কাঠিন্য মাত্রা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

কাঠিন্য মাত্রা কোন বস্তু কি পরিমাণ শক্ত তা পরিমাপের একটি স্কেল হল কাঠিন্য মাত্রা(স্কেল)। কাঠিন্য মাত্রার প্রবর্তকের নামানুসারে এটিকে মোহসের মাত্রা বা মোহস স্কেলও বলা হয়ে থাকে।

এই মাত্রাটি প্রণয়ন করা হয়েছে কোন বস্তু অন্য কোন বস্তুতে আঁচড় কাটতে পারে, তার ভিত্তিতে। মোহসের কাঠিন্য মাত্রার কোনো একটি পদার্থ ক্রমানুসারে পূর্ববর্তী সব পদার্থের উপরে আঁচড় কাটতে পারে।

ট্যাজিকাফ্লুএফেকোটোকোডা=
১. ট্যালক
২. জিপসাম
৩. ক্যালসাইট
৪. ফ্লুওরাইট
৫. এপিটাইট
৬. ফেল্ডস্পার
৭. কোয়ার্টজ
৮. টোপাজ
৯. কোরান্বাডাম
১০. ডায়মন্ড

কাঠিন্য মাত্রার ১০টি পদার্থের তালিকা নিম্নের প্রদত্ত হলো।

Mohs hardness Mineral Absolute Hardness Image
1 ট্যালক (Mg3Si4O10(OH)2) 1 Talc block.jpg
2 জিপসাম (CaSO4·2H2O) 3 Gypse Arignac.jpg
3 ক্যালসাইট (CaCO3) 9 Calcite-sample2.jpg
4 ফ্লুরাইট (CaF2) 21 Fluorite with Iron Pyrite.jpg
5 অ্যাপাটাইট (Ca5(PO4)3(OH-,Cl-,F-)) 48 Apatite crystals.jpg
6 ফেল্ডস্পার (KAlSi3O8) 72 OrthoclaseBresil.jpg
7 কোয়ার্জ (SiO2) 100 Quartz Brésil.jpg
8 টোপাজ (Al2SiO4(OH-,F-)2) 200 Topaz cut.jpg
9 কোরান্ডাম (Al2O3) 400 Cut Ruby.jpg
10 হীরা (C) 1600 Rough diamond.jpg

এতে সবচেয়ে নরম হল ট্যালক এবং সবচেয়ে কঠিন হল ডায়মন্ড। আমাদের হাতের নখের কাঠিন্য হল ২।৫।