কালাত খানাত

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
কালাত খানাত

خانات ءِ قلات
১৬৬৬–১৪ অক্টোবর ১৯৫৫
কালাতের জাতীয় পতাকা
পতাকা
পাকিস্তানের মানচিত্রে উজ্জ্বল রঙয়ে কালাত
পাকিস্তানের মানচিত্রে উজ্জ্বল রঙয়ে কালাত
রাজধানীকালাত
প্রচলিত ভাষাবালুচী
সরকাররাজতন্ত্র
ইতিহাস 
• প্রতিষ্ঠা
১৬৬৬
• বিলুপ্ত
১৪ অক্টোবর ১৯৫৫
আয়তন
৯১,৯০৯ বর্গকিলোমিটার (৩৫,৪৮৬ বর্গমাইল)
পূর্বসূরী
উত্তরসূরী
মুঘল সাম্রাজ্য
পাকিস্তান অধিরাজ্য
বর্তমানে যার অংশবেলুচিস্তান, পাকিস্তান
বেলুচিস্তান এজেন্সি এর মানচিত্র

কালাত খানাত (বেলুচি: خانات ءِ قلات ) ছিল একটি বালুচ খানত,[৪] যা পাকিস্তানের আধুনিক বেলুচিস্তানের প্রদেশের কেন্দ্রে ১৬৬৬ থেকে ১৯৫৫ সাল পর্যন্ত ছিল। এর আগে তারা মুঘল সম্রাট আকবরের প্রজা ছিল।[২][৫] আহমেদজাই বালুচ এবং ব্রহুই খান ১৮৩৯ অবধি স্বাধীনভাবে রাজ্য শাসন করেন, তারপর এটি ব্রিটিশ ভারতের সাথে সহায়ক সহায়ক জোটে স্ব-শাসনকারী রাজ্যে পরিণত হয়েছিল। ১৮৭৬ সালে কালাতের খান ও বালুচ সরদারদের দ্বারা মাস্তুং চুক্তির স্বাক্ষরের পরে, কালাত বালুচিস্তান এজেন্সির অংশ হয়।[৬] এটি ১৯৪৭ সালের ১২ আগস্ট থেকে ২৭ শে মার্চ ১৯৪৮ সাল পর্যন্ত স্বাধীন ছিল, এরপর খান তার রাজ্যকে পাকিস্তানের নতুন অধীরাজ্যকে স্বীকার করেন। ১৯৫৫ সাল পর্যন্ত এটি পাকিস্তানের একটি দেশীয় রাজ্য ছিল, এটি তারপর দেশে অন্তর্ভুক্ত হয়।

ভূগোল[সম্পাদনা]

কালাতের খানাত পাকিস্তানের আধুনিকতম বেলুচিস্তান প্রদেশের ভূখণ্ডের কেন্দ্রীয় অংশ অবস্থিত। উত্তরে ছিল বেলুচিস্তান (চিফ কমিশনার প্রদেশ)

প্রধান পর্বতগুলি হ'ল মধ্য বেলুচ, কীর্তর, পাব, সিয়াহান, মধ্য মাকরান এবং মাকরান উপকূল রেঞ্জগুলি, যা প্রায় ১০,০০০ থেকে ১,২০০ ফুট (৩৭০ মি) পর্যন্ত উচ্চতায় নেমেছে। দেশের দক্ষিণে নিষ্কাশন সব নারি মুলুয়া, হাব,পোরাইল, হিঙ্গল এবং দাস্ত নদী দিয়ে হয়ে থাকে। উত্তর দিকে প্রবাহিত একমাত্র বৃহত নদী হ'ল রাখশান। উপকূলরেখায় গওদার, পাসনি, সোনমিয়ানী এবং গিওয়ানি, আধুনিক পাকিস্তানের বেলুচিস্তানে অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।

উপবিভাগসমূহ[সম্পাদনা]

  • ঝালওয়ান নামে ব্রাহুই জাতির মহকুমা, যারকজাই উপজাতির প্রধান নবাবের নেতৃত্বে , ঝালওয়ানের প্রধান বলা হয়
  • কাচ্চি, একটি নৃতাত্ত্বিক সিন্ধি মহকুমা, যেখানে বিভিন্ন উপজাতির কালাত খানের অধীনে নিজস্ব জমি ছিল।
  • সরওয়ান, একটি জাতিগত বালুচ মহকুমা, রাইসানী উপজাতির প্রধান নবাবের নেতৃত্বে, সারাওয়ানের প্রধান বলা হয় [৭]

ব্রিটিশ রাজের অধীনে দেশীয় রাজ্যসমূহ[সম্পাদনা]

  • গিচকি উপজাতির প্রধান নবাবের নেতৃত্বে একটি বালুচ রাজ্য মাকরান, যাকে মাকরানের নবাব বলা হয়
  • বংশগত জাম সাহেব দ্বারা শাসিত লাস বেলা। সামা রাজবংশ জাম উপাধি নিয়েছিল, যা স্থানীয় "রাজা" বা "সুলতান" এর সমতুল্য। সাম্ম রাজবংশ ঐতিহাসিকভাবে তারাসিন্ধি অন্তর্ভুক্ত এবং সিন্ধি ভাষা কথা বলে
  • খারান, একটি বালুচ রাষ্ট্র নাওশেয়ারী উপজাতি প্রধান নওয়াব বলা নেতৃত্বে খারানের নবাব
  • গোয়াদার ছিটমহল, একটি মাকরানী উপকূলীয় রাজ্য, যাঁরা মশকাত ও ওমানের সুলতানাতের প্রত্যক্ষ শাসনের অধীনে একজন নিযুক্ত আরব গভর্নরের নেতৃত্বে বালুচদের সমন্বয়ে গঠিত।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

তারিক-ই ইয়াহিয়া আল-মুলুকের মতে,ষোড়শ শতাব্দীর শেষদিকে কালাত অঞ্চলটি (পূর্ব তুরান) সাফাভিদের নিয়ন্ত্রণে ছিল, তবে ১৭ শতকের শুরুতে লশারির বালুচী উপজাতি সিস্তান খান এবং কেরমানিয়ান বেগলার-বেগী বিরুদ্ধে দাঁড়ায়। কালাত খানাত সৃষ্টি না হওয়া অবধি তুরান ও মাকরানকে নিয়ন্ত্রণ করে।[৮] কালাত খানাতটি ১ ৬৬৬ সালে মীর আহমদ খান প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। ১৭৫৮ সালে কালাত খান মীর নাসির খান নূরী আহমদজাই বালুচর সময়কালে খানাত তার উন্নতির শীর্ষে পৌঁছেছিল,তিনি অঞ্চলের সকল নেতাদের তাঁর পতাকার নীচে একীভূত করেছিলেন।[৯] রাজ্য দ্বারা নিয়ন্ত্রিত অঞ্চলগুলি কয়েক শতাব্দী ধরে ওঠানামা করেছিল তবে শেষ পর্যন্ত ১৯ শতকের শেষদিকে ব্রিটিশ এজেন্ট রবার্ট স্যান্ডেমনের সাথে চুক্তি দ্বারা প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। উত্তর ও উত্তর-পূর্বে রাজ্যের কিছু অংশকে ব্রিটিশ বেলুচিস্তান প্রদেশ গঠনের জন্য লিজ দেওয়া হয়েছিল যা পরবর্তীতে চিফ কমিশনার প্রদেশের নামে পরিচিত লাভ করে।

১৯৪৮ সালের ২রা আগস্ট থেকে ২৪ শে মার্চ, ১৯৪৮ সালের ২রা মার্চ পাকিস্তানে যোগদানের আগে এই অঞ্চলটি স্বাধীন ছিল। ১৯৫২ সালের ৩ অক্টোবর তিনটি প্রতিবেশী রাজ্য নিয়ে বেলুচিস্তান স্টেটস ইউনিয়ন গঠিত হয়েছিল।[১০][১১][১২][১৩] ১৯৫৫ সালের ১৪ ই অক্টোবর পশ্চিম পাকিস্তান প্রদেশটি গঠিত হওয়ার পরে কালাত খানাত বিলুপ্ত হয়ে যায়।

পতাকা[সম্পাদনা]

কালাতের খানাতের লালচে সবুজ পতাকা ছিল। লাল অংশ এবং সবুজ রঙের সামান্য অংশ দখল করা কেন্দ্রে একটি বৃহত সাদা অর্ধ চাদঁ উপরের দিকে করা ছিল এবং একটি সাদা তারা (দুটি স্ট্রাইপের ঠিক মাঝখানে তারা) ছিল। তারা এবং ক্রিসেন্টের মধ্যে একটি ইসলামী শিলালিপিগে তাকবীর (" আল্লাহ সর্বশ্রেষ্ঠ") এবং ক্রিসেন্ট চাঁদে শাহাদাহ‌ (" আল্লাহ ছাড়া আর কোনও উপাস্য নেই এবং মুহাম্মদ তাঁর রাসূল") ছিল। এগুলি সবুজ রঙের উপরের লাল রঙের আনুভূমিক ভাবে স্থাপন করা হয়েছে। এগুলি এমন রঙ যা মুসলিম বালুচ গুরুত্ব বহন করে।[১৪]

কালাতের শাসকগণ[সম্পাদনা]

কালাত শাসকদের উপাধি মূলত ওয়ালী কিন্তু ১৭৩৯ সালে বেগলার বেগী খান বা সংক্ষেপে খান উপাধি গ্রহণ করেন । শেষ কালাত খান (বেলুচি: خان قلات) বেলুচিস্তান স্টেটস ইউনিয়নের পক্ষে কাউন্সিল অফ রুলার্সের সভাপতি হওয়ার সৌভাগ্য হয়েছিল। তাদের ব্রেরহলবী উপাধি ছিল।

সময়কাল কালাতের খান[৯]
১৫১২-১৫৩০ মীর বিজর খান মিরওয়ানি
১৫৩০-১৫৩৫ মীর জাগর খান মিরওয়ানি
১৫৩৫-১৫৪৭ মীর ইব্রাহিম খান কাম্বারানী (তার রাজপরিবারের নাম পরিবর্তন করে মিরওয়ানি থেকে কাম্ব্রানীতে)
১৫৪৭-১৫৪৯ মীর গওহরাম খান কাম্বরানী
১৫৪৯-১৫৫৯ মীর হাসান খান কাম্বারানী
১৫৫৯-১৫৮১ মীর সঞ্জর খান কাম্বারানী
১৫৮১-১৫৯০ মীর মলুক খান কাম্ব্রাণী
১৫৯০-১৬০১ মীর কাম্বার সানী খান কাম্বরানী
১৬০১-১৬১০ মীর আহমদ খান কাম্বরানী আই
1610-1618 মীর সুরি খান কাম্বরানী
1618-1629 মীর কায়সার খান কাম্বরানী
1629-1637 মীর আহমদ সানী খাঁ কাম্ব্রাণী দ্বিতীয়
1637-1647 মীর আলতাজ খান কাম্বরানী আই
1647-1656 মীর কচি খান কাম্বরানী
1656-1666 মীর আলতাজ সানী খান কাম্বারানী দ্বিতীয়
1666-1695 মীর আহমাদ প্রথম খাঁন কাম্ব্রাণী তৃতীয় (তাঁর রাজপরিবারের নামটি কাম্ব্রাণী থেকে আহমেদজাই বদলে)
1695-1697 মীর মেহরাব খান আহমদজাই আই
1697-1714 মীর সমন্দর খান আহমদজাই (আমিরের আমির আল-উমারা আমির)
1714-1716 মীর আহমদ দ্বিতীয় খান আহমদজাই
1716-1731 মীর আবদুল্লাহ খান আহমদজাই (পর্বতের theগল এবং সর্বশ্রেষ্ঠ)
1731-1749 মীর মুহাব্বত খান আহমদজাই (বেগলার বেগী)
1749-1794 মীর মুহাম্মদ নাসির খান আই আহমদজাই (নূরী, গাজী, ওয়াল এবং দ্য গ্রেট)
1794-1817 মীর মাহমুদ খান আই আহমদজাই
1817–13 নভেম্বর 1839 মীর মেহরাব খান আহমদজাই দ্বিতীয়
1839-1841 মীর শাহ নওয়াজ খান আহমদজাই
1841-1857 মীর নাসির খান দ্বিতীয় আহমদজাই
1857 – মার্চ 1863 মীর খুদাদাদ খান আহমদজাই (প্রথমবার); তাঁর শাসনামলে, সাতটি বড় এবং অনেকগুলি ছোট ছোট বিদ্রোহ হয়েছিল।
মার্চ 1863 – মে 1864 মীর শেরদিল খান আহমদজাই (দখল সিংহাসন)
1864-1515 মে 1893 মীর খুদাদাদ খান (২য় বার)
10 নভেম্বর 1893 - 3 নভেম্বর 1931 মীর মাহমুদ খান দ্বিতীয় আহমদজাই
3 নভেম্বর 1931 - 10 সেপ্টেম্বর 1933 মীর মোহাম্মদ আজম জান খান আহমদজাই
10 সেপ্টেম্বর 1933 - 14 অক্টোবর 1955 মীর আহমদ ইয়ার খান আহমদজাই (প্রথমবার); ১৯৪৭ সালের ৫ আগস্ট স্বাধীন ঘোষণা করা; ১৯৪৮ সালের ৩০ মার্চ পাকিস্তানে প্রবেশ করতে রাজি হন
14 অক্টোবর 1955 কালাত রাজ্য পশ্চিম পাকিস্তানের এক ইউনিটে একীভূত হয়েছিল
20 জুন 1958 - 1979 মীর আহমদ ইয়ার খান আহমদজাই
1979-1998 মীর দাউদ জান আহমদজাই
1998-2006 মীর আগা সুলাইমান জান আহমদজাই
2006-বর্তমান যুবরাজ মীর মোহাম্মদ খান আহমদজাই

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Treaty of Kalat between Balochistan and Afghanistan in 1758
  2. "Baluchistan" Imperial Gazetteer of India Vol. 6, p. 277, from the Digital South Asia Library, accessed 15 January 2009
  3. http://thebaluch.com/documents/Nasir%20Khan%20Noori.pdf
  4. Axmann, Martin (২০১২-০৮-০২)। Back to the Future: The Khanate of Kalat and the Genesis of Baluch Nationalism, 1915-1955 (ইংরেজি ভাষায়)। OUP Pakistan। আইএসবিএন 978-0-19-906592-9 
  5. "Treaty of Kalat between Balochistan and Afghanistan in 1758" (PDF)। ৪ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৯ ডিসেম্বর ২০১৫ 
  6. "Balochistan Archives - Records of the Agent to the Governor General in Balochistan"। ৯ জুলাই ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ জুলাই ২০১৫ 
  7. IDSA News Review on South Asia/Indian Ocean। Institute for Defence Studies and Analyses। ১৯৮৭। 
  8. "Восточная Литература - библиотека текстов Средневековья"www.vostlit.info। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৭-১৬ 
  9. Naseer Dashti (৮ অক্টোবর ২০১২)। The Baloch and Balochistan: A Historical Account from the Beginning to the Fall of the Baloch State। Trafford Publishing। পৃষ্ঠা 280। আইএসবিএন 978-1-4669-5897-5। সংগ্রহের তারিখ ৬ আগস্ট ২০১৩ 
  10. Cheema, Pervaiz I.; Riemer, Manuel (১৯৯০-০৮-২২)। Pakistan's Defence Policy 1947-58 (ইংরেজি ভাষায়)। Springer। পৃষ্ঠা ৬০। আইএসবিএন 978-1-349-20942-2 
  11. Siddiqi, Farhan Hanif (২০১২)। The Politics of Ethnicity in Pakistan: The Baloch, Sindhi and Mohajir Ethnic Movements (ইংরেজি ভাষায়)। Routledge। পৃষ্ঠা ৭১। আইএসবিএন 978-0-415-68614-3 
  12. Paul, T. V. (২০১৪)। The Warrior State: Pakistan in the Contemporary World (ইংরেজি ভাষায়)। OUP USA। আইএসবিএন 978-0-19-932223-7 
  13. Long, Roger D.; Singh, Gurharpal; Samad, Yunas; Talbot, Ian (২০১৫-১০-০৮)। State and Nation-Building in Pakistan: Beyond Islam and Security (ইংরেজি ভাষায়)। Routledge। পৃষ্ঠা ৮১–। আইএসবিএন 978-1-317-44820-4 
  14. "Kalat (Baluchistan)"www.crwflags.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৭-২১ 

আরও পড়া[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

স্থানাঙ্ক: ২৯°০১′৩৩″ উত্তর ৬৬°৩৫′২৪″ পূর্ব / ২৯.০২৫৮৩° উত্তর ৬৬.৫৯০০০° পূর্ব / 29.02583; 66.59000