গিয়াইলো বিমানবন্দর, ডাগালি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
গিয়াইলো বিমানবন্দর, ডাগালি
Geilo lufthavn, Dagali
Hol Dagali IMG 3661.JPG
সংক্ষিপ্ত বিবরণ
বিমানবন্দরের ধরনব্যক্তিগত
মালিকহোল এবং নোরে অগ উভদাল পৌরসভা
পরিচালকগিয়াইলো লুফথাভান ডাগালি এএস
সেবা দেয়গিয়াইলো
অবস্থানডাগালি, হোল, নরওয়ে
এএমএসএল উচ্চতা২,৬১৮ ফুট / ৭৯৮ মিটার
ওয়েবসাইটwww.geilolufthavn.no
মানচিত্র
ENDI নরওয়ে-এ অবস্থিত
ENDI
ENDI
রানওয়েসমূহ
দিকনির্দেশনা দৈর্ঘ্য পৃষ্ঠতল
মি ফুট
০৮/২৬ ১,৮০০ ৫,৯০৫ অ্যাসফাল্ট
পরিসংখ্যান (২০০২)
যাত্রীসংখ্যা8870

গিয়াইলো বিমানবন্দর, ডাগালি (নরওয়েজীয়: Geilo flyplass, Dagali; formerly Geilo lufthavn, Dagali; (আইএটিএ: DLDআইসিএও: ENDI)) ডাগালি, হোল নরওয়ে তে অবস্থিত একটি ব্যক্তিগত বিমানবন্দর। পূর্বে এটি জনসাধারনের জন্য ব্যবহার করা হয়েছিল, আঞ্চলিক বিমানবন্দর হিসেবে ব্যবহারের পাশাপাশি গিয়াইলোর মাঝামাঝি অবস্থিত স্কাই রিসোর্ট-এ বেড়াতে আসা আন্তর্জাতিক পর্যটকদের চাটার্ড বিমান সেবা দেওয়ার জন্য এই বিমানবন্দরটি ব্যবহার করা হত। ১৯৮৫ সালে বিমানবন্দরটি চালু করা হয় কিন্তু বাণিজ্যিকভাবে লোকসান হওয়ায় ২০০৩ সালে এটি বন্ধ করে দেওয়া হয়।

প্রাথমিকভাবে ১৩০০ মিটার (৪৩০০ফুট) রানওয়ে দিয়ে বিমানবন্দরটির যাত্রা শুরু হলেও ১৯৮৮ সালে তা ১৮০০ মিটার (৫৯০০ফুট) পর্যন্ত বর্ধিত করা হয়। বর্তমানে এর রানওয়ের দৈর্ঘ্য ৮৫০মিটার (২৭৯০ফুট) যেটা দিয়ে কিনা এখনো ব্যক্তিগত বিমান পরিচালনা করা সম্ভব। বিমানবন্দরটিকে পরে গো কার্ট ট্র্যাকে রূপান্তর করা হয় যেটিতে বর্তমানে কিছু সাধারণ বিমানসংস্থা রয়েছে। পরবর্তীতে বিমানবন্দরের বাণিজ্যিক সেবাটি লেইরিনে অবস্থিত ফাগারনেস বিমানবন্দরে সরিয়ে নেওয়া হয় যেটা ১৯৮৭ সালে চালু করা হয়েছিল। হোল এবং নোরে অগ উভদাল পৌরসভার বর্তমানে বিমানবন্দরটির পরিচালনা ও রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বে রয়েছে।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৯৮৫ সালে আঞ্চলিক বিমানবন্দর হিসেবে গিয়াইলো বিমানবন্দর চালু করা হয়। ১৯৮৬ সালে ২০ই জুন কোস্ট এরো সেন্টারকে স্ট্রাভেঞ্জার থেকে গিয়াইলো বিমানবন্দরে ১৯৯১ সাল পর্যন্ত উড্ডয়নের অনুমোদন দেওয়া হয়। এই সেবাতে বিমানসংস্থাটি বিচক্রাফট ২০০ সুপার কিং এয়ার মডেলের বিমান ব্যবহার করে। একই সময়ে নরভিং অসলোতে বিমান পরিচালনা শুরু করে।[১] গিয়াইলোতে যাত্রীর সংখ্যা লাভজনক না হওয়ায় কোস্ট এরো সেন্টার ও নরভিং তাদের সেবাগুলো বন্ধ করে দেয়। উইডেরো এবং নর্সক জানায় যে আগ্রহী হওয়ার জন্য পর্যাপ্ত সংখ্যক যাত্রী তাদের নেই।[২] ১৯৮৯ সালে কোস্ট এয়ার গিয়াইলো থেকে অসলো এবং স্ট্রাভেঞ্জায় বিমান পরিচালনার জন্য এক বছরের অনুমোদন পায়। বিমান সংস্থাটি এক্ষেত্রে দ্য হেভিল্যান্ড কানাডা ডিএইচসি-৬ টুইন অটার বিমান ব্যবহার করতো। শীঘ্রই এই সেবাটি কমিয়ে সপ্তাহে ২ বার করা হয়।[৩]

বিমানবন্দরটিতে জেট বিমানের সেবা দেওয়ার লক্ষ্যে ১৯৮৮ সালে রানওয়ে ১৩০০ মিটার থেকে ১৮০০ মিটার (৪৯০০ থেকে ৫৯০০ফুট) করার নির্মাণ কাজ শুরু হয়। এখাতে প্রায় ১৫.৩ মিলিয়ন নরওয়েজীয় ক্রোনার ব্যয় করা হয় যা পৌরসভা ও কাউন্টির নিশ্চয়তার প্রেক্ষিতে গৃহীত ঋণের মাধ্যমে অর্থায়ন করা হয়।[৪][৫] ১৯৮৪ সাল পর্যন্ত বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ আশাবাদী ছিলেন যে এই প্রাদেশিক অর্থসংস্থান বিমানবন্দরটির পাশাপাশি এর ঋণের নিশ্চয়তাকারীকেও সুরক্ষা দেবে, এবং সেই সাথে বিমানবন্দরটিতে দৈনিক বিমান পরিচালনায় ভর্তুকিও লাভ করবে। গিয়াইলো কখনোই সে ধরনের মর্যাদা পায়নি যেটা কাছাকাছি অবস্থিত ১৯৮৭ সালে চালু হওয়া লেইরিনের ফাগারনেস বিমানবন্দর পেয়েছিল।[৬] ১৯৯২ সালে হোল এবং নোরে অগ উভদাল পৌরসভার মেয়র উপলব্ধি করেন এই বিমানবন্দরটি তৈরি করা একটি বিশাল ভুল ছিল। বিমানবন্দরটি দিয়ে বছরে ১০০০ এর চেয়েও কম যাত্রী যাতায়াত করত, যার ফলে কোস্ট এয়ারকে পৌরসভা বছরে মাত্র ১ মিলিয়ন ক্রোনার ভর্তুকি দিতে হতো। ফলে বিমানবন্দরটি নিজেই একধরনের ঘাটতি তৈরি করে। হোল এবং নোরে অগ উভদাল পৌরসভার এবং কিছু ব্যক্তিগত বিনিয়োগকারীর সমন্বয়ে নরচার্টার নামক একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গঠিত হয়, কিন্তু বিমানবন্দর ও ঐ অঞ্চলের প্রচারে প্রায় ৮ মিলিয়ন ক্রোনার ব্যয় করেও বিমানবন্দরের যাত্রীসংখ্যা বৃদ্ধি করতে প্রতিষ্ঠানটি ব্যর্থ হয়।[৭]

১৯৯৬ সালের ১ জানুয়ারি ২৬টি পৌরসভার বিমানবন্দরের দায়িত্ব নরওয়েজিয়ান সিভিল এভিয়েশন এডমিনিস্ট্রেশন অধিগ্রহণ করে। গিয়াইলো বিমানবন্দর সেই তালিকায় না থাকলেও রাজ্য সরকার থেকে প্রায় ১.৫ মিলিয়ন নরওয়েজীয় ক্রোনার অনুদান লাভ করে।[৮] ২০০০ সালের শেংজেন চুক্তি অনুসারে অভিবাসন প্রক্রিয়া সুষ্ঠু করার লক্ষ্যে বিমানবন্দরগুলো পুনঃনির্মাণ করার জন্য আরো বিনিয়োগ করা হয়।[৯] ২০০২ সালে ৮,৮৭০ জন যাত্রী পরিবহন করে বিমানবন্দরটি নতুন ইতিহাস তৈরি করে।[১০] ২০০৩ সালে ১ জুন গিয়াইলো লুফথভান ড্রিফ্ট এ/এস বিমানবন্দরটি পরিচালনার জন্য দায়িত্ব নিতে চুক্তিবদ্ধ হয়। কিন্তু এপ্রিল থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বিমানবন্দরটি সাময়িক বন্ধ রাখা হয় ও পরবর্তীকালে নতুন সংস্থাটি বিমানবন্দরটি আর চালু না করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে।[১১] সেই থেকে বিমানবন্দরটি গো কার্ট ট্র্যাক হিসেবে ব্যবহত হচ্ছে যদিও এর রানওয়ের ৮৫০ বাই ২০ মিটার (২৭৮৯ বাই ৬৬ ফুট) অংশ ব্যক্তিগত বিমান পরিচালনায় ব্যবহার করা যায়।[১২]

ঘটনা ও দূর্ঘটনাসমূহ[সম্পাদনা]

  • ১৯৯২ সালের ২৫ এপ্রিল মলডে বিমানবন্দর, এরো থেকে গিয়াইলোগামী একটি সেসনা ১৭২ বিমান বিদ্ধস্ত হলে পাইলট এবং যাত্রী সবাই মারা যায়। বিমানটি ডাগালির ২ কিলোমিটার পূর্বে বিদ্ধস্ত হয়।[১৩]
  • ১৯৯২ সালের ১৮ই অক্টোবর পাইপার পিএ-২৪ কমাঞ্চে ২৩০০ মিটার (৭৫০০ ফুট) উচ্চতায় ইঞ্জিন এর কার্যকারিতা হারায়। বিমানটি সম্পূর্ণ ধ্বংস হয়ে যায় কিন্তু পাইলট কিছুটা আঘাত পেয়ে জরুরী অবতরণ করতে সমর্থ হয়।[১৪]
  • ১৯৯৩ সালের ১৯ই মার্চ বিচক্রাফট সুপার কিং এয়ার বিমানটি ট্রোন্ডারফ্লাই থেকে আসার সময় বিমানবন্দরের ৪.৩ কিলোমিটার (২.৭ মাইল) আগে অবতরণের সময় বিদ্ধস্ত হয়। ঐ দূর্ঘটনায় ৩ জন প্রাণ হারায়।[১৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Flyrute Dagali – Stavanger" (নরওয়েজীয় ভাষায়)। Norsk Telegrambyrå। ২০ জুন ১৯৮৬। 
  2. "Trolig slutt med rutetrafikk på Dagali flyplass" (নরওয়েজীয় ভাষায়)। Norsk Telegrambyrå। ১২ জুন ১৯৮৬। 
  3. "Coast Air får prøvedrift på fire flyruter" (নরওয়েজীয় ভাষায়)। Norsk Telegrambyrå। ৩ এপ্রিল ১৯৮৯। 
  4. "Klart for utbygging på Dagali flyplass" (নরওয়েজীয় ভাষায়)। Norsk Telegrambyrå। ১৫ জানুয়ারি ১৯৮৮। 
  5. "Dagali Øst del 1" (PDF) (নরওয়েজীয় ভাষায়)। Hol Municipality। ২৫ নভেম্বর ১৯৮১। ২৪ জুলাই ২০১১ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ এপ্রিল ২০১০ 
  6. "Flyplasser i pengekrise"। Dagens Næringsliv (নরওয়েজীয় ভাষায়)। ১৮ আগস্ট ১৯৯২। পৃষ্ঠা 28। 
  7. "Ordføreren speider etter flyene – som aldri kommer til Dagali"। Dagens Næringsliv (নরওয়েজীয় ভাষায়)। ৭ সেপ্টেম্বর ১৯৯২। পৃষ্ঠা 15। 
  8. "Staten skal overta regionale flyplasser" (নরওয়েজীয় ভাষায়)। Norsk Telegrambyrå। ৬ এপ্রিল ১৯৯৫। 
  9. Valderhaug, Rune (২ ফেব্রুয়ারি ২০০০)। "Koster flyplassene 150 mill."। Bergens Tidende (নরওয়েজীয় ভাষায়)। 
  10. "!"। Verdens Gang (নরওয়েজীয় ভাষায়)। ১৫ জানুয়ারি ২০০৩। পৃষ্ঠা 36। 
  11. "Geilo Lufthavn Dagali åpner ikke igjen" (নরওয়েজীয় ভাষায়)। Norsk Telegrambyrå। ২৭ মে ২০০৩। 
  12. "Pilotinfo" (নরওয়েজীয় ভাষায়)। Geilo Lufthavn Drift। ৯ জুন ২০০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২১ জানুয়ারি ২০১০ 
  13. "To drept i flystyrt i Dagali" (নরওয়েজীয় ভাষায়)। Norsk Telegrambyrå। ২৫ এপ্রিল ১৯৯২। 
  14. "Styrtet fra 2300 m"। Verdens Gang (নরওয়েজীয় ভাষায়)। ১৯ অক্টোবর ১৯৯২। 
  15. "Styrtet med begge motorene på" (নরওয়েজীয় ভাষায়)। Norsk Telegrambyrå। ১৯ মার্চ ১৯৯৩। 

টেমপ্লেট:নরওয়ের বিমানবন্দর