চীনা তাইপেই জাতীয় ফুটবল দল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
চীনা তাইপেই
দলের লোগো
ডাকনামচীনা দল
অ্যাসোসিয়েশনচীনা তাইপেই ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন
কনফেডারেশনএএফসি (এশিয়া)
প্রধান কোচভম কা-হুম
অধিনায়কছেন পো-লিয়াং
সর্বাধিক ম্যাচছেন পো-লিয়াং (৭৯
শীর্ষ গোলদাতাছেন পো-লিয়াং (২৫)
মাঠতাইপেই পৌর স্টেডিয়াম
ফিফা কোডTPE
ওয়েবসাইটwww.ctfa.com.tw
প্রথম জার্সি
দ্বিতীয় জার্সি
ফিফা র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ১৫৮ অপরিবর্তিত (১৯ নভেম্বর ২০২১)[১]
সর্বোচ্চ১২১ (এপ্রিল–মে ২০১৮)
সর্বনিম্ন১৯১ (জুন ২০১৬)
এলো র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ২০৩ হ্রাস ৮ (২৬ নভেম্বর ২০২১)[২]
সর্বোচ্চ৬০ (সেপ্টেম্বর ১৯৬৫)
সর্বনিম্ন২১৩ (মার্চ ২০১৫)
প্রথম আন্তর্জাতিক খেলা
 প্রজাতন্ত্রী চীন ৩–২ দক্ষিণ ভিয়েতনাম 
(ম্যানিলা, ফিলিপাইন; ১ মে ১৯৫৪)[৩]
বৃহত্তম জয়
 চীনা তাইপেই ১০–০ গুয়াম 
(মাকাউ, চীন; ১৭ জুন ২০০৭)
বৃহত্তম পরাজয়
 কুয়েত ১০–০ চীনা তাইপেই 
(আল আইন, সংযুক্ত আরব আমিরাত; ৯ নভেম্বর ২০০৬)
এএফসি এশিয়ান কাপ
অংশগ্রহণ২ (১৯৬০-এ প্রথম)
সেরা সাফল্যতৃতীয় স্থান (১৯৬০)
এএফসি চ্যালেঞ্জ কাপ
অংশগ্রহণ১ (২০০৬-এ প্রথম)
সেরা সাফল্যকোয়ার্টার-ফাইনাল (২০০৬)

চীনা তাইপেই জাতীয় ফুটবল দল (ইংরেজি: Chinese Taipei national football team) হচ্ছে আন্তর্জাতিক ফুটবলে চীনা তাইপেইয়ের প্রতিনিধিত্বকারী পুরুষদের জাতীয় দল, যার সকল কার্যক্রম চীনা তাইপেইয়ের ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা চীনা তাইপেই ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। এই দলটি ১৯৫৪ সাল হতে ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফার এবং একই বছর হতে তাদের আঞ্চলিক সংস্থা এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশনের সদস্য হিসেবে রয়েছে। ১৯৫৪ সালের ১লা মে তারিখে, চীনা তাইপেই প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক খেলায় অংশগ্রহণ করেছে; ফিলিপাইনের ম্যানিলায় অনুষ্ঠিত উক্ত ম্যাচে চীনা তাইপেই দক্ষিণ ভিয়েতনামকে ৩–২ গোলের ব্যবধানে পরাজিত করেছে।

২০,০০০ ধারণক্ষমতাবিশিষ্ট তাইপেই পৌর স্টেডিয়ামে চীনা দল নামে পরিচিত এই দলটি তাদের সকল হোম ম্যাচ আয়োজন করে থাকে। এই দলের প্রধান কার্যালয় তাইওয়ানের রাজধানী তাইপেইয়ে অবস্থিত। বর্তমানে এই দলের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করছেন ভম কা-হুম এবং অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করছেন ছাংছুন ইয়াতাইয়ের মধ্যমাঠের খেলোয়াড় ছেন পো-লিয়াং

চীনা তাইপেই এপর্যন্ত একবারও ফিফা বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করতে পারেনি। অন্যদিকে, এএফসি এশিয়ান কাপে চীনা তাইপেই এপর্যন্ত ২ বার অংশগ্রহণ করেছে, যার মধ্যে সেরা সাফল্য হচ্ছে ১৯৬০ এএফসি এশিয়ান কাপে তৃতীয় স্থান অধিকার করা। এছাড়াও, গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকে চীনা তাইপেইয়ের সেরা সাফল্য হচ্ছে রৌপ্য পদক জয়লাভ করা। এছাড়াও, এএফসি চ্যালেঞ্জ কাপে চীনা তাইপেই এপর্যন্ত মাত্র ১ বার অংশগ্রহণ করেছে, যেখানে তাদের সাফল্য হচ্ছে কোয়ার্টার-ফাইনালে পৌঁছানো, শ্রীলঙ্কার কাছে উক্ত ম্যাচটি তারা ৩–০ গোলের ব্যবধানে পরাজিত হয়েছে।

ছেন পো-লিয়াং, ছেন ই-ওয়েই, ছেন হাও-ওয়েই, উ ছুন-ছিন এবং লিন ছিয়েন-সুনের মতো খেলোয়াড়গণ চীনা তাইপেইয়ের জার্সি গায়ে মাঠ কাঁপিয়েছেন।

র‌্যাঙ্কিং[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে, ২০১৮ সালের এপ্রিল মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে চীনা তাইপেই তাদের ইতিহাসে সর্বোচ্চ অবস্থান (১২১তম) অর্জন করে এবং ২০১৬ সালের জুন মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে তারা ১৯১তম স্থান অধিকার করে, যা তাদের ইতিহাসে সর্বনিম্ন। অন্যদিকে, বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে চীনা তাইপেইয়ের সর্বোচ্চ অবস্থান হচ্ছে ৬০তম (যা তারা ১৯৬৫ সালে অর্জন করেছিল) এবং সর্বনিম্ন অবস্থান হচ্ছে ২১৩। নিম্নে বর্তমানে ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং এবং বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে অবস্থান উল্লেখ করা হলো:

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং
১৯ নভেম্বর ২০২১ অনুযায়ী ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং[১]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
১৫৬ বৃদ্ধি  ডোমিনিকান প্রজাতন্ত্র ১০২৯.৪২
১৫৭ হ্রাস  মালদ্বীপ ১০২১.৫৮
১৫৮ অপরিবর্তিত  চীনা তাইপেই ১০১৭.৭৮
১৫৯ অপরিবর্তিত  তাহিতি ১০১৪.২৭
১৬০ অপরিবর্তিত  সিঙ্গাপুর ৯৯৭.৪২
বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং
২৬ নভেম্বর ২০২১ অনুযায়ী বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং[২]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
২০১ হ্রাস  কেইম্যান দ্বীপপুঞ্জ ৮৯৩
২০২ অপরিবর্তিত  জিবুতি ৮৮৮
২০৩ হ্রাস  চীনা তাইপেই ৮৭৯
২০৪ অপরিবর্তিত  পাকিস্তান ৮৭৩
২০৫ হ্রাস  বাহামা দ্বীপপুঞ্জ ৮৬৬

প্রতিযোগিতামূলক তথ্য[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব
সাল পর্ব অবস্থান ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো
উরুগুয়ে ১৯৩০ প্রতিষ্ঠিত হয়নি প্রতিষ্ঠিত হয়নি
ইতালি ১৯৩৪
ফ্রান্স ১৯৩৮
ব্রাজিল ১৯৫০ অংশগ্রহণ করেনি অংশগ্রহণ করেনি
সুইজারল্যান্ড ১৯৫৪ প্রত্যাহার প্রত্যাহার
সুইডেন ১৯৫৮
চিলি ১৯৬২ অংশগ্রহণ করেনি অংশগ্রহণ করেনি
ইংল্যান্ড ১৯৬৬
মেক্সিকো ১৯৭০
পশ্চিম জার্মানি ১৯৭৪
আর্জেন্টিনা ১৯৭৮ উত্তীর্ণ হয়নি ১৭
স্পেন ১৯৮২
মেক্সিকো ১৯৮৬ ৩৬
ইতালি ১৯৯০
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ১৯৯৪ ৩১
ফ্রান্স ১৯৯৮ ১৩
দক্ষিণ কোরিয়া জাপান ২০০২ ২৫
জার্মানি ২০০৬ ২৭
দক্ষিণ আফ্রিকা ২০১০ ১১
ব্রাজিল ২০১৪
রাশিয়া ২০১৮ ২০
কাতার ২০২২ অনির্ধারিত অনির্ধারিত
মোট ০/২২ ৫৮ ৪৮ ৩৫ ২০০

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ফিফা/কোকা-কোলা বিশ্ব র‍্যাঙ্কিং"ফিফা। ১৯ নভেম্বর ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ১৯ নভেম্বর ২০২১ 
  2. গত এক বছরে এলো রেটিং পরিবর্তন "বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং"eloratings.net। ২৬ নভেম্বর ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ২৬ নভেম্বর ২০২১ 
  3. "Taiwan matches, ratings and points exchanged"। World Football Elo Ratings: Taiwan। সংগ্রহের তারিখ ২৪ নভেম্বর ২০১৬ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]