কাথবার্ট বার্নাপ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
কাথবার্ট বার্নাপ
Cuthbert Burnup c1905.jpg
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামকাথবার্ট জেমস বার্নাপ
জন্ম(১৮৭৫-১১-২১)২১ নভেম্বর ১৮৭৫
ব্ল্যাকহিথ, কেন্ট
মৃত্যু৫ এপ্রিল ১৯৬০(1960-04-05) (বয়স ৮৪)
গোল্ডেন গ্রীন, মিডলসেক্স
ডাকনামপিঙ্কি
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৮৯৫–১৮৯৮কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়
১৮৯–১৯০৭কেন্ট
১৮৯৯–১৯০৩এমসিসি
১৯০১লন্ডন কাউন্টি
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ২২৮
রানের সংখ্যা ১৩,৬১৪
ব্যাটিং গড় ৩৬.৭৯
১০০/৫০ ২৬/৮১
সর্বোচ্চ রান ২০০
বল করেছে ৫,৮১৩
উইকেট ৯৮
বোলিং গড় ৩২.৪২
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং ৬/৩৬
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১০৭/–
উৎস: ক্রিকইনফো, ৩১ অক্টোবর ২০১৮

কাথবার্ট জেমস পিঙ্কি বার্নাপ (ইংরেজি: Cuthbert Burnup; জন্ম: ২১ নভেম্বর, ১৮৭৫ - মৃত্যু: ৫ এপ্রিল, ১৯৬০) কেন্টের ব্ল্যাকহিথ এলাকায় জন্মগ্রহণকারী বিখ্যাত শৌখিন ইংরেজ প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট তারকা ও ফুটবলার ছিলেন।[১] প্রথম-শ্রেণীর ইংরেজ কাউন্টি ক্রিকেটে কেন্টের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতেন!। ২০শ শতাব্দীর ঊষালগ্নে ক্রিকেটফুটবল উভয় খেলাতেই সিদ্ধহস্তের পরিচয় দিয়েছেন। একবার ইংল্যান্ড ফুটবল দলের পক্ষে খেলেছেন। তবে ক্রিকেট খেলার মাধ্যমেই সর্বাধিক পরিচিতি পেয়েছেন ‘পিঙ্কি’ ডাকনামে পরিচিত কাথবার্ট বার্নাপ[১] দুই শতাধিক প্রথম-শ্রেণীর খেলায় অংশ নিয়েছেন যার অধিকাংশই কেন্টের ক্রিকেট ক্লাবের পক্ষে।

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অসামান্য ক্রীড়ানৈপুণ্য প্রদর্শনের স্বীকৃতিস্বরূপ ১৯০৩ সালে উইজডেন কর্তৃক অন্যতম বর্ষসেরা ক্রিকেটারের সম্মাননায় অভিষিক্ত হন তিনি।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

তৎকালীন কেন্ট কাউন্টির নিয়ন্ত্রণাধীন লন্ডনের ব্ল্যাকহিথ এলাকায় কাথবার্ট বার্নাপের জন্ম। জে এম বার্নাপ তার পিতা ছিলেন। ম্যালভার্ন স্কুলে অধ্যয়ন করেছেন তিনি। বিদ্যালয়ে থাকাকালেই ক্রিকেট ও র ্যাকেট দলের অধিনায়কের দায়িত্বে ছিলেন।[২] ১৮৯৪ সালে কেমব্রিজের ক্লেয়ার কলেজ থেকে ফুটবলক্রিকেট খেলায় ব্লু অর্জন করেন।[৩][৪]

১৮৯৬ সাল থেকে তিন বছর কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় ক্রিকেট ক্লাবে খেলেন। তন্মধ্যে ১৮৯৬ ও ১৮৯৮ সালে বিশ্ববিদ্যালয় দলের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকে পরিণত হয়েছিলেন। এছাড়াও ১৮৯৫ থেকে ১৮৯৮ সময়কালে বিশ্ববিদ্যালয় ফুটবল দলে খেলেছেন তিনি।[৪][৫]

ফুটবলে অংশগ্রহণ[সম্পাদনা]

১৮৯৪ থেকে ১৯০১ সময়কালে করিন্থিয়ান এফসি’র পক্ষে ৭৯টি খেলায় অংশ নিয়েছেন কাথবার্ট বার্নাপ। ২৮টি গোল করেন তিনি।[২] লেফট উইংয়ে অবস্থান করতেন। খুবই দ্রুততার সাথে বলকে ড্রিবল করতেন।[২] ১৮৯৭ সালে দলের সাথে দক্ষিণ আফ্রিকা যান। একই বছরে লন্ডন চ্যারিটি কাপের শিরোপা বিজয়ে প্রভূতঃ ভূমিকা পালন করেছিলেন তিনি।[২][৬] এছাড়াও ওল্ড ম্যালভার্নিয়ান্স এফসির পক্ষে খেলেছেন।

কেমব্রিজে থাকাকালীন কাথবার্ট বার্নাপ ইংল্যান্ড দলের পক্ষে খেলার জন্যে মনোনয়ন লাভ করেছিলেন। এপ্রিল, ১৮৯৬ সালে গ্লাসগোর সেল্টিকপার্কে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে অনুষ্ঠিত খেলাটিতে ইংল্যান্ড দল ২-১ ব্যবধানে পরাজয়বরণ করেছিল। খেলাটি ১৮৯৬-৯৭ মৌসুমের ব্রিটিশ হোম চ্যাম্পিয়নশীপের অংশ ছিল ও গত বিশ বছরের মধ্যে স্কটল্যান্ডের প্রথম বিজয় ছিল।[৭] এ খেলার মাধ্যমেই শৌখিন খেলোয়াড়দের ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সাথে সম্পর্ক ছিন্ন হবার ঘোষণা দেয়। এটিই ইংল্যান্ডের পক্ষে তার একমাত্র খেলা ছিল।[৩][৮]

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

১৮৯৫ সালে ইংল্যান্ড জেন্টলম্যানের সদস্যরূপে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে কাথবার্ট বার্নাপের। লর্ডসে আই জিঙ্গারি’র সদস্য হিসেবে খেলেছিলেন তিনি।[৯] বিশ্ববিদ্যালয়ে থাকাকালেই ১৮৯৬ সালে কেন্ট কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাবের পক্ষে অভিষিক্ত হন। কাউন্টি দলটিতে ১৯০৭ সাল পর্যন্ত নিয়মিতভাবে খেলেন।[৯] কেন্টে অবস্থানকালে আট মৌসুমে সহস্রাধিক রান তুলেছেন ও ১৫৭টি খেলায় অংশ নিয়েছেন তিনি।[৩][১০]

১৮৯৬ সালে কেন্টের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে মধ্যাহ্নবিরতির পূর্বেই সেঞ্চুরি করেছেন। গ্রেভসেন্ডে গ্লুচেস্টারশায়ারের বিপক্ষে এ সেঞ্চুরিটি করেছিলেন তিনি।[১১] অত্যন্ত সতর্ক অবস্থায় ব্যাটিং উদ্বোধনে নামতেন কাথবার্ট বার্নাপ। তবে, যখনই দ্রুত রান তোলার দরকার পড়েছে তখনই যে-কোন ধরনের পিচে দ্রুততার সাথে রান তুলেছেন।[৩][৪] ১৯০০ সালে কেন্টের ইতিহাসের প্রথম দ্বি-শতক রান করার কৃতিত্ব প্রদর্শন করেছেন তিনি। ল্যাঙ্কাশায়ারের বিপক্ষে তিনি ঠিক ২০০ রানের ইনিংস উপহার দিয়েছিলেন। ১৯০২ সালে দুই সহস্রাধিক রান তুলেছিলেন তিনি।[৩][৪] ঘরোয়া ক্রিকেটে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ ১৯০৩ সালে উইজডেন কর্তৃক অন্যতম বর্ষসেরা ক্রিকেটার হিসেবে মনোনীত হন তিনি।[৪][১২] ১৮৯৯ থেকে ১৯০৩ সময়কালে কেন্টের পক্ষে একাধারে ১০২টি কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশীপের খেলায় অংশ নিয়েছিলেন তিনি। এরফলে কাউন্টি দলটির ইতিহাসে প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে ধারাবাহিকভাবে শতাধিক খেলায় অংশগ্রহণ করার গৌরবগাঁথা রচনা করেন কাথবার্ট বার্নাপ।[১৩] পূর্ববর্তী মৌসুম শেষে অধিনায়কের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নেয়া জ্যাক ম্যাসনের পরিবর্তে ১৯০৩ মৌসুমে কেন্টের পক্ষে এক মৌসুমের জন্যে অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেন তিনি।[৪]

১৯০৬ সালে কেন্টের প্রথম কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশীপের শিরোপা বিজয়ে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন। ঐ মৌসুমে মাত্র ১৩ খেলায় অংশ নিয়ে ৬৭.০৫ গড়ে ১২০৭ রান তুলেছিলেন তিনি ও ব্যাটিং গড়ে শীর্ষে ছিলেন।[১২][১৪] গার্ডিয়ানের অভিমত, তিনি বেশ ধীর স্বভাবের অধিকারী ব্যাটসম্যান যা কেন্টের ঐ মৌসুমে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক কেনেথ হাচিংসের সাথে তুলনান্তে বৈসাদৃশ্য ছিল।[১৫] ১৯০২-০৩ মৌসুমে হল্যান্ড, আমেরিকা সফরসহ লর্ড হক একাদশের সদস্যরূপে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডে গমন করেন।[২][৩]

একমাত্র প্রথম-শ্রেণীর বোলার হিসেবে এক বলে ১০ রান দিয়ে রেকর্ড বহিতে স্থান কলে নিয়েছেন কাথবার্ট বার্নাপ। ১৯০০ সালে এমসিসি বনাম ডার্বিশায়ারের মধ্যকার খেলায় মাঠের চারপাশে জাল দিয়ে আবদ্ধ রাখা অবস্থায় স্যামুয়েল হিল উড সংগ্রহ করেছিলেন।[১৬]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

কাথবার্ট বার্নাপ লন্ডনের স্টকব্রোকার ও ব্যবসায়ী ছিলেন। ১৯৬০ সালে মিডলসেক্সের গোল্ডার্স গ্রীন এলাকার নর্থ এন্ডে ৮৪ বছর বয়সে কাথবার্ট বার্নাপের দেহাবসান ঘটে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "England players: CJ Burnup"englandfootballonline। সংগ্রহের তারিখ ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  2. Corinthians – Notable Players ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২৬ অক্টোবর ২০১৮ তারিখে, Corinthian-Casuals Football Club. Retrieved 20 March 2016.
  3. Obituaries in 1960 – Burnup, Mr Cuthbert James, Wisden's Cricketers' Almanack, 1961. Available online. Retrieved 20 March 2016.
  4. Pinky Burnup – Cricketer of the Year 1903, Wisden's Cricketers' Almanack, 1903. Available online. Retrieved 20 March 2016.
  5. Venn J, Venn JA (1940) Burnup, Cuthbert James, Alumni Cantabrigienses: A Biographical List of All Known Students, Graduates and Holders of Office at the University of Cambridge, from the Earliest Times to 1900, Part II, Vol 1, p.461.
  6. Rice T, Cricinfo – Burnup and other absent friends left Kent out in the cold, CricInfo. Retrieved 20 March 2016.
  7. Murray S (2013) England v Scotland: after 141 years of rivalry, clash must rediscover its edge, The Guardian, 10 October 2013. Retrieved 5 March 2016.
  8. Pinky Burnup , Retrieved 24 September 2018
  9. First-class matches played by Cuthbert Burnup, CricketArchive. Retrieved 20 March 2016.
  10. First-class batting and fielding for each team by Cuthbert Burnup, CricketArchive. Retrieved 20 March 2016.
  11. The Maidstone Week - an interesting match, The Times, 19 July 1921, p.5.
  12. Wilde S (2013) "1903 Five cricketers of the year" in Wisden Cricketers of the Year: A Celebration of Cricket's Greatest Players, pp.46–48. (Available online. Retrieved 20 March 2016.)
  13. Geraint Jones reaches impressive County Championship milestone, Kent County Cricket Club, 3 September 2012. Retrieved 10 April 2016.
  14. First-class batting and fielding in each season by Cuthbert Burnup, CricketArchive. Retrieved 20 March 2016.
  15. Quoted in Burnton S (2016) The forgotten feats of Kenneth Hutchings, a life cruelly cut short at the Somme, The Guardian, 13 September 2016. Retrieved 13 September 2016.
  16. Lynch S (2000) Ten runs off one ball, The Guardian, 16 March 2000. Retrieved 20 March 2016.

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]