ক্ষেত্রীয় গ্রামীণ ব্যাঙ্ক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

ক্ষেত্রীয় গ্রামীণ ব্যাঙ্ক (ইংরেজি: Regional Rural Bank; সংক্ষেপে: RRB) ভারতের একপ্রকারের ব্যাঙ্ক ব্যবস্থা। ১৯৭৬ সালের ক্ষেত্রীয় গ্রামীণ ব্যাঙ্ক আইনের অধীনে ক্ষেত্রীয় গ্রামীণ ব্যাঙ্ক বা আঞ্চলিক গ্রামীণ ব্যাঙ্ক স্থাপনের প্রক্রিয়া আরম্ভ হয়। একটি বা একাধিক প্রশাসনিক জেলা এলাকার, সামগ্রিকভাবে একধরনের অর্থনৈতিক বাতাবরণের একটি অঞ্চল নিয়ে এক-একটি ক্ষেত্রীয় গ্রামীণ ব্যাঙ্ক বা আঞ্চলিক গ্রামীণ ব্যাঙ্ক স্থাপন করা হয়। অঞ্চলটির অগ্রণী ব্যাঙ্ক (Lead Bank)-এর পোষকতায় স্থাপন করা ক্ষেত্রীয় গ্রামীণ ব্যাঙ্ক বা আঞ্চলিক গ্রামীণ ব্যাঙ্কগুলির মূলধন গঠনে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের ৫০%, রাজ্য সরকারের ১৫% এবং পোষক ব্যাঙ্কের ৩৫% অংশ থাকে।[১] প্রাথমিকভাবে প্রশাসনিক দিক পোষক ব্যাঙ্কটিই পরিচালনা করত, যদিও পরে এটি স্বায়ত্বশাসিত হয়।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৯৬৯ সালে ভারতে ব্যাঙ্কশিল্প রাষ্ট্রীয়করণ হয়। আগে সকল ব্যাঙ্ক বেসরকারী তথা ব্যক্তিগত খণ্ডের ছিল। ব্যবসায়িক দিকের অগ্রাধিকারের দৃষ্টিভঙ্গিও লাভকেন্দ্রিক ছিল। দেশের সমগ্র অর্থনীতি গ্রামীণ তথা কৃষিভিত্তিক হওয়ার সত্ত্বেও, গ্রামীণ অর্থনীতির ক্ষেত্রটি অসংগঠিত হওয়ার জন্য বিপদ সংকুল তথা অনিশ্চিত। ফলত সদ্য রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কসমূহ গ্রাম্যক্ষেত্রে, ফলপ্রসূভাবে যেতে মানসিকভাবে বেশি আগ্রহী ছিল না। এদিকে তখন সরকারের হাতে ব্যাপক গ্রামীণ উন্নয়নের দায়িত্ব। এমন পরিপ্রেক্ষিতে কেবল গ্রামকেই কার্যক্ষেত্র হিসাবে নিয়ে ১৯৭৬ সালের ক্ষেত্রীয় গ্রামীণ ব্যাঙ্ক আইনের অধীনে ক্ষেত্রীয় গ্রামীণ ব্যাঙ্ক বা আঞ্চলিক গ্রামীণ ব্যাঙ্ক স্থাপনের প্রক্রিয়া আরম্ভ হয়।

ভারতের ক্ষেত্রীয় গ্রামীণ ব্যাঙ্কের তালিকা[সম্পাদনা]

[২]

  1. এলাহাবাদ ইউপি গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  2. অন্ধ্রপ্রদেশ গ্রামীণ বিকাশ ব্যাঙ্ক,
  3. অন্ধ্র প্রগতি গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  4. অরুণাচল প্রদেশ গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  5. অসম গ্রামীণ বিকাশ ব্যাঙ্ক,
  6. বঙ্গীয় গ্রামীণ বিকাশ ব্যাঙ্ক,
  7. বরোদা গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  8. বরোদা রাজস্থান ক্ষেত্রীয় গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  9. বরোদা ইউপি গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  10. বিহার গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  11. সেন্ট্রাল মধ্যপ্রদেশ গ্রামীণ ব্যাঙ্ক
  12. চৈতন্য গোদাবরী গ্রামীণ ব্যাঙ্ক
  13. ছত্তিসগড় রাজ্য গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  14. দেনা গুজরাট গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  15. এল্লাকি দেহাতি ব্যাঙ্ক,
  16. গ্রামীণ ব্যাঙ্ক অব আর্যাবর্ত,
  17. গুজরাট রাজ্য কৃষি ও গ্রামীণ বিকাশ ব্যাঙ্ক লিমিটেড.,
  18. হিমাচল প্রদেশ গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  19. জম্মু ও কাশ্মীর গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  20. ঝাড়খণ্ড গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  21. কর্ণাটক বিকাশ গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  22. কাশী গোমতী সম্মুত গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  23. কাবেরী গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  24. কেরল গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  25. লাংপি দেহাংগি ক্ষেত্রীয় ব্যাঙ্ক,
  26. মধ্য বিহার গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  27. মধ্যাঞ্চল গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  28. মহারাষ্ট্র গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  29. মালওয়া গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  30. মণিপুর ক্ষেত্রীয় ব্যাঙ্ক,
  31. রাজস্থান মরুধারা গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  32. মেঘালয় ক্ষেত্রীয় ব্যাঙ্ক,
  33. মিজোরাম ক্ষেত্রীয় ব্যাঙ্ক,
  34. নাগাল্যান্ড ক্ষেত্রীয় ব্যাঙ্ক,
  35. নর্মদা ঝবুয়া গ্রামীণ ব্যাঙ্ক
  36. ওড়িশা গ্রাম্য ব্যাঙ্ক,
  37. পল্লবন গ্রাম্য ব্যাঙ্ক,
  38. পাণ্ডোয়ান গ্রাম্য ব্যাঙ্ক,
  39. পশ্চিমবঙ্গ গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  40. প্রগতি কৃষ্ণ গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  41. প্রথমা ব্যাঙ্ক,
  42. পুদুভাই ভারতিয়ার গ্রাম ব্যাঙ্ক,
  43. পাঞ্জাব গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  44. পূর্বাঞ্চল ব্যাঙ্ক,
  45. সপ্তগিরি গ্রামীণ ব্যাঙ্ক
  46. সর্ব হরিয়ানা গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  47. সর্ব ইউপি গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  48. সৌরাষ্ট্র গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  49. সুতলেজ গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  50. তেলেঙ্গানা গ্রামীণ ব্যাঙ্ক (আগেকার নাম ডেকান গ্রামীণ ব্যাঙ্ক),
  51. ত্রিপুরা গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  52. উৎকল গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  53. উত্তর বিহার গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  54. উত্তরাখণ্ড গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  55. উত্তরবঙ্গ ক্ষেত্রীয় গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  56. বনাঞ্চল গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,
  57. বিদর্ভ কোঙ্কণ গ্রামীণ ব্যাঙ্ক,

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. National Bank for Rural and Agricultural Development (NABARD). Financial Report, Chapter 5 – Regional Rural Banks ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২৩ মে ২০১২ তারিখে
  2. "About Us"। ২০০৫-১০-৩১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা।