খালিদ ওয়াজির

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
খালিদ ওয়াজির
খালিদ ওয়াজির.jpg
১৯৫৪ সালের সংগৃহীত স্থিরচিত্রে ওয়াজির মোহাম্মদ
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামসৈয়দ খালিদ ওয়াজির
জন্ম(১৯৩৬-০৪-২৭)২৭ এপ্রিল ১৯৩৬
জলন্ধর, পাঞ্জাব, ব্রিটিশ ভারত
(বর্তমানে - ভারত)
মৃত্যু২৭ জুন ২০২০(2020-06-27) (বয়স ৮৪)
চেস্টার, ইংল্যান্ড
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি ফাস্ট-মিডিয়াম
ভূমিকাব্যাটসম্যান
সম্পর্কনাজির আলী (চাচা)
ওয়াজির আলী (পিতা)
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ১৬)
১০ জুন ১৯৫৪ বনাম ইংল্যান্ড
শেষ টেস্ট২২ জুলাই ১৯৫৪ বনাম ইংল্যান্ড
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ১৮
রানের সংখ্যা ১৪ ২৭১
ব্যাটিং গড় ৭.০০ ১৫.০৫
১০০/৫০ -/- -/১
সর্বোচ্চ রান ৯* ৫৩
বল করেছে - ১৫৩০
উইকেট - ১৪
বোলিং গড় - ৫৩.২৮
ইনিংসে ৫ উইকেট - -
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং - ৩/৮২
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং -/- ১১/-
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ২৮ জানুয়ারি ২০২০

সৈয়দ খালিদ ওয়াজির (উর্দু: خالد وزیر‎‎; জন্ম: ২৭ এপ্রিল, ১৯৩৬ - মৃত্যু: ২৭ জুন, ২০২০) তৎকালীন ব্রিটিশ ভারতের পাঞ্জাবের জলন্ধর এলাকায় জন্মগ্রহণকারী পাকিস্তানি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ছিলেন।[১][২] পাকিস্তান ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৫৪ সালে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে পাকিস্তানের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, ডানহাতে ফাস্ট-মিডিয়াম বোলিংয়ে দক্ষ ছিলেন খালিদ ওয়াজির

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

করাচীর সেন্ট প্যাট্রিক্স হাই স্কুলে পড়াশুনো করেছিলেন।[৩] ১৯৫২-৫৩ মৌসুম থেকে ১৯৫৩-৫৪ মৌসুম পর্যন্ত খালিদ ওয়াজিরের প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল। আক্রমণাত্মক ভঙ্গীমায় ডানহাতে ব্যাটিং কর্মে অগ্রসর হয়েছিলেন। এছাড়াও মিডিয়াম পেস বোলিংসহ চমৎকার ফিল্ডার হিসেবে সুনাম ছিল তার। সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে ১৬টি প্রথম-শ্রেণীর খেলায় মাঝারিসারির ব্যাটসম্যান হিসেবে অংশ নিয়ে ১৬.৮৬ গড়ে ২৫৩ রান ও ৫৪.৯০ গড়ে ৯ উইকেট লাভ করেছিলেন।[৪]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে দুইটিমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ করেছেন খালিদ ওয়াজির।[১] ১০ জুন, ১৯৫৪ তারিখে লর্ডসে স্বাগতিক ইংল্যান্ড দলের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। এরপর, ২২ জুলাই, ১৯৫৪ তারিখে ম্যানচেস্টারে একই দলের বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্টে অংশ নেন তিনি।

মাত্র দুইটি প্রথম-শ্রেণীর খেলায় ১৮ রান ও ৫ উইকেট লাভের পরপরই ১৯৫৪ সালে পাকিস্তান দলের সদস্যরূপে ইংল্যান্ড গমনার্থে রাখা হয়। ১৮ বছর বয়সী ছাত্র খালিদ ওয়াজিরকে বিস্ময়করভাবে জাতীয় দলে খেলার জন্যে মনোনীত করা হয়েছিল। ব্যাটিংয়ে অভিজ্ঞ হিসেবে দুই টেস্টে খেলার সুযোগ পান। সিরিজের প্রথম ও তৃতীয় টেস্টে নিচেরসারির ব্যাটসম্যান হিসেবে খেললেও বোলিং কর্মে অগ্রসর হননি। ঐ সফরে ১৬.৮৬ গড়ে ২৫৩ রান ও ৬২.৬৬ গড়ে নয় উইকেট পেয়েছিলেন।

অবসর[সম্পাদনা]

ইংল্যান্ড সফরের পর আর কোন প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট খেলায় অংশ নেননি। ফলশ্রুতিতে, একমাত্র টেস্ট ক্রিকেটার হিসেবে ১৯ বছর বয়সে পদার্পণের পূর্বেই প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবনের সমাপ্তি টানেন। ১৯৫৭ সালে ইংল্যান্ডের ল্যাঙ্কাশায়ার লীগে ইস্ট ল্যাঙ্কাশায়ার দলের পক্ষে পেশাদারী পর্যায়ে ক্রিকেট খেলেন। সেখানে তিনি ৫/৫৭ বোলিং পরিসংখ্যান দাঁড় করিয়েছিলেন।[৫]

তার পিতা সৈয়দ ওয়াজির আলী ১৯৩০-এর দশকে ও চাচা সৈয়দ নাজির আলী ভারতের পক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছিলেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Khalid Wazir"। www.cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৫-১৫ 
  2. "Former Pakistan cricketer Khalid Wazir dies at 84"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জুন ২০২০ 
  3. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জানুয়ারি ২০২০ 
  4. Wisden 1955, p. 220.
  5. Pro bowling averages 1957

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]