খান আবদুল গাফফার খান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
খান আবদুল গফফর খান
Khan Abdul Ghaffar Khan.jpg
জন্ম(১৮৯০-০২-০৬)৬ ফেব্রুয়ারি ১৮৯০
মৃত্যু২০ জানুয়ারি ১৯৮৮(১৯৮৮-০১-২০)
প্রতিষ্ঠানখুদাই খিদমতগার, জাতীয় আওয়ামী পার্টি
আন্দোলনভারতের স্বাধীনতা আন্দোলন

উপাধীঃ সীমান্ত গান্ধী

খান আবদুল গফফর খান (পশতু: خان عبدالغفار خان) ভারতে ব্রিটিশ শাসনে তার অহিংসের জন্য একজন পশতুন বংশোদ্ভূত ভারতীয় রাজনৈতিক হিসেবে পরিচিত ছিলেন। তৎকালীন ভারতের উত্তর- পশ্চিম সীমান্তে বিশৃঙ্খলা ও সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা রোধে মহাত্মা গান্ধীর অহিংস নীতি প্রচার ও ধারণ করার জন্য তাকে সীমান্ত গান্ধী উপাধী দেয়া হয় বলে ধারণা করা হয়। এছাড়াও তিনি সর্বদাই মহাত্মা গান্ধীর অহিংস নীতির একজন একনিষ্ঠ সমর্থক ছিলেন।

আব্দুল গফফার খান কংগ্রেস ম্যান হওয়ায় ভারতের স্বাধীনতা প্রশ্নে সবসময় কংগ্রেসের নীতিতে অটল থাকলেও শেষ সময়ে এসে ভারত বিভাগের পরিবর্তে পাঠানদের নিয়ে স্বাধীন পাখতুনিস্তান রাষ্টের দাবি জানান। যা প্রকাশ্যত লর্ড মাউন্টব্যাটেন, মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ ও মুসলিগের বিরুদ্ধে চলে যায়। এছাড়াও পাকিস্তান রাষ্ট্র সৃষ্টির পক্ষে গণভোট হলে তার নেতৃত্বে খুদাই- খিদমতগারেরা গণভোট বর্জন করে। পরবর্তীতে এই বিরোধ নিয়ে মুসলিম লীগ ও মোহাম্মদ আলী জিন্নাহর সাথে আপোস- রফা হলেও পাকিস্তান সৃষ্টির পর তাকে এবং খুদাই- খিদমতগারদের কারাবরণ করতে হয়। বস্তুতপক্ষে, ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলন ও সীমান্তে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় তার অবদান অসামান্য এবং আরো অনেক কংগ্রেস নেতার মতো তিনিও অখণ্ড ভারতের স্বাধীনতা চাইলেও দেশ বিভাগের পক্ষপাতী ছিলেন না।