গ্লেন ব্রুক-জ্যাকসন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
গ্লেন ব্রুক-জ্যাকসন
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামগ্লেন কিথ ব্রুক-জ্যাকসন
জন্ম (1969-04-25) ২৫ এপ্রিল ১৯৬৯ (বয়স ৫৩)
সলসবারি, রোডেশিয়া
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি অফ ব্রেক
ভূমিকাব্যাটসম্যান
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ১৬)
১ ডিসেম্বর ১৯৯৩ বনাম পাকিস্তান
শেষ টেস্ট৯ ডিসেম্বর ১৯৯৩ বনাম পাকিস্তান
একমাত্র ওডিআই
(ক্যাপ ৩৬)
২৭ ডিসেম্বর ১৯৯৩ বনাম পাকিস্তান
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ৩২ ১৩
রানের সংখ্যা ৩৯ ১২ ১,৪১৩ ১৭২
ব্যাটিং গড় ৯.৭৫ ১২.০০ ২৮.২৬ ১৭.২০
১০০/৫০ ০/০ ০/০ ২/৬ ০/০
সর্বোচ্চ রান ৩১ ১২ ১৩০ ৪৪
বল করেছে
উইকেট
বোলিং গড়
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ০/– ০/– ১১/– ৫/–
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ৭ মার্চ ২০২০

গ্লেন কিথ ব্রুক-জ্যাকসন (ইংরেজি: Glen Bruk-Jackson; জন্ম: ২৫ এপ্রিল, ১৯৬৯) সলসবারি এলাকায় জন্মগ্রহণকারী সাবেক জিম্বাবুয়ীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার। জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৯৩ সালে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে জিম্বাবুয়ের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।[১][২]

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর জিম্বাবুয়ীয় ক্রিকেটে ম্যাশোনাল্যান্ড, ম্যাশোনাল্যান্ড কান্ট্রি ডিস্ট্রিক্টস ও ইংরেজ ক্রিকেটে লিচেস্টারশায়ার দ্বিতীয় একাদশ দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, ডানহাতে অফ ব্রেক বোলিংয়ে পারদর্শী ছিলেন গ্লেন ব্রুক-জ্যাকসন

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

১৯৮৭-৮৮ মৌসুম থেকে ১৯৯৭-৯৮ মৌসুম পর্যন্ত গ্লেন ব্রুক-জ্যাকসনের প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল। ১৯৮০-এর দশকের শেষদিকে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করলেও নিজের প্রতিভাকে বিচ্ছুরিত করতে পারেননি তিনি। ১৯৮৮ সালের অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপে জিম্বাবুয়ের সদস্যরূপে খেলেন। তেমন কিছু করতে না পারলেও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে খেলার জন্যে তাকে জাতীয় দলে আমন্ত্রণ জানানো হয়।

আলেকজান্দ্রা স্পোর্টস ক্লাবে খেলেন। এরপর, ১৯৯৩-৯৪ মৌসুমে হারারে স্পোর্টস ক্লাবে চলে যান। সেখানে সফলতম খেলোয়াড়ী জীবন অতিবাহিত করেন। ব্যাটিংয়ে অভিজ্ঞ খেলোয়াড় হিসেবে অরেঞ্জ ফ্রি স্টেট বি দলের বিপক্ষে শতরানের ইনিংস খেলেন।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

ঘরোয়া ক্রিকেটে সুন্দর খেলা উপহারের স্বীকৃতিস্বরূপ পাকিস্তান গমনের জন্যে তাকে দলে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। মাঝারিসারিতে ব্যাটিংয়ে নামেন তিনি। তবে, ঘরোয়া পর্যায়ের খেলা আন্তর্জাতিক পর্যায়ের সাথে তাল মেলাতে পারেননি। ফলশ্রুতিতে, তাকে আর জাতীয় দলে রাখা হয়নি।

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে দুইটিমাত্র টেস্ট ও একটিমাত্র ওডিআইয়ে অংশগ্রহণ করেছেন গ্লেন ব্রুক-জ্যাকসন। সবগুলো খেলাই পাকিস্তান সফরে খেলেছিলেন। ১ ডিসেম্বর, ১৯৯৩ তারিখে করাচীতে স্বাগতিক পাকিস্তান দলের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। এরপর, ৯ ডিসেম্বর, ১৯৯৩ তারিখে একই দলের বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্টে অংশ নেন তিনি।

এছাড়াও একমাত্র ওডিআইটি একই দলের বিপক্ষে খেলেছিলেন। ২৭ ডিসেম্বর, ১৯৯৩ তারিখে লাহোরে একদিনের আন্তর্জাতিকে অভিষেক ঘটে তার। এটিই তার একমাত্র ওডিআইয়ে অংশগ্রহণ ছিল।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Players / Zimbabwe / ODI caps"Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 
  2. "Zimbabwe ODI Batting Averages"Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]