কেন ভিলজোয়েন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
কেন ভিলজোয়েন
Ken Viljoen 1935.jpg
১৯৩৫ সালের সংগৃহীত স্থিরচিত্রে কেন ভিলজোয়েন
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামকেনেথ জর্জ বিলজোয়েন
জন্ম(১৯১০-০৫-১৪)১৪ মে ১৯১০
উইন্ডসরটন, দক্ষিণ আফ্রিকা
মৃত্যু২১ জানুয়ারি ১৯৭৪(1974-01-21) (বয়স ৬৩)
ক্রুজার্সড্রপ, দক্ষিণ আফ্রিকা
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি
ভূমিকাব্যাটসম্যান
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ১৩৫)
২৪ ডিসেম্বর ১৯৩০ বনাম ইংল্যান্ড
শেষ টেস্ট৫ মার্চ ১৯৪৯ বনাম ইংল্যান্ড
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ২৭ ১৩৩
রানের সংখ্যা ১৩৬৫ ৭৯৬৪
ব্যাটিং গড় ২৮.৪৩ ৪৩.২৮
১০০/৫০ ২/৯ ২৩/৩০
সর্বোচ্চ রান ১২৪ ২১৫
বল করেছে ৪৮ ১৮২০
উইকেট ২৯
বোলিং গড় ২৪.৮৯
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং ৪/২৩
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৫/- ৫০/-
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ৬ জুলাই ২০১৯

কেনেথ জর্জ বিলজোয়েন (ইংরেজি: Ken Viljoen; জন্ম: ১৪ মে, ১৯১০ - মৃত্যু: ২১ জানুয়ারি, ১৯৭৪) কেপ প্রদেশের উইন্ডসরটন এলাকায় জন্মগ্রহণকারী প্রথিতযশা দক্ষিণ আফ্রিকান আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ছিলেন।[১][২] দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৩০ থেকে ১৯৪৯ সময়কালে পক্ষে দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।[৩]

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেটে গ্রিকুয়াল্যান্ড ওয়েস্ট, অরেঞ্জ ফ্রি স্টেট ও ট্রান্সভাল দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, ডানহাতে বোলিংকর্মে পারদর্শী ছিলেন কেন ভিলজোয়েন

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

১৯২৬-২৭ মৌসুম থেকে ১৯৪৮-৪৯ মৌসুম পর্যন্ত কেন ভিলজোয়েনের প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল।

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে ২৭টি টেস্টে অংশগ্রহণ করেছেন কেন ভিলজোয়েন। ২৪ ডিসেম্বর, ১৯৩০ তারিখে জোহেন্সবার্গে সফরকারী ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। ৫ মার্চ, ১৯৪৯ তারিখে পোর্ট এলিজাবেথে একই দলের বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্টে অংশ নেন তিনি।

১৯৩১-৩২ মৌসুমে দক্ষিণ আফ্রিকা দলের সদস্যরূপে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড গমন করেন।[৪] অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের তৃতীয় টেস্টের প্রথম ইনিংসে অষ্টম উইকেটে কুইন্টিন ম্যাকমিলানের সাথে ১০৪ রানের জুটি গড়েন।

১৯৪৭ সালে চার ঘন্টার কম সময় নিয়ে সাসেক্সের বিপক্ষে ২০১ রানের মনোজ্ঞ শতরান করেন।

প্রশাসনে অংশগ্রহণ[সম্পাদনা]

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ক্রিকেট খেলা থেকে অবসর নেন। এরপর দক্ষিণ আফ্রিকা দলের ব্যবস্থাপকের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছিলেন তিনি। ১৯৫২-৫৩ মৌসুমে অস্ট্রেলিয়া এবং ১৯৫৫ সাল ও ১৯৬৩-৬৪ মৌসুমে ইংল্যান্ড গমন করেছিলেন। তন্মধ্যে, ১৯৫২ সালে অস্ট্রেলিয়া সফরে স্মরণীয় ভূমিকা পালন করেন। এক পর্যায়ে সফর বানচালের উপক্রম হলে দক্ষিণ আফ্রিকায় ভবিষ্যতের সফর আয়োজন করা সম্ভব হতো না। অধিনায়ক জ্যাক চিদাম ও ব্যবস্থাপক হিসেবে বিস্ময়করভাবে তা মোকাবেলা করতে সক্ষম হন ও দলীয় শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে সমর্থ হয়েছিলেন।

১৯৬৩-৬৪ মৌসুমে অস্ট্রেলিয়া সফরে অধিনায়ক ট্রেভর গডার্ডের ক্ষেত্রেও একই ঘটনা ঘটে। পূর্ণাঙ্গ সাহসী ও দৃঢ়চেতা মনোভাবের অধিকারী ছিলেন তিনি। পিছনের পায়ে ভর রেখে কাটের দিকেই তিনি সবিশেষ দক্ষ ছিলেন ও রক্ষণাত্মক ভঙ্গীমায় খেলায় অগ্রসর হতেন।

২১ জানুয়ারি, ১৯৭৪ তারিখে ৬৩ বছর বয়সে ট্রান্সভাল প্রদেশের ক্রুজার্সড্রপ এলাকায় কেন ভিলজোয়েনের দেহাবসান ঘটে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "South Africa – Players by Test cap"। ESPNCricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২১ জুলাই ২০১৯ 
  2. "South Africa – Test Batting Averages"। ESPNCricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২১ জুলাই ২০১৯ 
  3. "Ken Viljoen"। www.cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জানুয়ারি ২০১২ 
  4. "Youthful South Africans"Advertiser and Register। Adelaide। ২৪ আগস্ট ১৯৩১। পৃষ্ঠা 6। সংগ্রহের তারিখ ২১ জুলাই ২০১৯ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]