ক্রীড়া সাংবাদিকতা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

ক্রীড়া সাংবাদিকতা হলো সাংবাদিকতার এমন ধারা, যারা ক্রীড়া এবং প্রতিযোগিতা সম্পর্কিত বিষয়গুলির উপর প্রতিবেদন করে। ১৮০০ এর দশকের গোড়ার দিকে ক্রীড়া সাংবাদিকতা শুরু হয় এবং এটি খবরের কাগজের নিবেদিত সংস্থাগুলির সাথে সংবাদ ব্যবসায়ের একটি অবিচ্ছেদ্য অংশে রূপান্তরিত হয়। মধ্যবিত্তনিম্নবিত্ত শ্রেণীর মধ্যে খেলাধুলার বর্ধমান জনপ্রিয়তার কারণে প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানগুলো খেলাধুলার সামগ্রীর আরও বেশি প্রচার শুরু করে, খেলাধুলার প্রতি মানুষের এই আগ্ৰহের ফলে কেবল খেলাধুলার সংবাদ প্রচারের জন্য ইএসপিএন এবং স্পোর্টস ইলাস্ট্রেটেডের মতো ক্রীড়া প্রকাশনা সংস্থা তৈরি হয়। ক্রীড়া সাংবাদিকতার বিভিন্ন রূপ রয়েছে, যা খেলা থেকে শুরু করে খেলা থেকে গুরুত্বপূর্ণ পরিবর্তনগুলো বিশ্লেষণ এবং খেলায় অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা পর্যন্ত চলে। প্রযুক্তিইন্টারনেটের যুগে ক্রীড়া সাংবাদিকতার জায়গাগুলি ব্যাপকভাবে পরিবর্তিত হয়েছে কারণ এটি এখন মুদ্রণ সাংবাদিকতার বিস্তৃত বিভাগের সাথে একই সমস্যার সাথে লড়াই করে চলেছে, এরা এখন সাবস্ক্রিপশনের ব্যয় কাটাতে সক্ষম হচ্ছে না। বর্তমান সহস্রাব্দে ইন্টারনেট ব্লগিং এবং টুইটের নতুন রূপগুলি ক্রীড়া সাংবাদিকতাকে শেষ সীমানা পর্যন্ত ঠেলে দিয়েছে।

প্রথম ইতিহাস[সম্পাদনা]

আধুনিক ক্রীড়া সাংবাদিকতা ১৮০০ এর দশকের গোড়ার দিকে খবরের কাগজে খেলার সংবাদ প্রকাশিত হওয়া শুরু করার সাথে শুরু হয়। শুরুতে এটি বিক্ষিপ্তভাবে ঘোড়দৌড় এবং বক্সিং খেলার সংবাদ প্রচার করতো। আমেরিকা ও ইংল্যান্ডের মধ্যে বক্সিং লড়াই সামাজিকভাবে অভিজাতদের কাছ থেকে প্রচুর আগ্রহ অর্জন করেছিল, যার কারণে ক্রীড়া সাংবাদিকতা শুরুতেই ভালো সাফল্য পায়। ১৮২০ এবং ৩০ এর দশকে, সংবাদপত্রগুলির প্রাথমিক লক্ষ্য ছিলেন সামাজিক অভিজাতরা, কারণ তখন সংবাদপত্র সাধারণ মানুষের পক্ষে খুব ব্যয়বহুল ছিল।[১]

বিংশ শতাব্দীতে পৌঁছে, বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ পরিবর্তন ঘটে যা মূলধারার ক্রীড়া সাংবাদিকতাকে বর্ধনশীলতার দিকে পরিচালিত করে। প্রথমটি ছিল পেনি প্রেসের আবির্ভাব যা খবরের কাগজ উৎপাদন সস্তা এবং আরও ট্যাবলয়েড শৈলী করার সুযোগ দেয়। সংবাদপত্রগুলি এইসময় শুধু প্রচারের উপর নির্ভর না করে তাদের উৎপাদন ব্যয়ের অর্থ যোগানের জন্য বিজ্ঞাপন ব্যবহার শুরু করে। এই দুটি কারণে সামাজিক অভিজাত উচ্চবিত্ত থেকে শুরু করে নিম্ন-মধ্যবিত্ত শ্রেণির জনসংখ্যাও সংবাদপত্রের লক্ষ্যে পরিণত হয়।

একই সাথে, শিল্প বিপ্লব দ্রুত প্রসারিত হয়ে মধ্যবিত্ত তৈরি করে যারা দেশের দিক থেকে নগর উন্নতিতে সাফল্য অর্জনের দিকে এগিয়ে চলেছিল। টার্গেট ডেমোগ্রাফিকের পরিবর্তনের অর্থ হ'ল সংবাদপত্রের প্রকাশকরা এমন সামগ্রীর সন্ধান করছেন যা জনসাধারণকে আবেদন করে। খেলাধুলার বিষয়টি এইসময় সামনে আসে এবং এই উন্নয়নগুলি বেসবলের ক্রমবর্ধমান জনপ্রিয়তার সাথে মিলে ক্রীড়া সাংবাদিকতা এমন একটি বিষয় হয়ে উঠেছিল যা দ্রুত আমেরিকানদের শখের বিষয়বস্তু হয়ে উঠে।[২]

বিশ এর শতক[সম্পাদনা]

নিউইয়র্ক হেরাল্ড হ'ল ধারাবাহিক ক্রীড়া সংবাদ প্রচারের প্রথম পত্রিকা। ১৮৮৩ সালে শুরু হওয়া নিউইয়র্ক ওয়ার্ল্ড একটি পূর্ণ সময়ের ক্রীড়া বিভাগের প্রথম পত্রিকা। ১৮৮০-১৯২০ এর পরবর্তী সময়কালে প্রকাশনাগুলিতে ক্রীড়া কভারেজের সংখ্যা ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পায়। একটি সমীক্ষায় দেখা গেছে যে ১৮৮০ সালে খবরের কাগজে কেবল ৪.৪ শতাংশ জায়গা খেলাধুলার জন্য ছিল। ১৯২০ এর দশকের মধ্যে, এই অনুপাতটি ২০ শতাংশে বেড়েছে। এই সময়ে, খবরের কাগজগুলি মূলত প্লে কভারেজ এবং খেলার ইভেন্টগুলির খেলাগুলো পুনরায় প্রচার করার উপর দৃষ্টি নিবদ্ধ করে। স্থানীয় প্রকাশনাগুলি এমন বীট সাংবাদিকদের নিয়োগ দেওয়া শুরু করেছিল, যারা দলের সাথে সম্পর্কিত সমস্ত উন্নতি অনুসরণ করার দায়িত্ব পেয়েছিল, এর মধ্যে দলের সাথে ভ্রমণ এবং খেলোয়াড়দের সাক্ষাতকার অন্তর্ভুক্ত ছিল। দলগুলোর খেলায় নোট রেকর্ড করতে এবং রেকর্ড করার জন্য স্টেডিয়ামগুলিতে প্রেস বক্স নামে বিভাগগুলিও এইসময় তৈরি হতে শুরু করে।[৩]

প্রযুক্তি যেমন রেডিও, টেলিভিশন এবং ইন্টারনেটের মতো নতুন প্রযুক্তি চালু হওয়ার কারণে, খেলাধুলার কভারেজের কেন্দ্রবিন্দুটি খেলা থেকে পরিসংখ্যানগত বিশ্লেষণ এবং খেলোয়াড়দের পটভূমির অংশগুলিতে স্থানান্তরিত হয়। এটি সাধারণ জনগণের মধ্যে খেলাধুলার আগ্ৰহ ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি ঘটায়। ফুটবল, বাস্কেটবল এবং হকির ক্রমবর্ধমান জনপ্রিয়তার ফলে বলতে আরও কন্টেন্ট প্রকাশ করা এবং আরও আগ্রহী পাঠকদের কাছে পৌঁছানো গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠে। এর ফলে ১৯৫৪ সালে প্রথম প্রকাশিত স্পোর্টস ইলাস্ট্রেটেডের মতো জার্নাল তৈরি হয়েছিল, যা পুরোপুরি খেলাধুলায় ফোকাস দেওয়ার প্রথম প্রকাশনা ছিল। স্পোর্টস ইলাস্ট্রেটেড হেনরি লুক্রের মস্তিষ্কপ্রেম ছিল যিনি অনুভব করেছিলেন যে তৎকালীন প্রতিষ্ঠিত প্রকাশকরা খেলাধুলার জন্য জনসাধারণের বিশাল ক্ষুধায় সুবিধা নিচ্ছেন না। সাপ্তাহিক ইস্যুগুলির সাথে, স্পোর্টস ইলাস্ট্রেটেড আরও ক্লাসিক সাংবাদিকতার টুকরো তৈরি করতে সক্ষম হয়েছিল যার কারণে সাংবাদিকরা গবেষণা, খেলোয়াড় এবং কোচের সাথে দীর্ঘতর সাক্ষাতকারে বসার জন্য আরও সুযোগ পান।[৪]

আধুনিক যুগ[সম্পাদনা]

নতুন সহস্রাব্দ শুরুর পর থেকে প্রিন্ট সংবাদপত্রগুলির প্রচলন এবং বিজ্ঞাপনের সংখ্যা দ্রুত হ্রাস পাচ্ছে। এর ফলে পুরো শিল্প জুড়ে ব্যয় কাটা ও ছাঁটাই হয়েছে। ১৯৮০ সালে সাংবাদিকের সংখ্যার তুলনায় এখন কার্যত ২৯% কম সাংবাদিক রয়েছেন। স্পোর্টস ইলাস্ট্রেটেড এবং ইএসপিএন এর মতো প্রতিষ্ঠিত প্রকাশনাগুলিকে বিষয়বস্তু হ্রাস করতে, দাম বাড়ানো এবং প্রকাশনা সংখ্যা হ্রাস করতে বাধ্য হয়েছে বলে এই উন্নয়নগুলি ক্রীড়া সাংবাদিকতায় উল্লেখযোগ্যভাবে প্রভাবিত করেছে।[৫] প্রিন্টে ক্রীড়া সাংবাদিকতার পতন ইন্টারনেট এবং ডিজিটাল ক্রীড়া সাংবাদিকতার উত্থানের সাথে যুক্ত হতে, ডিজিটাল স্পোর্টস জার্নালিজম ১৯৯০ সালে ইএসপিএন দিয়ে প্রথম ওয়েবসাইট তৈরির মধ্য দিয়ে শুরু হয়। প্রথমদিকে ডিজিটাল স্পোর্টস জার্নালিজম বিস্তৃত বিষয়গুলিকে সুযোগের আওতায় নিয়েছিল, তবে সময়ের সাথে সাথে ইন্টারনেট আরও ব্যাপক আকার ধারণ করার সাথে সাথে ব্লগাররা এর অবস্থান এবং দল নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটগুলি বাজারটি দখল করতে শুরু করেছে।[৬] এই ছোট ওয়েবসাইটগুলির বেশিরভাগই সাবস্ক্রিপশন চার্জ নেয়নি কারণ এগুলো বিজ্ঞাপনে অর্থায়িত হয়েছিল। ভোক্তার কাছে এই কম ব্যয়ের পাশাপাশি বিভিন্ন নির্দিষ্ট কিছু নির্দিষ্ট সামগ্রীতে অ্যাক্সেস বাড়ানো প্রিন্ট থেকে ডিজিটাল এর দিকে সরে যেতে পরিচালিত করে। যাইহোক, ডিজিটাল স্পেসে এই দেখা বৃদ্ধি যা বিজ্ঞাপনের আয়ের পরিমাণ বাড়িয়েছে তা মুদ্রণ সাংবাদিকতার ক্ষতির পরিমাণের সাথে সামঞ্জস্য করে নি।[৭] এই সাইটগুলি অনলাইন বিজ্ঞাপনদাতাদের দ্বারা অর্থায়ন করা হওয়ায় ক্লিক গণনার গুরুত্ব বেড়েছে। এইজন্য এরা বেশি ক্লিক তৈরি করার জন্য বিতর্কিত মতামত সরবরাহ করে এবং এটি এখন সাংবাদিকতার একটি অংশ হয়ে গিয়েছে। ক্রীড়াবিদরা নিয়মিতভাবে অন্যান্য সাংবাদিকদের চেয়ে বেশি সময়ের চাপের মুখোমুখি হন কারণ ক্রীড়া ইভেন্টগুলি নির্দিষ্ট দিনে শেষ হতে থাকে এবং অনেক সংস্থার অবশ্যই নির্ধারিত সময়সীমার কাছাকাছি চলে আসে। তবুও তারা সংবাদ সাংবাদিকদের মতো সরঞ্জামগুলি ব্যবহার করে এবং একই পেশাদার এবং নৈতিক মানকে সমর্থন করে। ক্রীড়া সাংবাদিকদের অব্যশই কোন দলের পক্ষে পক্ষপাতিত্ব দেখানো যাবে না।

ক্রীড়া সাংবাদিকতার ভবিষ্যৎ[সম্পাদনা]

গত দশকে খেলাধুলার মধ্যে একটি বড় পরিবর্তন ঘটেছে কারণ আরও ক্রীড়া দলগুলো বিশ্লেষণগুলি ব্যবহার করে চলেছে। একটি খেলার কৌশলগত সিদ্ধান্ত নিতে বিশ্লেষণগুলো ব্যবহারের বর্ধিত সুবিধা সম্পর্কে অনেক নিবন্ধ প্রকাশিত হওয়ায় এখানে স্থানান্তরিত হওয়ার এটি একটি বড় কারণ(ক্রীড়া সাংবাদিকতায়)। যেহেতু প্রতিটি খেলায় প্রতিটি উদাহরণের তথ্য সংগ্রহ করা হয়, স্পোর্টসের ডেটা বিশ্লেষণ বৃদ্ধি পেয়েছে। এই দলগুলি পরিচালনা করছে এমন বিশ্লেষণের নিবন্ধ প্রকাশের জন্য স্পোর্টস পাবলিকেশনগুলি এখন পরিসংখ্যান এবং গণিতে বিস্তৃত পটভূমির লোকদের নিযুক্ত করছে। খেলোয়াড়ের পারফরম্যান্সের গুণমান অধ্যয়নের জন্য নতুন মেট্রিক তৈরি করা হয়েছে। মেট্রিকগুলি খেলোয়াড় এবং দলগুলির র‌্যাঙ্কিং সংকলন করতেও ব্যবহৃত হয়। ফাইভ থার্টিইটির মতো ব্লগ সাইটগুলি ফুলটাইম স্পোর্টস অ্যানালিটিক সাইট হিসাবে অঙ্কিত হতে শুরু করেছিল যারা উপলব্ধ ডেটা নিয়েছিল এবং ক্রীড়া সম্পর্কিত বিশ্লেষণী ভারী নিবন্ধগুলি তৈরি করেছিল। ইএসপিএন তাদের অনুষ্ঠানগুলিতে ‘স্পোর্টস সায়েন্স’ নামে একটি বিভাগ প্রয়োগ করেছে যেখানে উন্নত বিশ্লেষণগুলি ক্ষেত্রের পারফরম্যান্সকে কীভাবে প্রভাবিত করে তা পরীক্ষা করতে প্রতিটি খেলার তারকারা উপস্থিত হন। খেলাধুলায় বিশ্লেষণ ব্যবহারের কারণে অনেকেরই প্রচুর পুশব্যাক রয়েছে। অনেক প্রতিষ্ঠিত কোচ দ্রুত বিশ্লেষণকে গুরুত্ব দেন এবং এক্ষেত্রে পেশাদার ক্রীড়া সাংবাদিক নিয়োগের অনেক উদাহরণ রয়েছে।[৮][৯]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Motiz, Brian (ডিসেম্বর ২০১৪)। "Rooting for the story: Institutional sports journalism in the digital age"Syracuse University 
  2. Schultz, Brian (সেপ্টেম্বর ২০০৭)। "Sports journalists who blog cling to traditional values"। Newspaper Research Journal28 (4): 62–76। ডিওআই:10.1177/073953290702800406 – SAGE-এর মাধ্যমে। 
  3. Schlesinger, Arthur (১৯৩৩)। "The rise of the city"। History of America Lifeওসিএলসি 476454 
  4. "Sports Illustrated, The Magazine That Popularized Sports"historylessons.net। ২০২০-০৮-০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১১-১১ 
  5. McNay, John (২০০৮)। "Breaking the Copper Collar: Press Freedom, Professionalization and the History of Montana Journalism"। American Journalism25: 99–123। ডিওআই:10.1080/08821127.2008.10678094 
  6. Miller, James (২০১১)। Those Guys Have all the Fun। Goodreads। 
  7. Ashraf, Syed Irfan (সেপ্টেম্বর ২০১৩)। "Doing the Censors' Work for Them"। British Journalism Review24 (3): 12–15। আইএসএসএন 0956-4748ডিওআই:10.1177/0956474813504871c 
  8. "Global Club Soccer Rankings"FiveThirtyEight (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৭-০৮-২২। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১১-১৩ 
  9. "The Future of Sports Journalism in a Technologically Driven World"www.sporttechie.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-১১-১৩