কুকিকাটার হাঙর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
কুকিকাটার হাঙর
পাশ থেকে ছোট পাখনা ও বড় সবুজ চোখসহ সরু বাদামী হাঙর (আয়তন বুঝাতে একটি পেনসিল সহ)
বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস e
অপরিচিত শ্রেণী (ঠিক করুন): Isistius
প্রজাতি: I. brasiliensis
দ্বিপদী নাম
Isistius brasiliensis
(কোয়ে ও গেইমার্ড, ১৮২৪)
বিশ্বমানচিত্রে আটলান্টিক, ভারত ও প্রশান্ত মহাসাগরে বিক্ষিপ্ত নীল এলাকা
কুকিকাটার শার্কের এলাকা
প্রতিশব্দ

Isistius labialis মেং, চু ও লি, ১৯৮৫
Leius ferox নের, ১৯৮৬৪
Scymnus brasiliensis কোয়ে ও গেইমার্ড, ১৮২৪
Scymnus torquatus মুলার ও হ্যানল, ১৮৩৯
Scymnus unicolor মুলার ও হ্যানল, ১৮৩৯
Squalus fulgens বেনেট, ১৮৪০

কুকিকাটার হাঙর (Isistius brasiliensis), যা চুরূট হাঙর নামেও পরিচিত, হল ড্যালাটিয়েডে পরিবারের ছোট ডগফিশ হাঙরের একটি প্রজাতি। এদের বিশ্বজুড়ে উষ্ণ, মহাসাগরীয় পানিতে পাওয়া যায়, বিশেষত দ্বীপের আশেপাশে ও ৩.৭ কিমি (২.৩ মা) গভীরে। সন্ধ্যা নামার পর এটি ৩ কিমি (১.৯ মা) উপরে উঠে আসে, সূর্যোদয়ের আগেই আবার চলে যায়। দৈর্ঘ্যে শুধুমাত্র ৪২–৫৬ সেমি (১৭–২২ ইঞ্চি) হওয়া কুকিকাটার হাঙরের আছে লম্বা, নলাকার শরীর, ছোট ও বোতা শুণ্ড, বড় চোখ, হাড়বিহীন পৃষ্ঠীয় পাখনা ও বড় পুচ্ছ পাখনা। আলো-বিচ্ছুরণকারী ফোটোপরসহ এটি গাঢ় বাদামী রঙের। তবে গিল চেরা ও গলার কাছে কালচে "কলার" রয়েছে।

"কুকিকাটার হাঙর" নামটি এর খাদ্যাভ্যাস থেকে এসেছে। এ মাছ বিস্কুট কাটার যন্ত্রের মত বড় প্রাণীদের শরীর থেকে গোলাকার প্লাগ উপড়িয়ে খেয়ে নেয় বলে এর এ নাম। অনেকগুলো সামুদ্রিক প্রাণীও মাছের শরীরে, সাথে সাথে সাবমেরিন, সমুদ্রের নিচের ক্যাবল, এমনকি মানুষের শরীরেও। কুকিকাটার শার্কের কাটা দাগ পাওয়া যায়। এটি স্কুইডের মত ছোট শিকারও ধরেন।

তথ্যসূত্র[উৎস সম্পাদনা]

  1. {{{assessors}}} (2003). Isistius brasiliensis. 2008 IUCN Red List of Threatened Species. IUCN 2008. Retrieved on January 26, 2010.

বহিঃসংযোগ[উৎস সম্পাদনা]