কামানছেহ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
উক্ত নিবন্ধনটি ইরানি কামানছেহ সম্পর্কিত। গ্রীক, তুরস্ক বা আর্মেনিয়ার একই জাতীয় ভিন্ন সরঞ্জাম দেখার জন্য Kemenche পাতাটিতে চোখ রাখুন। 
কামানছেহ
Hasht-Behesht Palace kamancheh.jpg
একজন মহিলা কামানছেহ বাজাচ্ছে, হাশত বেহেশত প্রাসাদ, ইসফাহান পারস্য, ১৬৬৯।
তথ্যসমূহ
অন্য নামকামানছা, কামানছে, কামানছেহ, কামানজাহ, কাবাক কেমানে
শ্রেণিবিভাগ নোয়ানো তার বিশিষ্ট
পাল্লা
জি৩-eএ৭
সম্পর্কিত যন্ত্র
সংগীতজ্ঞ
নির্মাতা

কামানছেহ  ( কামানছে অথবা কামানছা) (পার্সিয়ানফার্সি: کمانچه‎‎, আজারবাইজানিআজারবাইজানি: kamança) , হলো নোয়ানো তার বিশিষ্ট এক ধরণের ইরানি সংগীত সরঞ্জাম যা আরমেনিয়া, আজারবাইজান , তুরস্ক এবং কুর্দি সংগীতেও ব্যবহার করা হয় যা রেবাব ( ঐতিহাসিক কামানছেহ এবং নোয়ান বাইজেন্টাইন লাইরা এর পূর্বসূরী যা কিনা আবার ইউরোপীয় বেহালার পূর্বসূরী)  এর সাথে সম্পর্কিত।[১] এই ধনুকাকৃতির তারগুলোকে অনিয়ত (পরিবর্তনশীল) ভাবে বাজানো হয়। "কামানছেহ" শব্দটির অর্থ হলো "ছোট ধনুক", পার্সিয়ান ভাষায় ( কামান অর্থ- ধনুক এবং ছেহ অর্থ- অতি ক্ষুদ্র)।[২] ইরান, আরমেনিয়া, আজারবাইজান, উযবেকিস্তান, তুর্কমেনিস্তান এবং কুর্দিস্তান অঞ্চলের উচ্চাঙ্গ সংগীতে এই সরঞ্জামের ব্যবহার ব্যাপক ভাবে লক্ষ্য করা যায়। তবে এদের গঠনগত কিছু ভিন্নতাও পরিলক্ষিত হয়।[৩]  

আর্মেনিয়ার একজন বিখ্যাত কামানছা বাদক হলেন সায়াত-নোভা। অন্যান্য বাদকদের মধ্যে আছেন আলি আসগর বাহারি, আর্দেশির কামকার এবং কায়হান কালহোর যাদের সবাই ইরানি, এছাড়াও আজেরি বাদকদের মধ্যে রয়েছেন হাবিল আলিয়েভ। 

তুরস্কের কেমেনচে হলো বাঁকানো তাঁরের সংগীত সরঞ্জাম যার প্রায় সমার্থক নাম রয়েছে, কিন্তু পার্সিয়ান কামানছেহ এর সাথে গড়ন এবং সুরের দিক থেকে বেশ কিছু পার্থক্য লক্ষ্য করা যায়। এছাড়াও তুর্কি সংগীতে কাবাক কেমানে নামের একধরনের সরঞ্জাম রয়েছে যা পার্সিয়ান কামানছেহ এর থেকে অতটা ভিন্ন নয়।[৪] 

ইতিহাস[সম্পাদনা]

সাফাবিদ এবং ক্বাজার সময়কালে, বিভিন্ন উৎসব অনুষ্ঠানের জন্য কামানছেহ ছিল একটি অন্যতম সংগীত সরঞ্জাম। এছাড়াও, মঙ্গল এবং তৈমুরি সময়কালে এটি যুদ্ধের সময় এবং অন্যান্য উৎসব উদ্‌যাপনের সময় ব্যবহৃত হতো। ইসফাহানের চেহেল সতুন প্রাসাদের একটি দেয়াল চিত্রে দেখা যায়- একজন কামানছেহ বাদক রাজদরবারে অন্যান্য সংগীত সরঞ্জাম বাদকদের সাথে কামানছেহ বাজাচ্ছে। দ্বিতীয় শাহ আব্বাসের এক সম্ভোজন সভার দেয়ালচিত্রে (তুর্কিস্তানের আমির নাদার মোহাম্মদ খান এর সম্মানে অঙ্কিত, ১৬৪৬) এই সরঞ্জামের দেখা মিলে। এছাড়াও, ইসফাহানের হাশত বেহেশ প্রাসাদের আরেক দেয়ালচিত্রে দেখা যায় একজন মহিলা কামানছেহ বাজাচ্ছে। 

গঠন [সম্পাদনা]

কামাছেহ এর আঙ্গুলবোর্ড এর সাথে রয়েছে একটা লম্বা ঘাড় যা কামানছেহ প্রস্তুতকারী  অগ্রভাগহীন প্রতিলোম কোণে সৃষ্টি করে যাতে করে সহজেই সহজেই নিম্ন ভাগে ধনুকের নড়াচড়া করানো যায়, কীলক বাক্সের দুই পাশে চারটি কীলক আছে, এবং শীর্ষে ঐতিহাসিকভাবেই কামানছেহতে তিনটি রেশমি তার ব্যবহার করা হয়, কিন্তু আধুনিককালে কামানছেহতে চারটি ধাতব তার ব্যবহার করা হয়। অনেক কামানছেহ আছে যেগুলোর সুরের কীলকগুলো হাতি'র দাঁত দিয়ে অলংকৃত করা হয়। এর রয়েছে একটি লম্বা উচ্চতর ঘাড় (দন্ড) এবং নিম্নতর বাটি আকৃতির অনুরণন কক্ষ যা ডুগডুগি অথবা কাঠের তৈরী। এই কক্ষ সাধারাণত ভেঁড়া, ছাগল অথবা মাছের চামড়া দারা বাঁধানো থাকে যেখানে ব্রীজ (সংগীত সরঞ্জামের তারের সাঁকো) রাখা হয়। নিচের দিকে একটি বিবর্ধিত গজাল থাকে যেন কামানছেহ বাজানোর জন্য একে স্থীতিশীল রাখার অবলম্বন হিসেবে ব্যবহার করা যায়, এই কারণেই এই সরঞ্জামকে ইংরেজীতে বলা হয় গজালযুক্ত বেহালা। এটি চেলো এর মতো করে বসে বাজাতে হয় যদিও এর দৈর্ঘ্য প্রায় বেহালার সমানই হয়ে থাকে। এর সমাপ্তি-পিনটি হাঁটু বা উরুর উপর ভর দেওয়া থাকে যখন কোনো বাদক চেয়ারে বসে এটি বাজায়।   

কামানছেহ সাধারণ ভায়লিনের মতোই সাধারণত সুর তোলে (জি, ডি, এ, ই) 

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

  • নোয়ানো সরঞ্জামের তালিকা
  • ইরানের সংগীত
  • বাইজান্টেইন লাইরা
  • হায়জিয়াম
  • রেবাব
  • সিল্ক রোড এন্সেম্বল

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Iranian string instrument 'Kamancheh' to be inscribed on UNESCO list"। ১১ এপ্রিল ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ১ মে ২০১৫ 
  2. loghatnaameh.com। "کمانچه - پارسی ویکی"। ১৭ অক্টোবর ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ নভেম্বর ২০১৭ 
  3. "Pastimes of Central Asians. Musicians. A Man Practising the Kamancha, a Long-necked Stringed Instrument"World Digital Library। সংগ্রহের তারিখ ১৪ মে ২০১৪ 
  4. "Kabak kemane ve Kemancha hakkında rehber" 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]