কেপলার মহাকাশ মানমন্দির

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(কেপলার মিশন থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
কেপলার
সম্পূর্ণ কেপলার নভোযান,, ২০০৯ সালে উৎক্ষেপণের আগে করা এসেম্বলির ছবি
General information
NSSDC ID2009-011A
সংস্থানাসা
প্রধান ঠিকাদারবল অ্যারোস্পেস অ্যান্ড টেকনোলজিস কর্পোরেশন
উৎক্ষেপণ তারিখ৭ই মার্চ, ২০০৯, ০৩:৪৯:৫৭.৪৬৫ ইউটিসি[১]
উৎক্ষেপণ স্থানস্পেস লাউঞ্চ কমপ্লেক্স ১৭-বি
কেইপ ক্যানাভেরাল এয়ার ফোর্স স্টেশন
উৎক্ষেপণ বাহনডেল্টা ২ (7925-10L)
মিশনের আয়ুষ্কাল৩.৫ বছর
অতিবাহিত: ১০ বছর, ৮ মাস ও ১৪ দিন
ভর১,০৫২ কেজি (২,৩১৯ পা)
কক্ষপথের ধরণপৃথিবী-ট্রেইলিং সৌরকেন্দ্রিক কক্ষপথ
কক্ষপথের উচ্চতা১ জ্যোতির্বৈজ্ঞানিক একক
কক্ষপথের পর্যায়কাল৩৭২.৫ দিন
তরঙ্গদৈর্ঘ্য৪০০–৮৬৫ ন্যানোমিটার [২]
ব্যাস০.৯৫ মি (৩.১ ফু)
Collecting area০.৭০৮ বর্গমিটার[৩]
ওয়েবসাইটkepler.nasa.gov

কেপলার নভোযান মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একটি মহাকাশ মানমন্দির যাকে নাসার কেপলার মিশনের মহাকাশ অংশ হিসেবে বিবেচনা করা যায়। এর উদ্দেশ্য অন্যান্য তারার চারদিকে আবর্তনরত পৃথিবী-সদৃশ তথা ভৌম গ্রহ আবিষ্কার।[৪] নভোযানটির নাম রাখা হয়েছে অষ্টাদশ শতকের প্রখ্যাত জার্মান জ্যোতির্বিজ্ঞানী ইয়োহানেস কেপলারের নামানুসারে।[৫] ২০০৯ সালের মার্চে উৎক্ষেপিত এই মহাকাশ মানমন্দিরের আয়ুষ্কাল অন্তত ৩.৫ বছর ধরা হয়েছে।[৬]

কেপলার মিশন এমনভাবে নকশা করা হয়েছে যাতে এর মাধ্যমে আকাশগঙ্গা ছায়াপথে আমাদের আশপাশের একটি নির্দিষ্ট স্থানে কয়েক ডজন পৃথিবী-আকৃতির বহির্গ্রহ খুঁজে পাওয়া যায় যাদের অবস্থান তাদের মাতৃতারার প্রাণমণ্ডলের কাছাকাছি। এছাড়া আমাদের ছায়াপথের শত কোটি তারার মধ্যে কতগুলোতে এমন গ্রহ রয়েছে তাও হিসাব করার কথা তার।[৭] কেপলারের একমাত্র যন্ত্র হচ্ছে একটি ফটোমিটার যা একটি নির্দিষ্ট ফিল্ড অফ ভিউয়ে একইসাথে ১৪৫,০০০ প্রধান ধারার তারার উজ্জ্বলতা পর্যবেক্ষণ করতে থাকে।[৮] এই উপাত্ত পৃথিবীতে প্রেরিত হয় এবং পৃথিবীর নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্রে বিজ্ঞানীরা বহির্গ্রহ মাতৃতারার সামনে দিয়ে অতিক্রান্ত হওয়ার সময় তারার উজ্জ্বলতা হ্রাস পরিমাপ করেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Aarhus University Staff (১৪ মার্চ ২০০৯)। "KASC Scientific Webpage"Kepler Asteroseismic Science Consortium। ২০১২-১১-২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০৩-১৪  |প্রকাশক= এ বহিঃসংযোগ দেয়া (সাহায্য)
  2. NASA Staff (২০১০)। "Kepler Mission: Photometer and Spacecraft"NASA। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০২-০২ 
  3. Aperture of 0.95 m yields a light-gathering area of Pi×(0.95/2)2 = 0.708 m2; the 42 CCDs each sized 0.050 m × 0.025m yields a total sensor area of 0.0525 m2: [১]
  4. Koch, David; Gould, Alan (মার্চ ২০০৯)। "Kepler Mission"NASA। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০৩-১৪ 
  5. DeVore, Edna (৯ জুন ২০০৮)। "Closing in on Extrasolar Earths"SPACE.com। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০৩-১৪  |কর্ম= এ বহিঃসংযোগ দেয়া (সাহায্য)
  6. BBC Staff (৭ মার্চ ২০০৯)। "Nasa launches Earth hunter probe"BBC News। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০৩-১৪ 
  7. NASA Staff। "Kepler Mission/QuickGuide"NASA। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৪-২০ 
  8. AAS Staff। "Meeting Program and Block Schedule"American Astronomical Society। ২০১১-০৭-১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৪-২০  - click the itinerary builder to get to the abstract of "Kepler Planet Detection Mission: Introduction and First Results"