কেতুগ্রাম

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
কেতুগ্রাম
গ্রাম
কেতুগ্রাম পশ্চিমবঙ্গ-এ অবস্থিত
কেতুগ্রাম
কেতুগ্রাম
কেতুগ্রাম ভারত-এ অবস্থিত
কেতুগ্রাম
কেতুগ্রাম
Location in West Bengal, India
স্থানাঙ্ক: ২৩°৪২′০৬.০″ উত্তর ৮৮°০২′৩৮.০″ পূর্ব / ২৩.৭০১৬৬৭° উত্তর ৮৮.০৪৩৮৮৯° পূর্ব / 23.701667; 88.043889স্থানাঙ্ক: ২৩°৪২′০৬.০″ উত্তর ৮৮°০২′৩৮.০″ পূর্ব / ২৩.৭০১৬৬৭° উত্তর ৮৮.০৪৩৮৮৯° পূর্ব / 23.701667; 88.043889
দেশ ভারত
রাজ্যপশ্চিমবঙ্গ
জেলাপূর্ব বর্ধমান
জনসংখ্যা (২০১১)
 • মোট৯,৯৯০
ভাষা
 • অফিসিয়ালবাংলা, ইংলিশ
সময় অঞ্চলIST (ইউটিসি+5:30)
পিন৭১৩১৪০ (কেতুগ্রাম)<
টেলিফোন/এসটিডি কোড০৩৪৫৩
লোকসভা কেন্দ্রবোলপুর
বিধানসভা কেন্দ্রকেতুগ্রাম
ওয়েবসাইটbardhaman.gov.in

কেতুগ্রাম হল ভারতীয় রাজ্য পশ্চিমবঙ্গের পূর্ব বর্ধমান জেলার কাটোয়া মহকুমার কেতুগ্রাম-২ সমষ্টি উন্নয়ন ব্লকের অন্তর্গত একটি গ্রাম।

ব্যুৎপত্তি[সম্পাদনা]

কথিত আছে যে, রাজা ভোপালের পুত্র চন্দ্রকেতুর নামে কেতুগ্রামের নামকরণ হয়েছে। কেতুগ্রামের পূর্বেকার নাম ছিল বহুলা।[১]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

বিনয় ঘোষের মতে, কেউ কেউ দাবি করেছেন যে কেতুগ্রাম হল বৈষ্ণব পদাবলি খ্যাত ১৪ দশকের গীতিকার কবি চণ্ডীদাসের জন্মস্থান। কথিত আছে যে, চণ্ডীদাস নিম্ন বর্ণের বিধবাকে বিবাহ করায় কেতুগ্রামের লোকেরা ক্ষুদ্ধ হয়েছিল। তিনি বীরভূম জেলার নানুরে চলে গিয়েছিলেন। এ সময় তিনি উপাসনাকৃত বিশালক্ষীর প্রতিমা সাথে করে নিয়ে যান। পরবর্তীকালে উত্তেজনা কমে গেলে চণ্ডীদাসকে আবার কেতুগ্রামের বহুলাক্ষী মন্দিরের পুরোহিত হিসাবে গ্রহণ করা হয়েছিল। কেতুগ্রামের উত্তর অংশে যে স্থানটি চণ্ডীদাসের জন্মস্থান বলে মনে করা হচ্ছে, স্থানীয়রা আজও ঐ এলাকাটিকে "চণ্ডীভিটা" বলে উল্লেখ করে থাকেন।[১]

ভূ-প্রকৃতি[সম্পাদনা]

অজয় নদীর পাশে কেতুগ্রামের অবস্থানের কারণে কেতুগ্রাম সমতল ভূমি পাললিক শিলা দ্বারা গঠিত।[২]

থানা[সম্পাদনা]

কেতুগ্রাম থানাটির অধীনে কেতুগ্রাম-১ এবং কেতুগ্রাম-২ সমষ্টি উন্নয়ন ব্লকগুলি রয়েছে। থানাটিতে ৩৫৯ কি.মি. এলাকা অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।[৩][৪]

নগরায়ণ[সম্পাদনা]

কাটোয়া মহকুমার ৮৮.৪৪% জনসংখ্যা গ্রামাঞ্চলে বসবাস করে। জনসংখ্যার মাত্র ১১.৫৬% শহরাঞ্চলে বসবাস করে।[৫]

জনসংখ্যার উপাত্ত[সম্পাদনা]

২০১১ সালের আদমশুমারি অনুসারে কেতুগ্রামের জনসংখ্যা ৯,৯৯০ জন, তার মধ্যে ৫,১২৭ জন (৫১%) পুরুষ এবং ৪,৮৬৩ জন (৪৯%) মহিলা ছিল। জনসংখ্যার ৬ বছরের নিচে কম বয়সীদের সংখ্যা ১,২১৮ জন। কেতুগ্রামের মোট সাক্ষরতার সংখ্যা ছিল ৫,৬০৩ জন (৬ বছরের বেশি জনসংখ্যার ৬৩.৮৭%)।[৬]

বহুলা শক্তিপীঠ[সম্পাদনা]

কেতুগ্রামের বহুলা হল ৫১ পীঠের মধ্যে অন্যতম শক্তিপীঠসতীর বাম পাদুকা এখানে পড়েছিল।[১]

পৌরাণিক বিষয়ে বিশদে জানার জন্য সতীপীঠ এবং শক্তিপীঠ দেখুন।

অন্যান্য সূত্রে জানা গেছে, সতীর বাম হাতটি এখানে পড়েছিল। সতীকে বহুলায় উপাসনা করা হলেও শ্রী খণ্ড গ্রামে ভূতনাথ লিঙ্গ ভৈরব ভীরুক (সর্বসিদ্ধিবিনায়ক) হিসাবে পূজা করা হয়। রাজা চন্দ্রকেতু কার্তিক এবং গণেশ-সহ বহুলার পাথর চিত্রটি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন।[৭][৮]

দ্রষ্টব্য: বর্ধমান জেলার কেতুগ্রামে অজয় নদীর তীরে বহুলা মন্দির অবস্থিত।

পরিবহন[সম্পাদনা]

রাজনগর (বীরভূম জেলা) থেকে আলমপুর (হাওড়া জেলা) পর্যন্ত রাজ্য সড়ক-৬ কেতুগ্রামের উপর দিয়ে গেছে।[৯]

কাটোয়া জংশন রেলওয়ে স্টেশন থেকে কেতুগ্রাম ৮ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।[৭]

শিক্ষা[সম্পাদনা]

কেতুগ্রাম স্যার আশুতোষ মেমোরিয়াল ইনস্টিটিউশন, পশ্চিমবঙ্গ মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সাথে অনুমোদিত।[১০] এছাড়া পশ্চিমবঙ্গ উচ্চ মাধ্যমিক কাউন্সিল শিক্ষার সাথে অনুমোদিত।[১১] এটি ১৯২৪ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল।[১২]

স্বাস্থ্য পরিসেবা[সম্পাদনা]

কেতুগ্রামে, কেতুগ্রাম ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্র (১৫ শয্যাবিশিষ্ট) চিকিত্সা ব্যবস্থা রয়েছে। কেতুগ্রাম-২ সিডি ব্লকের প্রধান চিকিত্সা ব্যবস্থা সুবিধা রয়েছে। সিবলুন প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্র রয়েছে (১০ শয্যাবিশিষ্ট) এবং সীতাহাটি (৪ শয্যাবিশিষ্ট) স্বাস্থ্য কেন্দ্র রয়েছে।[১৩] ২০১২ সালে কেতুগ্রাম বিপিএইচসিতে গড় মাসিক রোগী আসেন ৭,০৩৪ জন এবং গড় মাসিক ভর্তি হয় ৮৬ জন। এ বছর ৬৫৭ জন জরুরী ভিত্তিতে রোগী ভর্তির পরিচালনা করেন।[১৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Ghosh, Binoy, Paschim Banger Sanskriti, (বাংলা), part I, 1976 edition, pages 188-189, Prakash Bhaban
  2. "Census of India 2011, West Bengal: District Census Handbook, Barddhaman" (PDF)Physiography, pages 13-14। Directorate of Census Operations, West Bengal। সংগ্রহের তারিখ ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  3. "District Statistical Handbook 2014 Bardhaman"Tables 2.1, 2.2। Department of Statistics and Programme Implementation, Government of West Bengal। ২১ জানুয়ারি ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  4. "Purba Bardhaman District Police"Police Station। West Bengal Police। ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  5. "District Statistical Handbook 2014 Bardhaman"Table 2.2। Department of Statistics and Programme Implementation, Government of West Bengal। ২১ জানুয়ারি ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জানুয়ারি ২০১৯ 
  6. "2011 Census – Primary Census Abstract Data Tables"West Bengal – District-wise। Registrar General and Census Commissioner, India। সংগ্রহের তারিখ ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ 
  7. "Experience Bengal"Bahula Temple। Department of Tourism, Government of West Bengal। সংগ্রহের তারিখ ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  8. Chattopadhyay, Akkori, Bardhaman Jelar Itihas O Lok Sanskriti (History and Folk lore of Bardhaman District.), (বাংলা), Vol II, page 587, Radical Impression. আইএসবিএন ৮১-৮৫৪৫৯-৩৬-৩
  9. "List of State Highways in West Bengal"। West Bengal Traffic Police। সংগ্রহের তারিখ ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ 
  10. "West Bengal Board of Secondary Education"Burdwan। WBBSE। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জানুয়ারি ২০১৯ 
  11. "West Bengal Council of Higher Secondary Education"Budwan। WBCHSE। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জানুয়ারি ২০১৯ 
  12. "Ketugram S.A.M. Institution School"। ICBSE। সংগ্রহের তারিখ ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  13. "Health & Family Welfare Department"Health Statistics। Government of West Bengal। সংগ্রহের তারিখ ১৯ জানুয়ারি ২০১৯ 
  14. "Performancee of Block Primary Health Centres (BPHC) in West Bengal during 2012 (January to December)" (PDF)। Health & Family Welfare Department, Government of West Bengal। সংগ্রহের তারিখ ৯ মার্চ ২০১৯ 

টেমপ্লেট:পূর্ব বর্ধমান জেলা