গোলশিফতেহ ফারাহানি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
গোলশিফতেহ ফারাহানি
Golshifteh Farahani Césars 2014 2.jpg
২০১৪ সালে ৩৯তম সিজার পুরস্কার অনুষ্ঠানে ফারাহানি
স্থানীয় নাম
گلشیفته فراهانی‎,
জন্ম
রাহাভার্দ ফারাহানি

(1983-07-10) ১০ জুলাই ১৯৮৩ (বয়স ৩৬)
বাসস্থানপ্যারিস, ফ্রান্স
জাতীয়তাইরানি
শিক্ষাফ্রান্স
যেখানের শিক্ষার্থীআজাদ বিশ্ববিদ্যালয়
পেশা
  • অভিনেত্রী
  • সঙ্গীতজ্ঞ
  • গায়িকা
কার্যকাল১৯৯৭–বর্তমান
আদি নিবাসতেহরান
দাম্পত্য সঙ্গীআমিন মাহদাবি (বি. ২০০৪; বিচ্ছেদ. ২০১৩)
ক্রিস্টস দর্হে ওয়াকার (বি. ২০১৫; বিচ্ছেদ. ২০১৭)
পিতা-মাতা
আত্মীয়শাঘায়েঘ ফারাহানি(বোন)
ওয়েবসাইটwww.golshiftehfarahani.net

গোলশিফতেহ ফারাহানি (ফার্সি: گلشیفته فراهانی‎‎, জন্ম ১০ জুলাই ১৯৮৩) ইরানি অভিনেত্রী, সঙ্গীতশিল্পী এবং গায়ক। ২০১৮ সালের হিসেবে এযাবৎ তিনি ২৫টি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন, যার অধিকাংশ আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি লাভ করেছে। ২০১৪ সালে ফ্রন্সে ৩৯তম সিজার পুরস্কারে দ্য প্যাটিনস স্টোন চলচ্চিত্রের জন্য সর্বাধিক প্রতিশ্রুত অভিনেত্রী বিভাগে পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছিলেন তিনি এবং ২৬তম নান্টস থ্রি কন্টিনেন্টস উৎসবে (ফ্রান্স) বুটিক চলচ্চিত্রের জন্য শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীর পুরস্কার জিতেছেন। সাম্প্রতিক বছরগুলিতে তিনি সুপরিচিত ইরানি ও আন্তর্জাতিক পরিচালক, আসগর ফারহাদি, বাহমান ঘোবদি, রসুল মোল্লাঘলিপুর, জিম জারমুচ, রিডলি স্কট, জোয়াচিম রনিং, এস্পেন স্যান্দবার্গ নির্মিত চলচ্চিত্রে নেতৃস্থানীয় ভূমিকা পালন করেছেন। ফারাহানি আসগর ফারহাদি পরিচালিত অ্যাবাউট এলি নাট্য চলচ্চিত্রে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন, যেটি ২০০৯ সালে তিবিসা চলচ্চিত্র উৎসবে শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্রের পুরস্কার জেতে; এবং বার্লিন আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে সিলভার বিয়ার জেতে। একাধিক বিতর্কের কারণে বিভিন্নভাবে বিতর্কিত হবার পর তিনি আর ইরানি চলচ্চিত্রে কাজ করেন নি।[১]

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

গোলশিফতেহ ফারাহানি ১৯৮৩ সালের ১০ জুলাই, রাহাভার্দ ফারাহানি হিসেবে ইরানের তেহরানে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা বেহজাদ ফারাহানি, মঞ্চ পরিচালক ও অভিনেতা এবং মা ফাহিমেহ রাহিমনিয়া একজন ইরানি অভিনেত্রী। ইরানি অভিনেত্রী শাঘায়েঘ ফারাহানি তার বোন।[২] ফারাহানি, তার পাঁচ বছর বয়সে সঙ্গীত বিষয়ে শিক্ষা গ্রহণ শুরু করেন, এবং একইসাথে পিয়ানো বাজানো শেখেন, পরে তিনি তেহরানে একটি সঙ্গীত বিদ্যালয়ে যোগ দেন। ১৪ বছর বয়সে, ফারাহানি দ্যারিউশ মেহেরজুই পরিচালিত "দ্য পিয়ার ট্রি" চলচ্চিত্রে একটি প্রধান ভূমিকায় কাজ করেছিলেন। এই চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি তেহরানের ১৬তম ফজর আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে আন্তর্জাতিক বিভাগে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীর জন্য ক্রিস্টাল রক জেতেন।[৩]

অ-চলচ্চিত্র কাজ[সম্পাদনা]

বিবিসি ফার্সি টেলিভিশনের সাক্ষাৎকারে ফারাহানি

অভিনয় ছাড়াও গোলশিফতেহ ফারাহানি পরিবেশগত কর্মকান্ডে জড়িত; তিনি ইরানে টিবি রোগের সাথে লড়াই করার জন্য একজন রাষ্ট্রদূত হিসেবে নিযুক্ত হয়েছেন।[৩] ইরানে, গোলশিফতেহ "কুচ ন্যেশিন" (যাযাবরদের) নামক একটি ভূগর্ভস্থ রক ব্যান্ডটির অংশ ছিলেন, এই ব্যান্ডটি দ্বিতীয় তেহরান এভিনিউ ভূগর্ভস্থ রক প্রতিযোগিতা জিতেছে। ইরান ছেড়ে চলে যাওয়ার পর থেকেই তার সঙ্গীত কর্মজীবনকে অব্যাহত রেখেছেন, অন্য নির্বাসিত ইরানী সঙ্গীতশিল্পী মোহসেন নাজ্জু এর সাথে মিলিত হয়েও তিনি গান গেয়েছেন। তাদের অ্যালবাম "অয়" অক্টোবর ২০০৯ সালে মুক্তি পায়।

২০১৪ সালের ডিসেম্বরে, ২০১৪ সালের বার্ষিক স্বাধীন সমালোচকদের সৌন্দর্য তালিকাতে তিনি ষষ্ঠ স্থান অধিকার করেন।[৪] গোলশিফতেহ ফারাহানি এখন ফ্রান্সের প্যারিসে বসবাস করেন।[৫] প্যারিসে যাওয়ার পর, তিনি রোল্যান্ড জফিফ, হেনার সলিম এবং মারজেন সাতপী মতো সহ পরিচালকদের সাথে কাজ করেছেন। তিনি ৬৩তম লোকার্নো ফিল্ম ফেস্টিভালে আন্তর্জাতিক জুরির সদস্য এর ভূমিকা পালন করেছেন।

বিতর্ক[সম্পাদনা]

২০১৮ সালে কানে ফারাহানি

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বডি অফ দ্য লাইস চলচ্চিত্রে অভিনয়ের পর, ইরানের কর্তৃপক্ষ তাকে ইরান ছাড়তে বাধ্য করে।[২] যদিও, তার সহকর্মীরা বিষয়টি অস্বীকার করে এবং পরবর্তীতে তিনি যুক্তরাষ্ট্রে চলচ্চিত্রটির প্রিমিয়ারে হাজির হন।[৬] ফারাহানি অভিনিত শেষ ইরানি চলচ্চিত্র আসগর ফারহাদি পরিচালিত অ্যাবাউট এলি[১] ফারাহানি বর্তমানে ফ্রান্সের প্যারিসে বাস করছেন।[১]

জানুয়ারী ২০১২ সালে, এটি জ্ঞাপিত হয়েছিল যে ফারাহানি ফরাসি মাদাম ফিগারো এ নগ্নতা প্রকাশের পর তাকে আর কখনো তার মাতৃভূমিতে স্বাগত জানানো হবে না।[৭] ব্রিটেনের দ্য ডেইলি টেলিগ্রাফ প্রতিবেদন করেছে যে সরকারি কর্মকর্তারা ফারাহানিকে বলেছিলেন যে "তার মতো অভিনেত্রী বা শিল্পীর ইরানে দরকার নেই। আপনি অন্য কোন স্থানে আপনার শিল্পকর্মের প্রস্তাব দিতে পারেন।"[৮] তার ফেসবুক পাতায় শুটিং থেকে একটি ছবি তার আচরণ সম্পর্কে প্রাণবন্ত বিতর্ক শুরু করে।[৯] তিনি জিন-বাপ্তিস্তে মন্দিনো পরিচালিত Corps et Âmes, বা দেহ এবং আত্মা নামে একটি ছোট সাদা-কালো চলচিত্রে অনাবৃতপ্রায় অবস্থায় অভিনয় করেছেন।[১০]

থিয়েটার কর্মক্ষমতা[সম্পাদনা]

বছর নাটক চরিত্র টিকা
২০০৩ মরিয়ম আয়ন্ড মর্দভিজ মায়ান
২০০৪ দয় ব্ল্যক নার্সিসাস কর্মশালা
২০০৫ মোফাতেশ (ইন্সপেক্টর) ফাইরোজেহ ইরানে নিষিদ্ধ
২০১৩ অয়া প্রাইভেট ড্রিম সারাহ উত্তর আমেরিকা ভ্রমণ (মার্চ–এপ্রিল ২০১৩)[১১]
২০১৬ আন্না কারেনিনা আন্না কারেনিনা ফ্রান্স ও প্যারিসে ভ্রমণ

চিত্র সঙ্গীত[সম্পাদনা]

বছর গান শিল্পী টিকা
২০১৪ "পলা" জাবেরভোকি (ক্লারা চাপগি সমন্বিত) [১২]
২০১৮ "প্যারাডাইস" ওরেলসান

কনসার্ট[সম্পাদনা]

তারিখ ঘটনাস্থল টিকা
আগস্ট ১০, ২০০৯ সালা ভারদি, মিলান কনজারভেটরি মহসেন নামজুর সাথে, অয় অ্যালবামে উপস্থিতি
নভেম্বর ৯, ২০০৯ লিডো, ভেনিস মহসেন নামজুর সাথে, ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসব অনুষ্ঠানে

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Archived copy"। ২০০৯-০২-২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০১-২৫ 
  2. Tehrani, Souraya, "Hollywood postponed : Golshifteh Farahani has been prevented from heading to the US to discuss future film roles", Guardian (UK), Friday August 22, 2008
  3. "Actress Golshifteh Farahani was appointed as the ambassador of TB" ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ৯ মার্চ ২০০৯ তারিখে, News, National Research Institute of Tuberculosis and Lung Disease, Shaheed Beheshti University of Medical Sciences, Tehran, Iran
  4. "100 Most Beautiful Faces 2014... - Independent Critics by TC Candler | Independent Critics by TC Candler"Tccandler.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-১২-১০ 
  5. "DiCaprio Co-Star in Islamic Hot Water? at Hollywood.com"Web.archive.org। Archived from the original on ২০০৮-১০-০৯। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-১২-১০ 
  6. "Colleague denies Iran actress faced travel ban: report", AFP, Tehran, Aug 26, 2008
  7. Tait, Robert (১৭ জুলাই ২০১২)। "Iran imposes travel ban on star actresses"The Daily Telegraph। London। 
  8. McElroy, Damien (১৮ জানুয়ারি ২০১২)। "Iranian actress banned from homeland after naked magazine shoot"Daily Telegraph। London। সংগ্রহের তারিখ ২২ জানুয়ারি ২০১২ 
  9. "Iranian reactions to Golshifteh Farahani's nude photo"Tabeer। ২৬ জানুয়ারি ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২২ জানুয়ারি ২০১২ 
  10. Omid Memarian (২০১২-০১-২০)। "Nude Photo of Iranian Actress Golshifteh Farahani Roils Iran"The Daily Beast। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-১২-১০ 
  11. "Home"। Stage1 Production। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-১২-১০ 
  12. "Jabberwocky: Pola, le titre lancinant et addictif dévoilé"Lefigaro.fr। ২০১৪-০৫-২১। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-১২-১০ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]