ক্রেয়ন শিন-চ্যান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ক্রেয়ন শিন-চ্যান
ক্র্যয়ন শিন-চ্যান সংখ্যা ১.jpg
ক্রেয়ন শিন-চ্যান, ৬ষ্ট সংখ্যাার প্রচ্ছদ
クレヨンしんちゃん
ধরনব্ল্যাক কমেডি, এক খন্ড জীবন, চরকিবাজ
মাঙ্গা
লেখকইওশিতো উসুই
প্রকাশকফুতাবাসা
ইংরেজি প্রকাশক
ComicsOne (former)
CMX Manga (former)
One Peace Books
ম্যাগাজিনWeekly Manga Action (1990–2000)
Manga Town (2000–2010)
জনতাত্ত্বিকসেইনেন মাঙ্গা
আসল চলিতআগস্ট ১৯৯০৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১০
খণ্ড৫০ (খণ্ডের তালিকা)
অ্যানিমে টেলিভিশন ধারাবাহিক
পরিচালকMitsuru Hongo (1992–1996)
Keiichi Hara (1996–2004)
Yuji Muto (2004–present)
স্টুডিওShin-Ei Animation
মূল নেটওয়ার্কTV Asahi (1992–present)
ইংরেজি নেটওয়ার্ক
KIKU-TV (1992–2001)
Adult Swim (2006–2009)
আসল চালিত ১৩ এপ্রিল, ১৯৯২ – বর্তমান
পর্ব১০০০+ (পর্বের তালিকা)
মাঙ্গা
ক্রেয়ন শিন-চ্যান
লেখকUY Team
প্রকাশকফুতাবাসা
ম্যাগাজিনমাঙ্গা টাওন (Manga Town)
আসল চলিতআগস্ট ২০১০ – বর্তমান
খণ্ড(খণ্ডের তালিকা)
প্রবেশদ্বার আইকন আনিমে এবং মাঙ্গা প্রবেশদ্বার

ক্রেয়ন শিন-চ্যান (জাপানি: クレヨンしんちゃん, হেপবার্ন: Kureyon Shin-chan) (কিছু দেশে শিন-চ্যান নামেও পরিচিত), ইওশিতো উসুই দ্বারা লিখিত এবং চিত্রিত একটি জাপানি মাঙ্গা কমিক। শিন-চ্যান (শিনোসুকে নোহারা) ৫ বছরের ছেলে যে জাপানের একটি শহরে বাস করে। সে প্রচুর দুষ্টুমি করে। তার দুষ্টুমির জন্য এটি বেশি জনপ্রিয়। বেশিরভাগ সময় দেখা যায় তার বাবা, মা, বন্ধু ও শিক্ষকেরা বেশি বিরক্ত থাকে তার উপর। এটি প্রথম ১৯৯২ সালে টিভি আসাহি চ্যানেল এ প্রচারিত হয় এবং এখনো চলছে। ভারতে এটি হাঙ্গামা টিভিতে প্রচারিত হয়।

কেউ কেউ বিশ্বাস করে যে শিন-চ্যান একটি সড়ক দুর্ঘটনাতে মারা যায়। এরপর তার মা তার ছবি একে কার্টুন তৈরি করে। কিন্তু এটি সত্য নয়। এটি বিশ্বের নানা ভাষায় ভাষান্তর করা হয়েছে যেমন: ডেনীয়, ইংরেজি,বাংলা, ওলন্দাজ, জার্মান, গ্রিক, ফরাসি, ইতালীয়, পর্তুগিজ, স্পেনীয়, গালিসীয়, কাতালান, বাস্ক, পোলীয়, চীনা, কোরীয়, হিন্দি, হিব্রু, তেলুগু, তামিল, তাগালোগ, ইন্দোনেশীয়, মালয়, খমের, থাই ইত্যাদি।

প্রাথমিক তথ্য[সম্পাদনা]

ক্রেয়ন শিন-চ্যান প্রথমে জাপানের সাপ্তাহিক ম্যাগাজিনে প্রকাশিত হয়। যেটা উইকলি মাঙ্গা অ্যাকশন নামে পরিচিত। আর এটি প্রকাশ করে ফুতাবাসা। ক্রেয়ন শিন-চ্যান আসহিতে ১৯৯২ সালের ১৩ এপ্রিল সম্প্রচার শুরু হয় এবং এটি এখন বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয়। ভারতে হাঙ্গামা টিভি ২০০৬ সালের ১৯ জুলাই থেকে ক্রেয়ন শিন-চ্যান সম্প্রচার করে আসছে। উল্লেখ্য, ভারতসহ দক্ষিণ এশিয়ায় ক্রেয়ন শিন-চ্যান শুধু "শিনচ্যান" (Shinchan) নামেই সমাধিক পরিচিত।

কাহিনীসংক্ষেপ[সম্পাদনা]

শিন-চ্যান (শিনজুকে নামেও পরিচিত) ৫ বছরের একটি ছেলে। সে কাসুকাবে নামক জাপানের একটি শহরে বাস করে। সে তার বাবা হিরোশি নোহারা (সংক্ষেপে হ্যারি), মা মিসায়ে নোহারা (সংক্ষেপে মিৎসি) এবং ছোট বোন হিমাওয়ারি (পুরাতন পর্বসমূহে অনুপস্থিত) এর সাথে থাকে। তার একটি পোষা কুকুর রয়েছে যার নাম শিরো। শিনচ্যান প্রচুর দুষ্টুমি করে। তাই তার উপর সবাই বিরক্ত থাকে। শুধু তার দাদা ব্যতীত। তার দাদা শিনচ্যানের মতোই, দুজনেই দুষ্টুমি করে। তারা দুজন একে অপরকে ভালোবাসে। শিনচ্যানের নানা বেশ রক্ষণশীল ও রাগি। তবে তিনি শিনচ্যান ও হিমাওয়ারিকে খুব ভালোবাসেন। বিপরীত চরিত্রের হওয়ায় তাদের দুজনের মাঝে সবসময় ঝগড়া লেগেই থাকে। নতুন পর্বসমূহে মুসায়ে নামে শিনচ্যানের এক খালাও রয়েছে, যে একজন সফল ফটোগ্রাফার হওয়ার স্বপ্ন দেখে কিন্তু আলসেমী ও উদ্যোগহীনতার কারণে সে আর সফল হতে পারে না।

শিনচ্যান মূলতো একটি ভীষণ দুষ্ট ছেলে। সারাদিন দুষ্টমি ও বদমাইশি করে বেড়ায়। এজন্য সবাই তাকে শুধু বকা দেয় ও মারে। শিনচ্যানের প্রিয় কার্টুন একশন কামেন। এছাড়াও শিনচ্যানের কোয়ান্টাম রোবো ও বুরি-বুরি সাইমনও পছন্দ। শিনচ্যান সবসময় একশন কামেনের সাথে দেখা করার স্বপ্ন দেখে।

শিনচ্যানের ৪জন বন্ধু রয়েছে। তারা হলো কাজামা, নেনি, মাসাউ এবং সুজুকি (নতুন পর্বসমূহে নাম বো)। নতুন পর্বসমূহে আই বা আইচ্যান নামেও শিনচ্যানের এর এক বন্ধু রয়েছে। এরা সবাই শিনচ্যানের সাথে ফুতাবা কিন্ডারগার্টেন নামে একটি প্লে-স্কুলে পড়ে। শিনচ্যানের স্কুলে চার জন শিক্ষক-শিক্ষিকা রয়েছে। প্রিন্সিপাল স্যার (তাকে দেখতে অনেকটা চোর-ডাকাতের মতো, তাই তাকে দেখে সবাই ভয় পায়), ভাইস-প্রিন্সিপাল ম্যাম, ইওশিনাগা ম্যাম (শিনচ্যানের শ্রেণি শিক্ষক) ও মাৎসুজাকা ম্যাম (শিনচ্যানের উপরের শ্রেণির শ্রেণি শিক্ষক; নিজেকে খুব সুন্দর মনে করে ও শিনচ্যান ইচ্ছা করে তাকে ক্ষেপালে তিনি রেগে যান)। এছাড়াও নতুন পর্বসমূহে আজিও ম্যাম নামে আরেকজন শিক্ষক র‍য়েছে। তার বৈশিষ্ট্য হলো তিনি চশমা ব্যতীত দেখতে পান না এবং চশমা খুললেই ভীষণ রেগে গিয়ে তুলকালাম কাণ্ড করে বসেন।

শিনচ্যানের বন্ধু কাজামার বয়স ৫ বছর। সে নিজেকে খুব বিদ্বান মনে করে। শিনচ্যান কাজামাকে নিজের বেস্ট ফ্রেন্ড মনে করে। কাজামা স্কুলের বাইরেও ইংরেজি শেখে। শিনচ্যান কাজামাকে সব সময় বিরক্ত করে। এজন্য কাজামা সর্বদাই রেগে থাকে। নতুন পর্বসমূহে সে মৈতি ও ম্যাজিকাল মারিয়া নামে দুটি মেয়েদের কার্টুন দেখে। সবাই জেনে গেলে লজ্জা দিবে বলে সে এই বিষয়টি গোপন করে রাখে।

নেনিও শিনচ্যানের এক বন্ধু। তার বয়স ৫ বছর। সে সবসময় রোমান্টিক সিনেমা দেখে এবং ঘর-ঘর, অফিস-অফিস অথবা রেস্টুরেন্ট-রেস্টুরেন্ট খেলে। নেনির কোনো বন্ধুই তার সাথে এসব খেলা খেলতে চায় না। নেনি সবাইকে ভয় ও রাগ দেখিয়ে জোর করে খেলায়। খরগোশের পুতুল নেনির প্রিয় খেলনা।

মাসাউয়ের বয়স ৫ বছর। সে সব সময় ভয় পায়। একটু ভয় পেলেই কেঁদে ফেলে। আর বেশি ভয় পেলে সোজা অজ্ঞান হয়ে যায়। সহজ সরল বলে নেনি সবসময় মাসাউকে ভয় দেখিয়ে জোর করে খেলায়। মাসাউ সবসময় আইচ্যানের সাথে বন্ধুত্ব করতে চায়।

সুজুকি বা বো শিনচ্যানের আরেক বন্ধু। সুজুকির বয়স ৫ বছর। সুজুকি খুব মেধাবী। সুজুকির আচার ব্যবহার বেশ অদ্ভুত। সে সব সময় চুপচাপ থাকে। সুজুকির শখ হলো পাথর সংগ্রহ করা। সে সব অদ্ভুত পাথর সংগ্রহ করে। সুজুকির নাকে সর্বদাই সর্দি থাকে।

এছাড়াও নতুন পর্বসমূহে আইচ্যান নামে শিনচ্যানের এক বন্ধু থাকে। ওর বয়স ৫ বছর। আইচ্যান বেশ সম্ভ্রান্ত পরিবারের মেয়ে। তার বাবা বিশাল ব্যবসায়ী ও প্রাক্তন জমিদার। আইচ্যানের সাথে সর্বদাই এক বডিগার্ড (দেহরক্ষী) থাকে। আইচ্যান শিনচ্যানকে পছন্দ করে এবং শিনচ্যানের সাথে বন্ধুত্ব করতে চায়। কিন্তু শিনচ্যানের আইচ্যানের প্রতি কোনো আগ্রহ নেই।

চরিত্র[সম্পাদনা]

প্রধান চরিত্রসমূহ

অন্যান্য চরিত্রসমূহ

মাধ্যম[সম্পাদনা]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

আরো পড়ুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]