কুয়াংচৌ পাইইউন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর

স্থানাঙ্ক: ২৩°২৩′৩৩″ উত্তর ১১৩°১৭′৫৬″ পূর্ব / ২৩.৩৯২৫০° উত্তর ১১৩.২৯৮৮৯° পূর্ব / 23.39250; 113.29889
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
কুয়াংচৌ পাইইউন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর

广州白云国际机场
চিত্র:Baiyun Aitport Logo.svg
Guangzhou Baiyun International Airport Terminal 2.jpg
টার্মিনাল ২-এর প্রবেশ পথ
সংক্ষিপ্ত বিবরণ
বিমানবন্দরের ধরনসরকারি
মালিককুয়াংচৌ পাইইউন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর কোম্পানি লিমিটেড
পরিচালককুয়াংতুং বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ
সেবা দেয়কুয়াংচৌকুয়াংতুং-হংকং-ম্যাকাও বৃহত্তর উপসাগরীয় অঞ্চল
অবস্থানপাইইউনহৌতু জেলা, কুয়াংচৌ, কুয়াংতুং
চালু৫ আগস্ট ২০০৪ (১৭ বছর আগে) (2004-08-05)
যে হাবের জন্য
মনোনিবেশ শহর
এএমএসএল উচ্চতা১৫ মিটার / ৪৯ ফু
স্থানাঙ্ক২৩°২৩′৩৩″ উত্তর ১১৩°১৭′৫৬″ পূর্ব / ২৩.৩৯২৫০° উত্তর ১১৩.২৯৮৮৯° পূর্ব / 23.39250; 113.29889
ওয়েবসাইটকুয়াংচৌ পাইইউন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর
মানচিত্র
সিএএসি বিমানবন্দর রেখাচিত্র
সিএএসি বিমানবন্দর রেখাচিত্র
সিএএন কুয়াংতুং-এ অবস্থিত
সিএএন
সিএএন
বিমানবন্দরের অবস্থান
সিএএন গণচীন-এ অবস্থিত
সিএএন
সিএএন
বিমানবন্দরের অবস্থান
রানওয়ে
দিক দৈর্ঘ্য পৃষ্ঠতল
মি ফুট
০১/১৯ ৩,৬০০ ১১,৮১১ কংক্রিট
০২এল/২০আর ৩,৮০০ ১২,৪৬৭ কংক্রিট
০২আর/২০এল ৩,৮০০ ১২,৪৬৭ কংক্রিট
পরিসংখ্যান (২০১৯)
যাত্রী সংখ্যা৭,৩৩,৭৮,৪৭৫
পণ্য (মেট্রিক টন)১৯,১৯,৯২৬.৯
উড়ান সংখ্যা৪,৯১,২৪৯

কুয়াংচৌ পাইইউন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর বা গুয়াংঝো বাইয়ুন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর (আইএটিএ: সিএএনআইসিএও: জেডজিজিজি) দক্ষিণ চীনের কুয়াংতুং প্রদেশের কুয়াংচৌ বা গুয়াংঝো শহরের প্রধান বিমানবন্দর। উভয় বিমানবন্দর কোডই প্রাক্তন পাইইউন (বাইয়ুন) বিমানবন্দর থেকে উত্তরাধিকার সূত্রে প্রাপ্ত, এবং আইএটিএ কোড কুয়াংচৌয়ের ঐতিহাসিক রোমানীকরণ ক্যান্টন থেকে প্রাপ্ত। পাইইউন (বাইয়ুন) বিমানবন্দরটি চায়না সাউদার্ন এয়ারলাইন্স, ফেডেক্স এক্সপ্রেস, ৯ এয়ার, হাইনান এয়ারলাইন্সশেনচেন এয়ারলাইন্সের হাব হিসেবে কাজ করে। এটি বিমান চলাচলে কোভিড-১৯ মহামারীর প্রভাবের কারণে ২০২০ সালে যাত্রী পরিবহনে বিশ্বের ব্যস্ততম বিমানবন্দর ছিল। বিমানবন্দর ২০২০ সালে ৪৩.৮ মিলিয়ন যাত্রী পরিচালনা করেছিল।[২]

কুয়াংচৌ পাইইউন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরটি যাত্রী সংখ্যার দিক থেকে ২০১৯ সালে চীনের তৃতীয়-ব্যস্ততমবিশ্বের ১১তম-ব্যস্ত বিমানবন্দর ছিল, উক্ত সময়কালে ৬৫.৮ মিলিয়ন যাত্রী পরিচালনা করা হয়েছিল। পণ্য পরিবহনের ক্ষেত্রে, বিমানবন্দরটি চীনের তৃতীয় ব্যস্ততম বিমানবন্দর ছিল, পাশাপাশি বিমান চলাচলের ক্ষেত্রে দেশব্যাপী তৃতীয়-ব্যস্ত বিমানবন্দর ছিল।

সংক্ষিপ্ত বিবরণ[সম্পাদনা]

১৯৩২–২০০৪[সম্পাদনা]

পুরাতন পাইইউন বিমানবন্দরটি ১৯৩২ সালে খোলা হয়েছিল। কুয়াংচৌ শহরের সম্প্রসারণের কারণে, বিমানবন্দরটি বিমানবন্দরকে ঘিরে থাকা ভবনসমূহের কারণে যাত্রীদের চাহিদা মেটাতে সম্প্রসারিত হতে পারেনি। ২০০৪ সালের ৫ই আগস্ট নতুন পাইইউন বিমানবন্দর চালু হয় ও পুরানো বিমানবন্দর বন্ধ হয়ে যায়।

২০০৪ সাল থেকে[সম্পাদনা]

নতুন বিমানবন্দরটি কুয়াংচৌয়ের পাইইউন জেলা ও হৌতু জেলায় অবস্থিত এবং একইভাবে নামের ৭২ বছরের পুরাতন বিমানবন্দরের প্রতিস্থাপন হিসাবে ২০০৪ সালের ৫ই আগস্ট খোলা হয়েছিল, যা এখন বন্ধ রয়েছে। ১৯.৮ বিলিয়ন ইউয়ান ব্যয়ে নির্মিত, নতুন বিমানবন্দরটি কুয়াংচৌ শহরের কেন্দ্রস্থল থেকে ২৮ কিলোমিটার (১৭ মাইল) উত্তরে অবস্থিত এবং পূর্বসূরির চেয়ে প্রায় পাঁচগুণ বড়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. 2019年全国机场生产统计公报 (চীনা ভাষায়)। Civil Aviation Administration of China। ২০২০-০৩-১০। 
  2. Kenji Kawase (২৫ জানুয়ারি ২০২১)। "China's Guangzhou airport crowns itself the world's busiest for 2020"Nikkei Asia। সংগ্রহের তারিখ ১০ জানুয়ারি ২০২১