গেভিন রবার্টসন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
গেভিন রবার্টসন
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামগেভিন রন রবার্টসন
জন্ম (1966-05-28) ২৮ মে ১৯৬৬ (বয়স ৫৪)
সেন্ট লিওনার্ডস, নিউ সাউথ ওয়েলস, অস্ট্রেলিয়া
ডাকনামদ্য রিডলার
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি অফ ব্রেক
ভূমিকাবোলার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ৩৭৫)
৬ মার্চ ১৯৯৮ বনাম ভারত
শেষ টেস্ট২২ অক্টোবর ১৯৯৮ বনাম পাকিস্তান
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ১১৯)
১৩ সেপ্টেম্বর ১৯৯৪ বনাম শ্রীলঙ্কা
শেষ ওডিআই২১ এপ্রিল ১৯৯৮ বনাম নিউজিল্যান্ড
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯৮৭ - ১৯৮৯নিউ সাউথ ওয়েলস
১৯৮৯ - ১৯৯১তাসমানিয়া
১৯৯১ - ২০০০নিউ সাউথ ওয়েলস
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ১৩ ৫৮ ৬৪
রানের সংখ্যা ১৪০ ৪৫ ১৬৫৮ ২৮৪
ব্যাটিং গড় ২০.০০ ১৫.০০ ২৩.৩৫ ১৪.২০
১০০/৫০ -/১ -/- -/৬ -/০
সর্বোচ্চ রান ৫৭ ১৫ ৯৯ ৩৪*
বল করেছে ৮৯৮ ৫৯৭ ১১৪১৬ ২৯৭০
উইকেট ১৩ ১২৭ ৫৮
বোলিং গড় ৩৯.৬১ ৫৩.৭৫ ৪১.৮৬ ৩৫.১৫
ইনিংসে ৫ উইকেট - -
ম্যাচে ১০ উইকেট - - -
সেরা বোলিং ৪/৭২ ৩/২৯
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১/- ৩/- ৩০/০ ১৮/০
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ১ আগস্ট ২০২০

গেভিন রন রবার্টসন (ইংরেজি: Gavin Robertson; জন্ম: ২৮ মে, ১৯৬৬) নিউ সাউথ ওয়েলসের সেন্ট লিওনার্ডস এলাকায় জন্মগ্রহণকারী সাবেক অস্ট্রেলীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার। অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৯০-এর দশকের শেষদিকে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।

চারটি টেস্ট ও অনেকগুলো একদিনের আন্তর্জাতিকে অংশ নেয়ার সুযোগ হয় তার। ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটে নিউ সাউথ ওয়েলসতাসমানিয়া দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি অফ ব্রেক বোলিং করতেন। এছাড়াও, ডানহাতে নিচেরসারিতে কার্যকরী ব্যাটিং করতেন ‘দ্য রিডলার’ ডাকনামে পরিচিত গেভিন রবার্টসন

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

১৯৮৭-৮৮ মৌসুম থেকে ১৯৯৯-২০০০ মৌসুম পর্যন্ত গেভিন রবার্টসনের প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল। তাসমানিয়ায় তিনি সাধারণতঃ ব্যাটসম্যান উপযোগী পিচে খেলেছেন। তবে, এ ধরনের উইকেটে তিনি নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি। কিন্তু, সমসাময়িকদের তুলনায় নিজেকে নিচেরসারির কার্যকরী ব্যাটসম্যানসরূপে চিত্রিত করেছিলেন। দুইবার মার্কেন্টাইল মিউচুয়াল কাপের শিরোপা বিজয়ে সহযোগিতার হাত প্রসারিত করেন।

১৯৮৭ সালে নিউ সাউথ ওয়েলস ব্লুজ দলের সদস্যরূপে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। দুই মৌসুম ঐ ক্লাবে খেলার পর আরও ক্রিকেট খেলায় অংশগ্রহণের লক্ষ্যে তাসমানিয়ায় চলে যান। টাইগার্সের পক্ষে দুই মৌসুম খেলার পর পুণরায় নিউ সাউথ ওয়েলসে যুক্ত হন। ১৯৯২-৯৩ মৌসুমে সফলতম সময় অতিবাহিত করেন ও শেফিল্ড শিল্ডের শিরোপা বিজয়ী দলের সদস্য ছিলেন তিনি।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে চারটিমাত্র টেস্ট ও তেরোটি একদিনের আন্তর্জাতিকে অংশগ্রহণ করেছেন গেভিন রবার্টসন। ৬ মার্চ, ১৯৯৮ তারিখে চেন্নাইয়ে স্বাগতিক ভারত দলের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। ২২ অক্টোবর, ১৯৯৮ তারিখে করাচীতে স্বাগতিক পাকিস্তান দলের বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্টে অংশ নেন তিনি।

মার্চ, ১৯৯৮ সালে অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক পর্ব সম্পন্ন হয় গেভিন রবার্টসনের। চেন্নাইয়ে অনুষ্ঠিত ঐ খেলায় প্রতিপক্ষ ছিল স্বাগতিক ভারত। সবমিলিয়ে ঐ টেস্টে তিনি পাঁচ উইকেট পান। অস্ট্রেলিয়ার প্রথম ইনিংসে তিনি ৫৭ রান করেন। নবম উইকেট জুটিতে ইয়ান হিলি’র সাথে ৯৬ রানের জুটি গড়েন ও দলকে প্রথম ইনিংসে এগিয়ে নিয়ে যেতে সহায়তা করেন। তবে, শচীন তেন্ডুলকরের অনবদ্য সেঞ্চুরির সুবাদে ভারত দল দ্বিতীয় ইনিংসে জয়সূচক রান তুলে।[১]

অবসর[সম্পাদনা]

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে উপেক্ষিত হবার পর নিজ রাজ্য দলের প্রথম একাদশ দলেও তাকে অংশগ্রহণের জন্যে বেগ পেতে হয়েছিল। ২০০০ সালে গেভিন রবার্টসন ক্রিকেট খেলা থেকে অবসর গ্রহণ করেন।

খেলোয়াড়ী জীবন থেকে অবসর গ্রহণের পর ২এসএমের টকিন স্পোর্ট শীর্ষক অনুষ্ঠানের সঞ্চালকের দায়িত্বে রয়েছেন। এছাড়াও, ফক্স স্পোর্টসের বিল এন্ড বজ অনুষ্ঠানে নিয়মিতভাবে অংশ নিচ্ছেন। নিউ সাউথ ওয়েলসের চারজন সাবেক দলীয় সঙ্গীকে নিয়ে সিক্স এন্ড আউট শীর্ষক ব্যান্ড দলের সদস্য হিসেবে রয়েছেন গেভিন রবার্টসন। তিনি ড্রাম বাজান ও যৌথ সুরে যোগ দেন।

মে, ২০১৯ সালে মস্তিষ্কের টিউমারের তার অস্ত্রোপচার হয়।[২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. India v Australia, 6–10 Mar 1998
  2. "Gavin Robertson battling aggressive brain cancer"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৯ মে ২০১৯ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]