গেভিন ব্রায়ান্ট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
গেভিন ব্রায়ান্ট
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামগেভিন অব্রে ব্রায়ান্ট
জন্ম (1969-04-11) ১১ এপ্রিল ১৯৬৯ (বয়স ৫১)
সালিশ্‌বুরি, রোডেশিয়া
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি অফ ব্রেক
ভূমিকাব্যাটসম্যান, মাঝে-মধ্যে উইকেট-রক্ষক
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
একমাত্র টেস্ট
(ক্যাপ ১৪)
১৩ মার্চ ১৯৯৩ বনাম ভারত
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ৩২)
১ ফেব্রুয়ারি ১৯৯৩ বনাম পাকিস্তান
শেষ ওডিআই২৫ মার্চ ১৯৯৩ বনাম ভারত
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ১১ ১২
রানের সংখ্যা ১৭ ৩৯ ৪৪৭ ১৫২
ব্যাটিং গড় ৮.৫০ ১৩.০০ ২৪.৮৩ ১৬.৮৮
১০০/৫০ ০/০ ০/০ ০/৩ ০/১
সর্বোচ্চ রান ১৬ ১৬ ৬৯ ৫১*
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ০/০ ০/০ ১০/০ ৩/১
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ৩০ আগস্ট ২০১৯

গেভিন অব্রে ব্রায়ান্ট (ইংরেজি: Gavin Briant; জন্ম: ১১ এপ্রিল, ১৯৬৯) সলসবারিতে জন্মগ্রহণকারী জিম্বাবুয়ের সাবেক আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার।[১][২] জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৯৩ সালে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে জিম্বাবুয়ের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর জিম্বাবুয়ীয় ক্রিকেটে ম্যাশোনাল্যান্ড দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতেন। কভার অঞ্চলে ফিল্ডিং করে সুনাম কুড়িয়েছেন। এছাড়াও, দলের প্রয়োজনে উইকেট-রক্ষণের দায়িত্ব পালনসহ ডানহাতে অফ ব্রেক বোলিংয়ে পারদর্শী ছিলেন গেভিন ব্রায়ান্ট

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

১৯৯০-৯১ মৌসুম থেকে ১৯৯৫-৯৬ মৌসুম পর্যন্ত গেভিন ব্রায়ান্টের প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল। ১৯৯০ সালে আইসিসি ট্রফি বিজয়ী জিম্বাবুয়ে দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন। আক্রমণধর্মী ব্যাটসম্যান ছিলেন তিনি। কভার অঞ্চলে চমৎকার ফিল্ডিং করতেন।

১৯৮৯-৯০ মৌসুমে সংবাদ শিরোনামে চলে আসেন। ১৯৮৯ সালে ওরচেস্টারশায়ার দ্বিতীয় একাদশের পক্ষে খেলেন। এর পরের বছর জিম্বাবুয়ে বি দলের সদস্যরূপে ইংল্যান্ড এ দলের বিপক্ষে ১০৩ রানের অপরাজিত ইনিংস উপহার দেন।[৩][৪] তবে, দূর্বল ক্রীড়াশৈলী প্রদর্শনের কারণে ১৯৯২ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপে অংশগ্রহণের সুযোগ পাননি তিনি।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে একটিমাত্র টেস্ট ও পাঁচটিমাত্র ওডিআইয়ে অংশগ্রহণ করেছেন গেভিন ব্রায়ান্ট। ১৩ মার্চ, ১৯৯৩ তারিখে দিল্লিতে স্বাগতিক ভারত দলের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। এটিই তার একমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ ছিল। এর পূর্বে ১ ফেব্রুয়ারি, ১৯৯৩ তারিখে শারজায় পাকিস্তানের বিপক্ষে একদিনের আন্তর্জাতিকে অভিষিক্ত হন তিনি।

আন্তর্জাতিক অঙ্গনে জিম্বাবুয়ের সদস্য হিসেবে মাঝারীমানের সফলতা পান। টেস্ট ও একদিনের আন্তর্জাতিকে সর্বোচ্চ করেন মাত্র ১৬। ১৯৯২-৯৩ মৌসুমে জিম্বাবুয়ের প্রথম বিদেশ সফরে অংশ নেয়ার সুযোগ পান। ঐ মৌসুমে তিনি আরও চারটি ওডিআই খেলেন ও ইংল্যান্ড গমন করেন। এরপর থেকে খেলায় ছন্দ হারিয়ে ফেলেন ও পরবর্তীতে খুব কমই খেলায় অংশ নিয়েছিলেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Players / Zimbabwe / ODI caps"Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 
  2. "Zimbabwe ODI Batting Averages"Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 
  3. "Player profile: Gavin Briant"ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৯ আগস্ট ২০১৯ 
  4. Hopps, David (২৩ মার্চ ১৯৯০)। "Cricket: Bicknell high but bowlers endure cold turkey - Tour match; Zimbabwe B v England A"The Guardian। London। পৃষ্ঠা 21 – Gale General OneFile-এর মাধ্যমে। 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]