ক্যামেরন কাফি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ক্যামেরন কাফি
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামক্যামেরন ইউস্টেস কাফি
জন্ম (1970-02-08) ৮ ফেব্রুয়ারি ১৯৭০ (বয়স ৫০)
সাউথ রিভার্স, সেন্ট ভিনসেন্ট ও গ্রেনাডাইন্স
উচ্চতা৬ ফুট ৭ ইঞ্চি (২.০১ মিটার)
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি ফাস্ট
ভূমিকাবোলার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ২০৬)
১৮ নভেম্বর ১৯৯৪ বনাম ভারত
শেষ টেস্ট৩০ অক্টোবর ২০০২ বনাম ভারত
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ৬৭)
১৭ অক্টোবর ১৯৯৪ বনাম ভারত
শেষ ওডিআই৩ ডিসেম্বর ২০০২ বনাম বাংলাদেশ
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯৯০ - ২০০৪উইন্ডওয়ার্ড আইল্যান্ডস
১৯৯৪সারে
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ১৫ ৪১ ৮৬ ৯৮
রানের সংখ্যা ৫৮ ৬২ ৩৭৫ ১৮২
ব্যাটিং গড় ৪.১৪ ৪.৪২ ৫.০৬ ৭.৯১
১০০/৫০ ০/০ ০/০ ০/০ ০/০
সর্বোচ্চ রান ১৫ ১৭* ৩৭ ২৪*
বল করেছে ৩,৩৬৬ ২,১৫৩ ১৪,৯১০ ৫,০৪৫
উইকেট ৪৩ ৪১ ২৫২ ১০৫
বোলিং গড় ৩৩.৮৩ ৩৫.০২ ২৬.০০ ৩০.২০
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং ৪/৮২ ৪/২৪ ৭/৮০ ৪/২৪
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৫/– ৫/– ৩০/– ২১/–
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ৯ মার্চ ২০২০

ক্যামেরন ইউস্টেস কাফি (ইংরেজি: Cameron Cuffy; জন্ম: ৮ ফেব্রুয়ারি, ১৯৭০) সেন্ট ভিনসেন্ট ও গ্রেনাডাইন্সের সাউথ রিভার্স এলাকায় জন্মগ্রহণকারী সাবেক ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৯৪ থেকে ২০০২ সময়কালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান ক্রিকেটে উইন্ডওয়ার্ড আইল্যান্ডস ও প্রথম-শ্রেণীর ইংরেজ কাউন্টি ক্রিকেটে সারে দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি ফাস্ট বোলার হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, নিচেরসারিতে ডানহাতে ব্যাটিং করতেন ক্যামেরন কাফি

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

১৯৯০-৯১ মৌসুম থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত ক্যামেরন কাফি’র প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল। ১৯৯০-এর দশকে সারে দলে খেলেছেন। দীর্ঘকায় গড়নের অধিকারী তিনি। ৬ ফুট ৮ ইঞ্চি উচ্চতা নিয়ে প্রায়শই জোয়েল গার্নারকার্টলি অ্যামব্রোসের ন্যায় বোলারদের সাথে একাত্মতা পোষনে মেতে উঠতেন।

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে পনেরোটি টেস্ট ও একচল্লিশটি একদিনের আন্তর্জাতিকে অংশগ্রহণ করেছেন ক্যামেরন কাফি। ১৮ নভেম্বর, ১৯৯৪ তারিখে মুম্বইয়ে স্বাগতিক ভারত দলের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। ৩০ অক্টোবর, ২০০২ তারিখে কলকাতায় একই দলের বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্টে অংশ নেন তিনি।

১৯৯০-এর দশক থেকে ২০০০ সাল পর্যন্ত টেস্ট ও একদিনের খেলায় অংশগ্রহণ করার জন্যে আসা-যাওয়ার পালায় ছিলেন। ২০০০ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট অঙ্গন থেকে অবসর গ্রহণ করেন। ব্যাটসম্যান হিসেবে তিনি মোটেই সুবিধের ছিলেন না। টেস্ট ক্রিকেটে তিনি নিচেরসারিতে ব্যাটিংয়ে নামতেন ও ৪.১৪ গড়ে রান তুলেছিলেন। ১৯৯৪ সালে ভারতের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে তিনবার বিখ্যাত ক্রিকেটার শচীন তেন্ডুলকরকে আউট করেছিলেন তিনি।

মূল্যায়ন[সম্পাদনা]

একদিনের ক্রিকেটে ম্যান অব দ্য ম্যাচ পুরস্কার লাভে বিরল কীর্তিগাঁথা রচনা করেন। তিনি কোন রান করেননি, উইকেট পাননি কিংবা কোন ক্যাচও তালুবন্দী করেননি; তাসত্ত্বেও পুরস্কার পেয়েছিলেন তিনি। ২৩ জুন, ২০০১ তারিখে হারারেতে স্বাগতিক জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে কোকা-কোলা কাপ প্রতিযোগিতার উদ্বোধনী খেলায় ১০-২-২০-০ বোলিং পরিসংখ্যান গড়ে এ পুরস্কার পান। ফলশ্রুতিতে, ওয়েস্ট ইন্ডিজের ২৬৬/৫ রানের জয়ের লক্ষ্যমাত্রায় দলটি ২৩৯/৯ করতে সক্ষম হয়। অন্য কোন বোলারই ১০ ওভারে বোলিং করে ৩৫ রানের কম খরচ করতে পারেননি।

১৯৯০-এর দশকের শুরুতে প্যাট্রিক প্যাটারসনের ন্যায় যোগ্য ফাস্ট বোলার হিসেবে ক্যামেরন কাফি’র অংশগ্রহণ ঘটে। তবে, সমসাময়িক অনেকের ন্যায় তাকেও টেস্ট পর্যায়ের উপযোগী হতে বেশ ধকল সহ্য করতে হয়েছে। দলের নিয়মিত সদস্য হবার সুযোগ হয়নি তার। তিনি কঠোর পরিশ্রমী ছিলেন। কিন্তু, প্রচণ্ড রৌদ্দুরে বলে নিখুঁততার স্বাক্ষর রাখতে না পারায় এবং কার্টলি অ্যামব্রোস ও কোর্টনি ওয়ালসের অবসর গ্রহণের জন্যে অপেক্ষার প্রহর গোনার ফলে তিনি তার সেরা সময় ফেলে আসেন। একদিনের খেলাগুলো বেশ সফলতম বোলারের মর্যাদা পান। তার বল থেকে রান সংগ্রহ করা দুষ্কর ছিল।

ওডিআইয়ে ম্যান অব দ্য ম্যাচ[সম্পাদনা]

ক্রমিক প্রতিপক্ষ মাঠ তারিখ অবদান ফলাফল
দক্ষিণ আফ্রিকা আর্নোস ভ্যাল গ্রাউন্ড, কিংস্টন ১৬ মে, ২০০১ ১০-৩-২৪-৩; ডিএনবি  ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৬ উইকেটে বিজয়ী।[১]
জিম্বাবুয়ে হারারে স্পোর্টস ক্লাব, হারারে ২৩ মে, ২০০১ ডিএনবি; ১০-২-২০-০  ওয়েস্ট ইন্ডিজ ২৭ রানে বিজয়ী।[২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "2000-2001 West Indies v South Africa - 7th Match - Kingstown, St. Vincent"HowStat। সংগ্রহের তারিখ ১৯ নভেম্বর ২০১৬ 
  2. "2000-2001 Coca-Cola Cup (Zimbabwe) - 1st Match - Zimbabwe v West Indies - Harare"HowStat। সংগ্রহের তারিখ ১৯ নভেম্বর ২০১৬ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

ক্রীড়া অবস্থান
পূর্বসূরী
জো সুদেরি
পেশাদার নেলসন ক্রিকেট ক্লাব
২০০৪
উত্তরসূরী
নাথান হারিৎজ