কালি পাংখা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

কালি পাংখা
Black Prince
Close wing position of Rohana parisatis Westwood, 1850 – Black Prince (Male).jpg
ডানা বন্ধ অবস্থায়
Open wing position of Male Rohana parisatis (Westwood, 1850) – Black Prince WLB DSC 0 124.jpg
ডানা খোলা অবস্থায়
বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ: Animalia
পর্ব: Arthropoda
শ্রেণী: Insecta
বর্গ: Lepidoptera
পরিবার: Nymphalidae
গণ: Rohana
প্রজাতি: R. parisatis
দ্বিপদী নাম
Rohana parisatis
প্রতিশব্দ

Apatura parisatis

কালি পাংখা[১](বৈজ্ঞানিক নাম: Rohana parisatis (Westwood)) যার মূল শরীর কালো বর্ণের এবং ডানা দুটিতেও নীলচে কালো বর্ণ দেখা যায়। এরা নিমফ্যালিডি পরিবার এবং আপাটুরিনি উপগোত্রের সদস্য।

আকার[সম্পাদনা]

কালি পাংখার প্রসারিত অবস্থায় ডানার আকার ৪৫-৫০মিলিমিটার দৈর্ঘ্যের হয়। [২]

উপপ্রজাতি[সম্পাদনা]

ভারতে প্রাপ্ত কাগজির উপপ্রজাতিসমূহ হল-[৩]

  • Rohana parisatis parisatis Westwood, 1850 – Assam Black Prince
  • Rohana parisatis atacinus Fruhstorfer, 1913 – Sahyadri Black Prince

বিস্তার[সম্পাদনা]

পশ্চিমবঙ্গে উপস্থিতি[সম্পাদনা]

কলকাতা এবং পার্শব্ব্ররতী অঞ্চল উত্তরবঙ্গ এবং পার্শব্ব্ররতী অঞ্চল
দেখা মেলে না দুর্লভ

বর্ণনা[সম্পাদনা]

পুরুষ কালি পাংখাদের ডানার উপরিতল ভেলভেট কালো বর্নের। ডানার শীর্ষভাগে কিছু সাদা এপিকাল বিন্দু ছাড়া অন্য কোনরকম দাগ উপরিপৃষ্ঠে দেখা যায় না। স্ত্রী কালি পাংখাদের ডানার উপরিভাগ এর রঙ কমলা হলুদের সাথে বাদামী মিশেল যে রঙ চওড়া ডিসকাল বন্ধনীটিতে ফ্যাকাশে ভাবে প্রতিয়মান। পিছনের ডানায় ডিসকাল বন্ধনী সর্বদায় অসাম্নজস্যপূর্ন।[৪]

পুরুষ[সম্পাদনা]

পুরুষ কালি পাংখা এর ডানার উপরিতল ভেলভেটের মত ঘন কালো; সামনের ডানার শীর্ষ ভাগে একটি তুষারশুভ্র প্রি এপিকাল স্পট অথবা বিন্দু। সামনের এবং পিছনের উভয় ডানার প্রান্তিক যে রোয়া (সিলিয়া) থাকে তা প্ররযায়ক্রমে সাদা এবং কালো। উভয় ডানার নিম্নতল ইষদ কালচে নীল অথবা বেগুনি বর্ন এবং বাদামী যা ডানার গোড়ার (বেস) দিকে এবং কোস্টাল মার্জিন বরাবর চাপা রঙের। সামনের ডানার শীর্শভাগ কালচে মরচে রঙের। সামনে এবং পিছনের উভয় ডানার নিম্নতলে ডিসকোইডাল অংশে দুটি করে কালো স্পট অথবা বিন্দু চোখে পরে যাদের পরেই একটি কর্নাকার (অরিফ্রম/auriform) দাগ দেখা যায় এবং একটি অনিয়মিত এবং অসম বন্দনী ডানার মধ্যভাগ ভরাবর উভয় ডানাকে অতিক্রম করে। উভয় ডানার পোস্টডিসকাল এবং সাবটার্মিনাল অংশের মঝে কিছু কালচে বাদামী ছোপ অথবা দাগ অস্পষ্টভাবে এবং বিচ্ছিন্ন ভাবে বিন্যাস্ত রয়েছে। সামনের ডানার উপরি পৃষ্ঠের শীর্ষভাগে ৩টি ক্রমিক সাদা সাব এপিকাল বিন্দু দেখা যায় যার শীর্ষতম প্রি-এপিকাল বিন্দুটি সর্ববৃহত। পিছনের ডানায় সাদা কেন্দ্রযুক্ত একটি কালো সাবটার্নাল বিন্দু থাকে। পুরুষ কালি পাংখা প্রজাপতির শুংগ দুটি কালো, মাথা, বক্ষদেশ এবং পেটের উপরিতল কালো কোমল ভেল্ভেটের ন্যায় এবং নিম্নভাগ কালচে বাদামী।[৫]

স্ত্রী[সম্পাদনা]

স্ত্রী কালি পাংখা প্রজাপতির ডানার উপরিতলের রঙ হলুদ এবং বাদামী হলুদ রঙ মেশানো। সামনের এবং পিছনের ডানার উপরিপৃষ্ঠের বেসাল অর্ধ অনুজ্জ্বল এবং ছায়াচ্ছন্ন এবং বাদামী রঙের, একটি কৌনিক এবং তেরচা চওড়া বাদামী রঙের মধ্যবর্তী ফ্যাসিয়া যুক্ত। উপরের ডানার উপরিতলে পোস্ট ডিসকাল অংশে তীর্যক শীর্ষভাগ থেকে ডসাম পর্যন্ত বিস্তৃত, বাদামী হালকা ছোপযুক্ত দাগ দেখা যায়। নীচের ডানার উপরিতলে পোস্টডিসকাল অংশ বরাবর তীর্যকভাবে অবস্থিত অস্পস্ট কালো দাগ অথবা ছোপ এর সারি চোখে পড়ে। উপরের ডানার শীর্ষভাগে ৩ থেকে ৪টি সাব এপিকাল সাদা বিন্দু অবস্থিত। উভয় ডানারই উপরিপৃষ্ঠে তীর্যক ভাবে সারিবদ্ধ কালচে সরলরৈখিক দাগ এর উপস্থিতি রয়েছে, যাদের অনুসরন করে একটি সাবটার্মিনাল ছাইরঙা অবিচ্ছেদ্য রেখা অবশিত। উভয় ডানার তলদেশ হলদে বাদামী, ডানার দাগগুলি পুরুষ নমুনারই অনুরুপ, তবে পুরুষ নমুনা অপেক্ষা অনেক সুস্পষ্ট চিহ্নিত। শুঙ্গ, মাথা, বক্ষদেশ এবং পেট উপরিপৃষ্ঠে হালকা বাদামী এবং নিম্নভাগে হলদেটে।[৫]

আচরণ[সম্পাদনা]

পুরুষ কালি পাংখারা দ্রুত উড়ান দেয়। এরা সাধারনত ছোট ছোট ঝোপ-ঝাড়ে বসে রৌদ্র পোহাতে পছন্দ করে এবং রৌদ্র পোহানোর সময় এরা ডানা মেলে বসে থাকে। স্ত্রী কালি পাংখারা আস্তে আস্তে উড়ান পছন্দ করে। এদের সাধারনত নীচু গাছে অথবা মাটির কাছাকাছি দেখা যায়।[৬][৭]

চিত্রশালা[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. A Pictorial Guide Butterflies of Gorumara National Park (2013 সংস্করণ)। Department of Forests Government of West Bengal। পৃষ্ঠা ২৩৯। 
  2. Kunte, Krushnamegh (২০১৩)। Butterflies of The Garo Hills। Dehradun: Samrakshan Trust, Titli Trust and Indian Foundation of Butterflies। 
  3. "Rohana parisatis Westwood, 1850 – Black Prince"। সংগ্রহের তারিখ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  4. Isaac, Kehimkar (২০০৮)। The book of Indian Butterflies (1st সংস্করণ)। New Delhi: Oxford University Press। পৃষ্ঠা 397। আইএসবিএন 978 019569620 2 
  5. Bingham, C.T. (১৯০৫)। The Fauna of British India, Including Ceylon and Burma Butterflies1 (1st সংস্করণ)। London: Taylor and Francis, Ltd.। 
  6. Kunte, K.; Sondhi, S.। "Butterflies of the Garo Hills of Meghalaya, northeastern India: their diversity and conservation" (PDF)। Journal of Threatened Taxa। পৃষ্ঠা 2933-2992। ২ অক্টোবর ২০১২ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০ অক্টোবর ২০১৬ 
  7. Pawar.et al.,, P.A.। "Butterfly Diversity of Satara Tehsil, District Satara,Maharashtra" (PDF)Institute of Research Advances International Journal of Applied Science। পৃষ্ঠা 133–144। আইএসএসএন 2455-4499। সংগ্রহের তারিখ ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]