খ্রিস্টধর্ম ও উপনিবেশবাদ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

খ্রিস্টধর্ম ও উপনিবেশবাদ নিবিড়ভাবে সম্পর্কিত। ইউরোপীয় ঔপনিবেশিক আগ্রাসনের সময় খ্রিস্টধর্ম ধর্মীয় ইন্ধন যুগিয়েছিল এবং ঔপনিবেশিক শক্তিগুলোর ভাবাদর্শিক ঢাল হিসেবে তৎপর ছিল।[১][২] এডওয়্যার্ড এন্ড্রুসের মতে, খ্রিস্টধর্ম ইউরোপীয় ঔপনিবেশিক আগ্রাসনে উগ্র ও অন্ধ ধর্মীয় আবেগ সঞ্চার করে এবং আগ্রাসনকে ধর্মীয় বৈধতা দেয়।[৩] এন্ড্রুসের মতে, খ্রিস্টধর্ম উপনিবেশবাদের ধারক, বাহক ও নীতিগত ছুতো হিসেবে আগ্রাসনে অংশ নিয়েছে,[৪] যদিও খ্রিস্টান ধর্মপ্রচারকরা নিজেরা নিজেদের অরাজনৈতিক সাধু-সন্ত হিসেবে প্রচার করে থাকে।

উপনিবেশবাদের ইতিহাসবিদদের মতে, ঔপনিবেশিক আগ্রাসনকালে যুদ্ধ, ধর্ষণ, হত্যাকাণ্ড, লুটতরাজকে বৈধতা দিতে খ্রিস্টধর্মের বিশ্বাসসমূহকে কাজে লাগানো হয়। উদাহরণস্বরুপ, টয়িন ফালোলার মতে, অনেক ধর্মপ্রচারকের কাছেই আফ্রিকায় খ্রিস্টধর্মের এজেন্ডা ও উপনিবেশবাদের এজেন্ডার মাঝে কোন ফারাক ছিল না। জন এইচ. বোয়ার নামে এক ধর্মপ্রচারকের সূত্র ধরে ফালোলা বলেন, খ্রিস্টধর্ম প্রচারকরা উপনিবেশবাদকে ঐশ্বরিক নির্দেশ হিসেবে দেখতো এবং বিধর্মী অখ্রিস্টানদের খ্রিস্টধর্মে দীক্ষিত করে যিশুর পথে নিয়ে আসার উপায় হিসেবে দেখতো।[৫]

"যখন খ্রিস্টান ধর্মপ্রচারকরা আসলো, আমাদের ছিল জমি, আর তাদের ছিল বাইবেল। তারা আমাদের চোখ বন্ধ করে উপাসনা করতে বললো। আমরা যখন চোখ খুললাম, জমি ছিল তাদের দখলে আর আমাদের হাতে শুধু বাইবেল।"

জোমো কেনিয়াত্তা[৬]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Melvin E. Page, Penny M. Sonnenburg (২০০৩)। Colonialism: an international, social, cultural, and political encyclopedia, Volume 1। ABC-CLIO। পৃষ্ঠা 496। 
  2. Bevans, Steven। "Christian Complicity in Colonialism/ Globalism" (PDF)। ২০১৩-০৩-২৪ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-১১-১৭The modern missionary era was in many ways the ‘religious arm’ of colonialism, whether Portuguese and Spanish colonialism in the sixteenth Century, or British, French, German, Belgian or American colonialism in the nineteenth. This was not all bad — oftentimes missionaries were heroic defenders of the rights of indigenous peoples 
  3. Andrews, Edward (২০১০)। "Christian Missions and Colonial Empires Reconsidered: A Black Evangelist in West Africa, 1766–1816": 663–691। ডিওআই:10.1093/jcs/csp090 
  4. Comaroff, Jean; Comaroff, John (২০১০)। "Africa Observed: Discourses of the Imperial Imagination"। Perspectives on Africa: A Reader in Culture, History and Representation (2nd সংস্করণ)। Blackwell Publishing। পৃষ্ঠা 32 
  5. Falola, Toyin (২০০১)। Violence in Nigeria: The Crisis of Religious Politics and Secular Ideologies। University Rochester Press। পৃষ্ঠা 33। 
  6. "A New Generation Redefines What It Means to Be a Missionary"দি আটলান্টিক। ২০১৮-০৩-০৮। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০১-২২ 

পঠনীয় গ্রন্থাদি[সম্পাদনা]

  • Cleall, Esme. Missionary discourses of difference: Negotiating otherness in the British Empire, 1840-1900 (2012).
  • Moffett, Samuel Hugh. A History of Christianity in Asia, Vol. II: 1500-1900 (2003) excerpt
  • Mong, Ambrose. Guns and Gospels: Imperialism and Evangelism in China (James Clarke Company, 2016).
  • Panikkar, K. M.. Asia and Western dominance, 1498-1945 (Allen and Unwin, 1953)
  • Porter, Andrew. Religion Versus Empire?: British Protestant missionaries and overseas expansion, 1700-1914 (2004)
  • Porter, Andrew. The Imperial Horizons of British Protestant Missions, 1880-1914 (2003)
  • Prevost, Elizabeth. "Assessing Women, Gender, and Empire in Britain's Nineteenth‐Century Protestant Missionary Movement." History Compass 7#3 (2009): 765-799.
  • Stanley, Brian. The Bible and the Flag: Protestant Mission and British Imperialism in the 19th and 20th Centuries (1990)
  • Stuart, John. "Beyond sovereignty?: Protestant missions, empire and transnationalism, 1890–1950." in y Maryann Cusimano Love ed., Beyond sovereignty (Palgrave Macmillan, London, 2007) pp 103–125.
  • Ward, Kevin & Brian Stanley, eds. Church Mission Society & World Christianity. 1799-1999' (1999)
  • Wu, Albert. "Ernst Faber and the Consequences of Failure: A study of a nineteenth-century German missionary in China." Central European History 47.1 (2014): 1-29.