চিজবার্গার

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
চিজবার্গার
Cheeseburger with fries.jpg
ফ্রেঞ্চ ফ্রাইয়ের সাথে পরিবেশিত চিজবার্গার
প্রকারমূল খাবার
উৎপত্তিস্থলমার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
প্রধান উপকরণমাংসের প্যাটি, চিজ, বান
খাদ্য শক্তি
(প্রতি পরিবেশনায়)
৬০০-১৫০০ কিলোক্যালরি (-৫৬৮০ কেজি)
রন্ধনপ্রণালী: চিজবার্গার  মিডিয়া: চিজবার্গার

চিজবার্গার (ইংরেজি: Cheeseburger) হচ্ছে এক প্রকার হ্যামবার্গার, যা বার্গারের অন্যান্য উপকরণের সাথে চিজের সংমিশ্রণে তৈরি করা হয়। প্রচলিতভাবে, চিজের টুকরোটি মাংসের প্যাটির উপরে দেওয়া হয়, তবে বার্গারটির কাঠামো, উপাদান এবং মিশ্রণে ভিন্নতা থাকতে পারে। চিজ সাধারণত পরিবেশন করার অল্প সময় আগে রান্না করা হ্যামবার্গার প্যাটির উপর দেওয়া হয়, তাই চিজ গলেও যেতে দেয়। অন্যান্য হ্যামবার্গারের মতো, চিজবার্গারে টপিংস হিসাবে লেটুস, টমেটো, পেঁয়াজ, চাটনি, মেয়োনেজ, কেচাপ, সরিষা বা অন্যান্য উপকরণ থাকতে পারে।

ফাস্টফুড রেস্তোঁরাগুলিতে সাধারণত প্রক্রিয়াজাতকৃত চিজ ব্যবহার করা হয়, তবে অন্যকোনো গলনশীল চিজও ব্যবহার করা যেতে পারে। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হিসাবে রয়েছে চেডার, সুইস, মোজারেলা, ব্লু চিজ এবং মন্টেরি জ্যাক/পিপার জ্যক।

ব্যুৎপত্তি[সম্পাদনা]

উনিশ শতকের শেষের দিকে গ্রেট প্লেইনসের বিস্তৃত তৃণভূমিতে গবাদি পশু পালন উন্মুক্ত করায় অনেক আমেরিকানের পক্ষে প্রায় প্রতিদিন গরুর মাংস খাওয়া সম্ভব হয়েছিল। এই হ্যামবার্গার আমেরিকার গরুর মাংসের অন্যতম সস্তা একটি উৎস ছিল, এবং এখনো রয়ে গেছে।[১]

চিজযুক্ত হ্যামবার্গার ১৯২০-এর দশকের শেষ থেকে ১৯৩০-এর দশকের মাঝামাঝি সময়ে জনপ্রিয় হয়ে ওঠে এবং কে প্রথম চিজবার্গার তৈরি করেছিল তা নিয়ে বেশ কয়েকটি প্রতিযোগিতামূলক দাবি রয়েছে। লিওনেল স্টার্নবার্গার ১৯২৬ সালে ১৬ বছর বয়সে ক্যালিফোর্নিয়ার পাসাদেনায় তার পিতার স্যান্ডউইচের দোকান "দ্য রাইট স্পট"-এ ভাজি রান্না করার সময় পরীক্ষামূলকভাবে একটি আমেরিকান চিজের টুকরো ভাজা হ্যামবার্গারে যোগ করেন এবং চিজবার্গারের প্রবর্তন করেন বলে খ্যাতি লাভ করেছিলেন।[২][৩][৪][৫][৬]

চিজবার্গারের জন্মের স্মরণে একটি ফলক

কোনো রেস্তোরাঁর খাদ্যতালিকায় চিজবার্গার যুক্ত হওয়ার প্রাথমিক উদাহরণ হলো লস অ্যাঞ্জেলেস রেস্তোঁরা ও'ডেলের ১৯২৮ সালের একটি তালিমা, যাতে মরিচের সাথে একটি চিজবার্গারের দাম রাখা হয় ২৫ সেন্ট।[৭][৮][৯]

অন্যান্য রেস্তোঁরাও দাবি করেছিল যে, তারা চিজবার্গার আবিষ্কার করেছেন। উদাহরণস্বরূপ, কেনটাকি এর লুইসভিলের ক্যালিন রেস্তোঁরাটির দাবি ছিল, তারা ১৯৩৪ সালে চিজবার্গারের উদ্ভাবন করেছিল।[১০] এক বছর পরে , কলোরাডোর ডেনভারের হাম্পটি ডাম্পটি ড্রাইভ-ইনের লুই বালাস্টকে "চিজবার্গার" নামের একটি ট্রেডমার্ক দেওয়া হয়েছিল।[১১] স্টেক 'এন শেক আর্কাইভস অনুসারে, রেস্তোঁরাটির প্রতিষ্ঠাতা গুস বেল্ট ১৯৩০-এর দশকে এই শব্দের উপর ট্রেডমার্কের জন্য একটি আবেদন করেছিলেন।[১২][১৩][১৪]

চিজবার্গারের একটি ধরন, স্টিমড চিজবার্গার প্রায় একচেটিয়াভাবে সেন্ট্রাল কানেকটিকাটে পরিবেশন করা হয়েছিল, এটি ১৯৩০-এর দশকে কানেকটিকাটের মিডলটাউনে জ্যাক'স লাঞ্চ নামে একটি রেস্তোঁরায় উদ্ভাবিত হয়েছিল বলে মনে করা হয়।[১৫]

সর্বকালের বৃহত্তম চিজবার্গারটির ওজন ছিল ২,০১৪ পাউন্ড (৯১৪ কেজি), যা ৬০ পাউন্ড (২৭ কেজি) বেকন, ৫০ পাউন্ড (২৩ কেজি) লেটুস, ৫০ পাউন্ড (২৩ কেজি) পেঁয়াজের টুকরো, ৪০ পাউন্ড (১৮ কেজি) চাটনি এবং ৪০ পাউন্ড (১৮ কেজি) চিজের স্বমন্বয়ে তৈরি করা হয়েছিল। মিনেসোটার ব্ল্যাক বিয়ার ক্যাসিনো ২০১২ সালে এই রেকর্ডটি স্থাপন করেছিল, যা পূর্বের ৮৮১ পাউন্ড (৪০০ কেজি) রেকর্ডটি ভেঙে দেয়।[১৬]

যুক্তরাষ্ট্রে প্রতি বছরের ১৮ সেপ্টেম্বর জাতীয় চিজবার্গার দিবস হিসাবে পালিত হয়।[১৭]

প্রস্তুতপ্রণালী[সম্পাদনা]

উপকরণ[সম্পাদনা]

  • প্যাটি বানানোর জন্য:-
  1. মাংসের কিমা - ৫০০ গ্রাম
  2. গোলমরিচের গুঁড়ো - ২ চা চামচ
  3. লবণ - ১ চা চামচ
  4. তেল - ১ চা চামচ
  • বার্গারের জন্য:-
  1. বার্গার বান ৪ টি (মাঝখান থেকে দুই ভাগ করা)
  2. মেয়োনেজ
  3. চিজ - ৪ পিস
  4. লেটুস পাতা
  5. পেঁয়াজের টুকরো
  6. টমেটোর টুকরো
  7. সরিষা বাটা - ২ চা চামচ

প্রণালী[সম্পাদনা]

প্রথমে প্যাটির সব উপকরণ ভালোভাবে মাখিয়ে নিতে হবে। তারপর এটি ৪ ভাগে ভাগ করতে হবে। এরপর গোল ও চ্যাপ্টা করে প্যাটি বানিয়ে নিতে হবে। এরপর অল্প তেল দিয়ে দুদিকে ভালোভাবে ভেজে নিতে হবে। চাইলে গ্রিল করেও নেওয়া যেতে পারে। এরপর বার্গার বানের নিচের অংশে আগে অল্প সরিষা বাটা দিতে হবে। এবার লেটুস পাতা দিয়ে একটি প্যাটি দিতে হবে। তারপর ওপরে মেয়োনেজ দিয়ে টমেটো কুঁচি, পেঁয়াজ কুঁচি এবং চিজ দিতে হবে। এরপর বান এর উপরের অংশটি দিয়ে দিতে হবে। এভাবে তৈরি করা যাবে চিজ বার্গার।

চিত্রশালা[সম্পাদনা]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Ozersky, Josh (২০০৮)। The Hamburger: The History। Yale University Press। পৃষ্ঠা 12, 14আইএসবিএন 9780300117585 
  2. Piasecki, Joe (জানুয়ারি ১৬, ২০১২)। "Pasadena claims its slice of burger history"Los Angeles Timesআইএসএসএন 0458-3035। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ১৫, ২০১৭ 
  3. Harvey, Steve (মার্চ ২৭, ১৯৯১)। "Only in L.A."Los Angeles Times। পৃষ্ঠা B2। Cooking at his father's short-order joint in Pasadena in the early 1920s, [Sternberger] experimentally tossed a slice (variety unknown) on a hamburger... 
  4. Perry, Charles (জুন ৯, ২০০৪)। "It's an L.A. Thing; Our burgers are the best with good reason: We made them here first"Los Angeles Times। পৃষ্ঠা F1। 
  5. Piasecki, Joe (জানুয়ারি ১৩, ২০১২)। "Yes, it was invented in Pasadena! Probably. Tracing the cheeseburger from inception to Bob's Big Boy"Pasadena Sun। সংগ্রহের তারিখ মে ১৩, ২০১২ 
  6. Henerson, Evan (জুন ২৩, ১৯৯৯)। "The Tale of the Cheeseburger"San Gabriel Valley Tribune। এপ্রিল ১২, ২০০৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মে ১৩, ২০১২ 
  7. Grace, Roger M. (জানুয়ারি ১৫, ২০০৪)। "Old Menus Tell the History of Hamburgers in L.A."Metropolitan News-Enterprise। সংগ্রহের তারিখ মে ১৩, ২০১২ 
  8. Spiers, Katherine (সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৩)। "Were Cheeseburgers Invented in Pasadena?"KCET। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ৮, ২০১৪ 
  9. "O'Dell's menu"Menu Collection। Los Angeles Public Library। ১৯২৮। অক্টোবর ২৮, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ২৮, ২০১৭ 
  10. "Louisville Facts & Firsts - LouisvilleKy.gov"। City of Louisville, Kentucky। অক্টোবর ৬, ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ২৯, ২০০৬ 
  11. "History of the Cheeseburger"Cheese-Burger.net (blog)। আগস্ট ২, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ২, ২০০৮ 
  12. Flick, Bill (ফেব্রুয়ারি ২০, ২০১২)। "Flick Fact 2/20/2012 Monday"Bloomington Pantagraph। সেপ্টেম্বর ১১, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ২১, ২০১২ 
  13. "Our 'Top 5 List' of little-known facts about Bloomington-Normal"WJBC-FM। জুলাই ২৯, ২০১১। ডিসেম্বর ২, ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ২১, ২০১২ 
  14. Perry, Catherine D. (জুলাই ৭, ২০০৪)। "Steak 'n Shake vs Burger King, Memorandum and Order" (PDF)। United States District Court Eastern District Missouri Eastern Division। সেপ্টেম্বর ২৮, ২০১৩ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ২১, ২০১২ (7 July 2004) 323 F. Supp.2d 983 (E.D. Mo. 2004)
  15. George Motz (১০ মে ২০১১)। Hamburger America: Completely Revised and Updated Edition: A State-by-State Guide to 150 Great Burger Joints। Running Press। পৃষ্ঠা 70। আইএসবিএন 978-0-7624-4234-8 
  16. Ulla, Gabe (সেপ্টেম্বর ৪, ২০১২)। "World's Biggest Cheeseburger Clocks in at 2,014 Pounds"Eater LA। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ২, ২০১৭ 
  17. "Free cheeseburgers! Where to find the meal deals for National Cheeseburger Day Tuesday"USA Today। সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০১৯ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]