চট্টগ্রাম সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(চট্টগ্রাম সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে পুনর্নির্দেশিত)
চট্টগ্রাম সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়
চট্টগ্রাম সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় - লোগো.png
অবস্থান
কলেজ রোড, চট্টগ্রাম

বাংলাদেশ
তথ্য
ধরনসরকারি
প্রতিষ্ঠাকাল১৯০৬ সালে
প্রধান শিক্ষকমুহাম্মদ শহীদ উল্লাহ
শ্রেণী৫-১০
শিক্ষার্থী সংখ্যা২১০০

চট্টগ্রাম সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় বাংলাদেশের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের বন্দর নগরী চট্টগ্রামে অবস্থিত একটি স্বনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এটি চট্টগ্রামের কলেজ রোডে অবস্থিত। এর বিপরীতে রয়েছে চট্টগ্রাম কলেজ এবং ডান পাশে মহসিন কলেজ। ১৯০৬ সালে এই স্কুল যাত্রা শুরু করে এম ই স্কুল হিসেবে। পরে এটি জুনিয়র হাই স্কুল হিসাবে স্বীকৃতি পায়।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

বিদ্যালয়টি ১৯০৬ খৃষ্টাব্দে প্রতিষ্ঠিত হয়। বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাকালীন নাম ছিল এম.ই.স্কুল (মিডল ইংলিশ স্কুল)। ১৯১৮ খৃষ্টাব্দে বিদ্যালয়টিকে সরকারি ঘোষণা করা হয়। বেসরকারিভাবে (৪র্থ,৫ম,৬ষ্ঠ) অতিরিক্ত শাখা খোলার অনুমতি দেয়া হয় ১৯৫৮ খৃষ্টাব্দে। ১৯৬৬ খৃষ্টাব্দে এটিকে চট্টগ্রাম সরকারি জুনিয়র হাই স্কুল ঘোষণা করা হয়। ১৯৭৭ খৃষ্টাব্দে এটিকে চট্টগ্রাম সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় নামকরণ করা হয়। ১৯৮১ খৃষ্টাব্দে এস.এস.সি প্রথম ব্যাচে ভর্তি করানো হয়। ২০০৯ খৃষ্টাব্দে দ্বৈত শিফট চালু করা হয়।

অবস্থান[সম্পাদনা]

অত্র বিদ্যালয়টি চট্টগ্রাম নগরীর অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ শহর চকবাজারের কলেজ রোডে অবস্থিত। এর ঠিক বিপরীতে চট্টগ্রাম কলেজ এবং বিদ্যালয়ের একদম পাশেই সরকারি হাজী মুহাম্মদ মহসিন কলেজ অবস্থিত।

শিক্ষাকার্যক্রম[সম্পাদনা]

ব্রিটিশ উপনিবেশকাল থেকেই এ বিদ্যালয় চট্টগ্রাম অঞ্চলে শিক্ষা বিস্তারে অনন্য ভূমিকা পালন করছে। পঞ্চম থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত বর্তমানে প্রায় ২১০০জন ছাত্র এখানে অধ্যয়নরত। প্রভাতী ও দিবা - এ দু'টি শাখায় পাঠদান পরিচালিত হয়। নবম-দশম শ্রেণিতে রয়েছে বিজ্ঞান ও মানবিক বিভাগ। প্রতিবছর ডিসেম্বরে প্রতিযোগীতামূলক পরীক্ষার মাধ্যমে পঞ্চম শ্রেণিতে ছাত্র ভর্তি করানো হয়। ভর্তি প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ পরিচালিত ও নিয়ন্ত্রিত হয় চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন কর্তৃক।

ব্যবস্থাপনা[সম্পাদনা]

বিদ্যালয়ের পাঠকার্য পরিচালনা এবং অন্যান্য প্রাতিষ্ঠানিক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য বিদ্যালয়ে রয়েছেন ৫২ জন শিক্ষক-শিক্ষিকা। একজন প্রধান শিক্ষকের নেতৃত্বে এবংদুইজন সহকারী প্রধান শিক্ষকের সার্বিক তত্ত্বাবধানে বিদ্যালয়ের যাবতীয় কার্যক্রম পরিচালিত হয় । এছাড়াও দাপ্তরিক বিভিন্ন কাজে সহযোগীতা করার জন্য আছে ১০ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]