কুবাত পাশা মাদ্রাসা

স্থানাঙ্ক: ৩৬°৫৫′০১″ উত্তর ৩৪°৫৩′৫১″ পূর্ব / ৩৬.৯১৬৮৪° উত্তর ৩৪.৮৯৭৪৮° পূর্ব / 36.91684; 34.89748
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
কুবাত পাশা মাদ্রাসা
Kubat Paşa Medresesi
KubatPashaMadrasaTarsus.JPG
তুরস্কের তারসুসের মেরসিনে অবস্থিত কুবাত পাশা মাদ্রাসার সম্মুখ দৃশ্য
ধর্ম
জেলাতারসুস
প্রদেশমেরসিন
পৃষ্ঠপোষককুবাত পাশা
অবস্থাসংরক্ষিত
অবস্থান
দেশতুরস্ক
কুবাত পাশা মাদ্রাসা তুরস্ক-এ অবস্থিত
কুবাত পাশা মাদ্রাসা
তুরস্কের কুবাত পাশা মাদ্রাসার অবস্থান।
ভৌগোলিক স্থানাঙ্ক৩৬°৫৫′০১″ উত্তর ৩৪°৫৩′৫১″ পূর্ব / ৩৬.৯১৬৮৪° উত্তর ৩৪.৮৯৭৪৮° পূর্ব / 36.91684; 34.89748
স্থাপত্য
স্থাপত্য শৈলীসেলজুক স্থাপত্য
সম্পূর্ণ হয়১৫৫৭
সম্মুখভাগের দিকদক্ষিণ-পশ্চিম
মাদ্রাসার মূল ফটক।

কুবাত পাশা মাদ্রাসা ( তুর্কী: Kubat Paşa Medresesi ) দক্ষিণ তুরস্কের মেরসিন প্রদেশের তারসুস জেলার একটি ঐতিহাসিক মাদ্রাসা

অবস্থান[সম্পাদনা]

মাদ্রাসাটি মূল রাস্তার দক্ষিণে পুরাতন শহরের কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত। যেখানে তারসাসের বড় মসজিদ , দানিয়ালের মাজার এবং সেন্ট পলস চার্চ সহ আরও কয়েকটি ঐতিহাসিক ভবন রয়েছে। মাদ্রাসা ভবনটি পশ্চিমে দানিয়ালের মাজারের মুখোমুখি।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

মাদ্রাসা ইসলামী দেশগুলির প্রধান ধর্মীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। ১৫৫৭ সালে কুবাত পাশা মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠিত হয়। পিরী পাশার ভাই, রামাযানীদ বাড়ির সদস্য এবং উসমানীয় সাম্রাজ্যের[১] সামন্ত বেগ কুবাত পাশা মাদ্রাসাটি প্রতিষ্ঠিত করেন। ১৫১৭ সালে রামাজানীয়দরা অটোমানদের অভিজাতত্ব গ্রহণ করে।[২] [৩] [৪]

মাদ্রাসাটি অনেকবার পুনর্নির্মাণ হয়। ১৯৬৯-১৯৭০ সালে পুনর্নির্মাণের সময় এটি যাদুঘর হিসাবে ব্যবহার করার জন্য নতুনভাবে নকশাকৃত হয় এবং সেইজন্য কিছু মূল বৈশিষ্ট্য নষ্ট হয়ে যায়। ১৯৯৯ সালে তারসাস যাদুঘরটি ৭৫ তম বার্ষিকী সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের বর্তমান ভবনে স্থানান্তরিত করা হয়।[২] ড্যানিয়েল মসজিদের মাজার পুনর্নির্মাণের সময় মাদ্রাসা ভবনটি মসজিদ হিসাবে ব্যবহৃত হত।[৩][৪]

ভবন[সম্পাদনা]

মাদ্রাসাটি সেলজুক স্থাপত্যের আদলে সেরা পাথরের গাঁথনে নির্মাণ করা হয়েছে। মাদ্রাসার একটি আয়তক্ষেত্রাকার আকৃতির স্থাপনার পরিকল্পনা রয়েছে। ভবন প্রাঙ্গণে চারপাশে একটি আইওয়ানসহ দুটি কক্ষ রয়েছে। ১৯৭০ সালের পুনর্নির্মাণ কাজ চলাকালে ভবনটি মূল বৈশিষ্ট্য অনেকটা নষ্ট হয়ে যায়। মাদ্রাসাটি চতুর্ভুজ আকৃতির যার চারপাশে ১৬ টি কক্ষ রয়েছে।[৪] খিলানযুক্ত কক্ষগুলিতে অগ্নিকুণ্ড সংযুক্ত রয়েছে। দক্ষিণ-পশ্চিমে সেলজুক স্থাপত্য শৈলীর আদলে নির্মিত দরজা দিয়ে মাদ্রাসায় প্রবেশ করা হয়।[২]

২০১২ সালে তারসাস পৌরসভা মাদ্রাসায় আরেকটি পুনর্নির্মাণের কাজ শুরু করে।[৪] পুনর্নির্মাণের কাজের সময় প্রবেশদ্বারটির গোড়ায় প্রাচীন গ্রীক ভাষায় একটি শিলালিপি পাওয়া যায়। যা রোমান সাম্রাজ্য আমলের বলে মনে করা হয়।[৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Kubat Paşa Medresesi - Mersin" (তুর্কী ভাষায়)। Türkiye Kültür Portalı। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-১০-১৯ 
  2. "Kubat Paşa Medresesi" (তুর্কী ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-১০-১৯ 
  3. "arsus Kubat Paşa Medresesi Hakkında Bilgi" (তুর্কী ভাষায়)। Mersin'im। ২০১৬-১০-১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-১০-১৯ 
  4. "Tarsus'ta Kubat Paşa Medresesi Restore Ediliyor"Haberler (তুর্কী ভাষায়)। ২০১২-০৩-১৭। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-১০-২০ 
  5. "Tarsus'ta Medrese Restorasyonunda Roma Dönemine Ait Kitabe Bulundu"Arkeoloji Haber (তুর্কী ভাষায়)। ২০১২-১১-২২। ২০১৬-১০-২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-১০-২০