপ্ত নাসিরুদ্দিন শাহ, মাহি গিল, পুরভ ভান্ডারে
২০১২ ল্যাপটপ কৌশিক গাঙ্গুলি শ্রীমতী দুর্বা মুখার্জী রাহুল বোস, শাশ্বত চ্যাটার্জী, অন্যন্যা চ্যাটার্জী, গৌরব চক্রবর্তী
২০১৩ অর্জুন - কালিম্পঙে সীতাহরণ[২৪] প্রেম মোদি নীলম, সীতার গৃহশিক্ষিকা দীপঙ্কর দে, ওম (অভিনেতা)
শব্দ[২৫] কৌশিক গাঙ্গুলি রাইমা সেন, ভিক্টর বানার্জী, ঋত্বিক চক্রবর্তী
বাকিটা ব্যক্তিগত[১৯] প্রদীপ্ত ভট্টাচার্য ঋত্বিক চক্রবর্তী, অপরাজিতা ঘোষ দাস, মাধবী মুখার্জী, দেবাশীষ রায়চৌধুরী,সুপ্রিয় দত্ত , মনু মুখার্জী , সুদীপা বসু, অমিত সাহা এবং কৌশিক রায়
২০১৪ নির্বাসিত[২৬] চূর্ণী গাঙ্গুলি শাশ্বত চ্যাটার্জী, রাইমা সেন, লারস বেঠকে, লিয়া বয়সেন, মার্টিন ওয়ালস্টর্ম, জোকিম গ্রানবার্গ এবং অন্যান্য

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "BFJA Award 2005"। Gomolo। ২৯ এপ্রিল ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ আগস্ট ২০১৫ 
  2. "My Fundays Churni Ganguly"। Calcutta, India: The Telegraph Calcutta। ৪ জুলাই ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ ১০ আগস্ট ২০১৫ 
  3. "Kaushik Ganguly profile"http://www.kolkatabengalinfo.com/। সংগ্রহের তারিখ ১০ আগস্ট ২০১৫  |প্রকাশক= এ বহিঃসংযোগ দেয়া (সাহায্য)
  4. Nag, Kushali (১ জুন ২০১০)। "Reverse swing"Telegraph। Calcutta, India। সংগ্রহের তারিখ ১০ আগস্ট ২০১৫ 
  5. Ganguly, Churni; More, Much (৮ সেপ্টেম্বর ২০১১)। "I'm there, ticking and alive'"। Calcutta, India: The Telegraph Calcutta। সংগ্রহের তারিখ ১০ আগস্ট ২০১৫ 
  6. Up, Growing (২৭ জুন ২০১০)। "Aiming high"। Calcutta, India: Telegraph India। সংগ্রহের তারিখ ১০ আগস্ট ২০১৫ 
  7. "Highs and lows in topsy-turvy Tollywood"The Telegraph (Calcutta)। ২৯ ডিসেম্বর ২০০৪। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জুন ২০১৩ 
  8. "Do bigger breasts mean better self-esteem?"IBNLive। ৮ এপ্রিল ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জুন ২০১৩ 
  9. "Just walking in the rain..."The Telegraph (Calcutta)। ২৬ অক্টোবর ২০০৬। ২৩ জুন ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জুন ২০১৩ 
  10. "Change the mindset"The Telegraph (Calcutta)। ৪ জুলাই ২০০৯। ৪ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জুন ২০১৩ 
  11. "14 fellow travellers"The Telegraph (Calcutta)। ৩১ মে ২০০৮। ১৭ অক্টোবর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জুন ২০১৩ 
  12. "Sakaler Rang details"। Gomolo। ৬ মার্চ ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জুন ২০১৩ 
  13. "We have treated it like a heterosexual love story"The Indian Express। ১৫ জানুয়ারি ২০১১। ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জুন ২০১৩ 
  14. "Rangmilanti Movie Review"The Times of India। ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৫ 
  15. "Churni, Mir in Michael"The Telegraph (Calcutta)। ২৪ আগস্ট ২০১০। ৪ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জুন ২০১৩ 
  16. "Arjun, Kalimponge Sitahoron"The Times of India। ৯ মে ২০১৩। ২০১৩-১০-০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জুন ২০১৩ 
  17. "Dubai Review: Kaushik Ganguly's "Shobdo" (Sound)"। Dear Cinema। ৪ জুন ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জুন ২০১৩ 
  18. "Sudipta replaces Churni in Kaushik Ganguly's next"The Times of India। ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১২। ২০১২-১০-২৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জুন ২০১৩ 
  19. ""Bakita Byaktigoto Movie Review""Times Of India। ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৫  উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ অবৈধ; আলাদা বিষয়বস্তুর সঙ্গে "Bakita Byaktigoto Movie Review" নাম একাধিক বার সংজ্ঞায়িত করা হয়েছে
  20. http://www.banglasongbad24.com/content/news/13447#sthash.eS9r9gqk.dpuf
  21. "A slice of Taslima's life captured on screen"The Times of India। ২১ অক্টোবর ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৫ 
  22. ৬২তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরষ্কারঃবিজয়ীদের তালিকা, NDTV Movies
  23. "List of Kalakar award winners" (PDF)। Kalakar awards। সংগ্রহের তারিখ ১০ আগস্ট ২০১৫ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  24. "Enter, genx sleuth Arjun"Telegraph। Calcutta, India। ১৬ এপ্রিল ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মে ২০১২ 
  25. "Tollywood Shabdo"Telegraph। Calcutta, India। ২৩ ডিসেম্বর ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মে ২০১২ 
  26. ""Churni, Kaushik-Ganguly- first couple to win National Award"Timesofindia। ২৬ মার্চ ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ১২ আগস্ট ২০১৫ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

https://www.flickr.com/photos/nilanjandatta/9099775952/