খাইবার পাখতুনখোয়া

স্থানাঙ্ক: ৩৪°০০′ উত্তর ৭১°১৯′ পূর্ব / ৩৪.০০° উত্তর ৭১.৩২° পূর্ব / 34.00; 71.32
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(খাইবার পাখতুনখাওয়া থেকে পুনর্নির্দেশিত)
খাইবার পাখতুনখোয়া
প্রদেশ
পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখোয়ার পতাকা
পতাকা
খাইবার পাখতুনখোয়ার অফিসিয়াল সীলমোহর
সীলমোহর
পাকিস্তানে খাইবার পাখতুনখোয়ার অবস্থান
পাকিস্তানে খাইবার পাখতুনখোয়ার অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ৩৪°০০′ উত্তর ৭১°১৯′ পূর্ব / ৩৪.০০° উত্তর ৭১.৩২° পূর্ব / 34.00; 71.32
দেশপাকিস্তান
প্রতিষ্ঠিত১ জুলাই ১৯৭০
রাজধানীপেশাওয়ার
বৃহত্তম শহরপেশাওয়ার
সরকার
 • ধরনফেডারেল সরকারের অধীনে স্ব-শাসিত প্রদেশ
 • শাসকখাইবার পাখতুনখোয়ার সরকার
 • গভর্নরশাহ ফরমান[১]
 • মুখ্যমন্ত্রীমাহমুদ খান
 • প্রধান কার্যনির্বাহীড. কাজিম নিয়াজ[২]
 • আইনসভাপ্রাদেশিক পরিষদ
 • হাইকোর্টপেশাওয়ার হাইকোর্ট
আয়তন
 • মোট১,০১,৭৪১ বর্গকিমি (৩৯,২৮২ বর্গমাইল)
এলাকার ক্রম৪র্থ (পাকিস্তান)
জনসংখ্যা (২০১৭)[৩]
 • মোট৩,৫৫,২৫,০৪৭[ক]
 • ক্রম৩য় (পাকিস্তান)
সময় অঞ্চলপিএসটি (ইউটিসি+০৫:০০)
এলাকা কোড৯২৯১
আইএসও ৩১৬৬ কোডPK-KP
প্রধান ভাষা সমূহপশতু, হিন্দকো, সারাইকি, খোওয়ার, কোহিস্তানি, উর্দু
উল্লেখযোগ্য ক্রীড়া দল
জাতীয় পরিষদের আসন৬৫
HDI (২০১৯)০.৫২৭ বৃদ্ধি[৪]
নিম্নমুখী
প্রাদেশিক পরিষদের আসন১৪৫
বিভাগ
জেলা৩৫
তেহসিল১০৫
ইউনিয়ন কাউন্সিল৯৮৬
ওয়েবসাইটwww.kp.gov.pk

খাইবার পাখতুনখোয়া (পশতু: خیبر پښتونخوا), (KPK) (পূর্বনাম উত্তর-পশ্চিম সীমান্ত প্রদেশ)। এটি পাকিস্তানের চারটি প্রদেশের অন্যতম প্রদেশ। এর পশ্চিম ও দক্ষিণ দিকে কেন্দ্র শাসিত উপজাতীয় এলাকা, উত্তর-পূর্বে বাল্টিস্থান, পূর্বে আজাদ কাশ্মীর, দক্ষিণপূর্বে পাঞ্জাবরাজধানী ইসলামাবাদ, এবং উত্তর-পশ্চিমে আফগানিস্তান অবস্থিত। পাকিস্তানের বেলুচিস্তান প্রদেশ এর দক্ষিণ দিকে অবস্থিত। খাইবার পাখতুনখোয়া'র প্রাদেশিক রাজধানী এবং সবচেয়ে বড় শহর হলো পেশাওয়ার

ব্যুৎপত্তি[সম্পাদনা]

খাইবার পাখতুনখোয়ার অর্থ "পশতুনদের ভূখণ্ডের খাইবার[৫] যেখানে পাখতুনখোয়া শব্দের অর্থ "পশতুনদের দেশ",[৬] কিছু পণ্ডিঅদের মতে এটি পশতুন সংস্কৃতি ও সমাজকে বোঝায়।[৭]

যখন ব্রিটিশরা এটি একটি প্রদেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠা করেছিল, তখন তারা তাদের নাম দিয়েছিল "উত্তর পশ্চিম সীমান্ত প্রদেশ" (সংক্ষেপে এনডব্লিউএফপি) কারণ এটির আপেক্ষিক অবস্থান তাদের ভারতীয় সাম্রাজ্যের উত্তর পশ্চিমে ছিল।[৮]পাকিস্তান সৃষ্টির পর, পাকিস্তান এই নাম দিয়ে চলতে থাকে কিন্তু একটি পশতুন জাতীয়তাবাদী দল, আওয়ামী ন্যাশনাল পার্টি প্রদেশের নাম পরিবর্তন করে "পাখতুনখোয়া" করার দাবি করে।[৯]এই দাবির পিছনে তাদের যুক্তি ছিল যে পাঞ্জাবী, সিন্ধী এবং বেলুচ জনগোষ্ঠীর তাদের প্রদেশের নাম তাদের জাতিসত্তার নামে রাখা হয়েছে কিন্তু পশতুন জনগণের ক্ষেত্রে তা নয়। [১০]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

ভূগোল[সম্পাদনা]

সরকার ও রাজনীতি[সম্পাদনা]

A map of the districts of Khyber Pakhtunkhwa. Colors correspond to divisions.
খাইবার পাখতুনখোয়া জেলার একটি মানচিত্র তাদের নামের সাথে। রং বিভাগগুলির সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ।
রাজনৈতিক ঝোঁক এবং আইনসভা শাখা

প্রাদেশিক পরিষদ হল একটি এককবিশিষ্ট আইনসভা, যেখানে ১৪৫ জন সদস্য সংবিধানসম্মতভাবে পাঁচ বছরের মেয়াদে দায়িত্ব পালনের জন্য নির্বাচিত হন। ঐতিহাসিকভাবে, প্রদেশটি আওয়ামী ন্যাশনাল পার্টির (এএনপি) শক্ত ঘাঁটি হিসেবে বিবেচিত; একটি রাশিয়ানপন্থী, সাম্যবাদী, বামপন্থী এবং জাতীয়তাবাদী দল।[১১][১২]

জনসংখ্যা উপাত্ত[সম্পাদনা]

জনসংখ্যা ইতিহাস
আদমশুমারী জনসংখ্যা শহুরে

১৯৫১ ৪,৫৫৬,৫৪৫ ১১.০৭%
১৯৬১ ৫,৭৩০,৯৯১ ১৩.২৩%
১৯৭২ ৪,৩৮৮,৫৫১ ১৪.২৫%
১৯৮১ ১১,০৬১,৩২৮ ১৫.০৫%
১৯৯৮ ১৭,৭৪৩,৬৪৫ ১৬.৮৭%

ভাষা[সম্পাদনা]

  • উর্দু হলো জাতীয় ভাষা, এটি লিঙ্গুয়া ফ্রাঙ্কা হিসেবে ব্যবহৃত হয়।
  • পশতু, প্রধান ভাষা। প্রধানত মধ্যাঞ্চলীয় জেলা গুলোতে ব্যবহৃত হয়।
  • হিন্দকো,(একটি পাঞ্জাবী উপভাষা)।
  • সারাইকি (পাঞ্জাবী উপভাষা) প্রধানত দক্ষিণাঞ্চলীয় জেলাগুলোতে ব্যবহৃত হয়।
  • খোওয়ার, প্রধানত উত্তরের চিত্রাল জেলায় ব্যবহৃত হয়।
  • পাঞ্জাবী, প্রধান শহর গুলোর কিছু মানুষ এবং ক্যান্টনমেন্ট এলাকায় ব্যবহৃত হয়।
  • কহিস্তানি, প্রধানত কহিস্তান জেলা এবং সোয়াত কেলার উত্তর অর্ধে ব্যবহৃত হয়।
  • গজরী প্রদেশের উত্তরের অর্ধাংশে কিছু মানুষ এই ভাষায় কথা বলে।
  • দারী/হাজারাগী/ফারসী/তাজিক ভাষা, প্রাসিয়ান প্রভিতি ভাষা আফগান উদ্বাস্তুরা ব্যবহার করে।

আরো ভাষার মধ্যে কাশ্মীরি, শীনা, রোমানি, বুরুসাশকি, অয়াকহি, বাল্টি, বেলুচি, ব্রাহই, সিন্ধি এবং ইংরেজি (প্রশাসনিক এবং পর্যটনে) ব্যবহৃত হয়।

শহরগুলোতে শুধুমাত্র উর্দু এবং ইংরেজি লিখিত ভাষা হিসেবে পাওয়া যায়। ইংরেজি, পাকিস্তানের সরকারি ভাষা, প্রধানত সরকারি কাজে এবং সাহিত্যিক কারণে ব্যবহার করা হয়।

ধর্ম[সম্পাদনা]

খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশের অধিকাংশ অধিবাসী ইসলাম ধর্মের অনুসারী। এদের মধ্যে সংখ্যাগরিষ্ঠ সুন্নি মুসলিম, এছারাও শিয়া, ইসমাইলি এবং আহমাদিয়া মতবাদে বিশ্বাসী মুসলিম রয়েছেন।[১৩][১৪] এছাড়াও এখানে হিন্দু এবং শিখদের কিছু ছোট সম্প্রদায় বসবাস করে।

জেলা[সম্পাদনা]

খাইবার পাখতুনখোয়া সাতটি বিভাগে বিভক্ত - বানু, ডেরা ইসমাইল খান, হাজারা, কোহাট, মালাকান্দ, মর্দান এবং পেশোয়ার। প্রতিটি বিভাগ দুই থেকে নয়টি জেলার মধ্যে বিভক্ত এবং পুরো প্রদেশে ৩৫ টি জেলা রয়েছে:

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Iqbal Zafar Jhagra named new KP governor"DailyTimes। সংগ্রহের তারিখ ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ 
  2. "Dr Niaz made KP chief secretary"TheNation। সংগ্রহের তারিখ ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 
  3. "PROVISIONAL SUMMARY RESULTS OF 6TH POPULATION AND HOUSING CENSUS-2017"। www.pbscensus.gov.pk। ১৫ অক্টোবর ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩০ আগস্ট ২০১৭ 
  4. globaldatalab.org (ইংরেজি ভাষায়) https://globaldatalab.org/shdi/shdi/PAK/?levels=1%2B4&interpolation=1&extrapolation=0&nearest_real=0। সংগ্রহের তারিখ ১৮ আগস্ট ২০২১  |শিরোনাম= অনুপস্থিত বা খালি (সাহায্য)
  5. U.S. Department of State (২০১১)। Background Notes: South Asia, May, 2011। InfoStrategist.com। আইএসবিএন 978-1592431298 
  6. Marwat, Fazal-ur-Rahim Khan (১৯৯৭)। The evolution and growth of communism in Afghanistan, 1917–79: an appraisal। Royal Book Co.। পৃষ্ঠা XXXV। 
  7. Barnes, Robert Harrison; Gray, Andrew; Kingsbury, Benedict (১৯৯৫)। Indigenous peoples of Asia। Association for Asian Studies। পৃষ্ঠা 171। আইএসবিএন 0924304146 
  8. Morrison, Cameron (১৯০৯)। A New Geography of the Indian Empire and Ceylon। T.Nelson and Sons। পৃষ্ঠা 176 
  9. Ayers, Alyssa (২৩ জুলাই ২০০৯)। Speaking Like a State: Language and Nationalism in PakistanCambridge University Press। পৃষ্ঠা 61আইএসবিএন 978-0521519311 
  10. "NWFP in search of a name"pakhtunkhwa.com। ৩১ জানুয়ারি ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জানুয়ারি ২০১৬ 
  11. Sheikh, Yasir (৫ নভেম্বর ২০১২)। "Areas of political influence in Pakistan: right-wing vs left-wing"rugpundits.com। Karachi, Sindh: Rug Pandits, Yasir। ৩০ মে ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৯ মে ২০১৫ 
  12. Sheikh, Yasir (৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৩)। "Political spectrum of Khyber Pakhtunkhwa (KP) – Part I: ANP, PPP & MMA"rugpundits.com। Islamabad: Rug Pandits, Yasir Sheikh। ৩০ মে ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৯ মে ২০১৫ 
  13. Wajihaalikhan1 (২০১১-০২-১৫)। "Pushto Muzakarah with Khiyal Jaan – پشتو مذاكرہ Islam Ahmadiyya"। YouTube। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-১২-১২ 
  14. "Jihad of Holy Prophet (Pushto) Discussion about Jihad پشتو مذاكرہ ۔ جہاد"। YouTube। ২০১১-০১-১৫। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-১২-১২ 



উদ্ধৃতি ত্রুটি: "lower-alpha" নামক গ্রুপের জন্য <ref> ট্যাগ রয়েছে, কিন্তু এর জন্য কোন সঙ্গতিপূর্ণ <references group="lower-alpha"/> ট্যাগ পাওয়া যায়নি