কেন পালমার

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
কেন পালমার
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামকেনেথ আর্নেস্ট পালমার
জন্ম (1937-04-22) ২২ এপ্রিল ১৯৩৭ (বয়স ৮২)
উইনচেস্টার, হ্যাম্পশায়ার, ইংল্যান্ড
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি ফাস্ট-মিডিয়াম
ভূমিকাবোলার
সম্পর্করয় পালমার (ভ্রাতা)
গ্যারি পালমার (পুত্র)
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
একমাত্র টেস্ট
(ক্যাপ ৪২৭)
১২ ফেব্রুয়ারি ১৯৬৫ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯৫৫–১৯৬৯সমারসেট
আম্পায়ারিং তথ্য
টেস্ট আম্পায়ার২২ (১৯৭৮–১৯৯৪)
ওডিআই আম্পায়ার২৩ (১৯৭৭–২০০১)
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ৩১৪ ২৪
রানের সংখ্যা ১০ ৭৭৭১ ১৩৭
ব্যাটিং গড় ১০.০০ ২০.৭২ ৯.৭৮
১০০/৫০ –/– ২/২৭ –/–
সর্বোচ্চ রান ১০ ১২৫* ৩৫
বল করেছে ৩৭৮ ৪৪৩০২ ১৩৩৫
উইকেট ৮৬৬ ৩৪
বোলিং গড় ১৮৯.০০ ২১.৩৪ ২১.৫৫
ইনিংসে ৫ উইকেট ৪৭
ম্যাচে ১০ উইকেট -
সেরা বোলিং ১/১১৩ ৯/৫৭ ৪/২৬
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং –/– ১৫৮/– ৬/–
উৎস: ক্রিকইনফো, ২৬ নভেম্বর, ২০১৮

কেনেথ আর্নেস্ট পালমার (ইংরেজি: Ken Palmer; জন্ম: ২২ এপ্রিল, ১৯৩৭) হ্যাম্পশায়ারের উইনচেস্টার এলাকায় জন্মগ্রহণকারী প্রথিতযশা ও সাবেক ইংরেজ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ও আম্পায়ার। ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন। ১৯৬৫ সালে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য ইংল্যান্ড দলের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন তিনি। ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ইংরেজ কাউন্টি ক্রিকেটে সমারসেট দলের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। দলে তিনি মূলতঃ বোলার হিসেবে খেলতেন। ডানহাতে ফাস্ট-মিডিয়াম বোলিংয়ের পাশাপাশি ডানহাতে মাঝারিসারিতে ব্যাটিং করতেন কেন পালমার

কাউন্টি ক্রিকেট[সম্পাদনা]

১৯৫৫ থেকে ১৯৬৯ সাল পর্যন্ত প্রথম-শ্রেণীর ইংরেজ কাউন্টি ক্রিকেটে সমারসেটের পক্ষে খেলেছেন। এ সময়ে দলের বিশ্বস্ত অল-রাউন্ডারের মর্যাদা পেয়েছিলেন। ডানহাতে মাঝারিসারির ব্যাটসম্যানের ভূমিকায় অবতীর্ণ হতেন ও ক্ষিপ্রগতিসম্পন্ন ভঙ্গীমা নিয়ে ফাস্ট-মিডিয়াম বোলিং করতেন। ১৯৬১ সালে স্বর্ণালী মৌসুম অতিবাহিত করেন কেন পালমার। ১০০০ রান ও ১০০ উইকেট লাভের ন্যায় ডাবল লাভের কৃতিত্ব প্রদর্শন করেন তিনি।

টেস্ট ক্রিকেট[সম্পাদনা]

১২ ফেব্রুয়ারি, ১৯৬৫ তারিখে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্ট অভিষেক ঘটে তাঁর। এটিই তাঁর একমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ ছিল। ১৯৬৪-৬৫ মৌসুমে ইংরেজ দল দক্ষিণ আফ্রিকা গমন করে। ঐ সফরে জন প্রাইস, ডেভিড ব্রাউনটম কার্টরাইটের ন্যায় বোলারেরা আঘাতের কবলে পড়লে তাঁকে দলে অন্তর্ভূক্ত করা হয়। এ সময়ে তিনি জোহেন্সবার্গে প্রশিক্ষণ নিচ্ছিলেন। ফলে পোর্ট এলিজাবেথে অনুষ্ঠিত সিরিজের পঞ্চম টেস্টে তাঁর খেলায় অংশগ্রহণের সুযোগ হয়।[১]

আম্পায়ারিত্ব[সম্পাদনা]

ক্রিকেট খেলা থেকে অবসর গ্রহণের পর ১৯৭২ সালে আম্পায়ার হিসেবে খেলা পরিচালনার জন্য মনোনীত হন। এরপর ১৯৭৭ থেকে ২০০১ সময়কালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট অঙ্গনে আম্পায়ারের দায়িত্ব পালন করেন। এ সময়ে ২২টি টেস্ট ও ২৩টি একদিনের আন্তর্জাতিক খেলা পরিচালনা করেছেন।[২] জুন, ১৯৮৭ সালে ইংল্যান্ড-পাকিস্তানের মধ্যকার টেস্টে পরিচালনায় অভিষেক ঘটে তাঁর।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

কেন পালমারের ভাই রয় পালমারও সমারসেটের প্রতিনিধিত্ব করাসহ প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট ও টেস্ট খেলায় আম্পায়ারিত্ব করেছেন। তাঁর সন্তান গ্যারি পালমার সমারসেটের পক্ষে অল-রাউন্ডার হিসেবে খেলেছেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "When Winston won it for Windies"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৪ এপ্রিল ২০১৮ 
  2. "Ken Palmer"। www.cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১২-০৭-২৮ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]