এস্তোনিয়া জাতীয় ক্রিকেট দল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
এস্তোনিয়া
এস্তোনিয়া ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের লোগো
এস্তোনিয়া ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের লোগো
আইসিসি সদস্যপদ অনুমোদন ২০১৭
আইসিসি সদস্য মর্যাদা সহযোগী সদস্য এবং টি২০আই স্ট্যাটাস[১]
আইসিসি উন্নয়ন অঞ্চল ইউরোপ
বিশ্ব ক্রিকেট লীগ বিভাগ
অধিনায়ক টিমোথি হিথ
কোচ স্টুয়ার্ট হুক
আনুষ্ঠানিকভাবে ১ম খেলা ২৪ জুলাই ১৯৯৯
৩০ মার্চ ২০১৯ হিসাবে

এস্তোনিয়া জাতীয় ক্রিকেট দল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলায় এস্তোনিয়ার প্রতিনিধিত্বকারী জাতীয় দল।[২] তারা ২০০৮ সালের জুন মাসে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) এর সদস্যপদ লাভ করে।

যেসকল এস্তোনীয় খেলোয়াড় আন্তর্জাতিক খেলোয়াড় হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছেন;

  • আন্দ্রেস বুরগেট
  • গ্লেবস বিহানোভস
  • আন্দ্রুস কেইমব্রে
  • ক্রিস্টজান কোগারম্যান
  • মার্ট টামোজা
  • মারিও টামোজা
  • মার্কো ভাইক
  • কাল্লে বিশালাপ্পু
  • রেমো রাউদ
  • আন্নেমারি বেসিক

এস্তোনীয় ক্রিকেটের জন্য সবচেয়ে বিখ্যাত অতিথি হলেন শেন ওয়ার্ন এবং এলিজাবেথ হার্লি। ২০১২ সালের আইসিসির একটি ইভেন্টের সমর্থনে তাঁরা সেখানে যান। ইভেন্টে স্যার টিম রাইস এবং তার দল, দ্যা হার্টএকস, দ্যা এমসিসি, দ্যা লর্ডস টাভের্নারস এবং কারমেল ও ডিস্ট্রিক্ট ক্রিকেট ক্লাব অংশ নেয়। কারমেল ও ডিস্ট্রিক্ট ক্রিকেট ক্লাব এর অধিনায়ক ছিলেন টিমোথি আব্রাহাম

২০০৭ সালে এস্তোনীয় ক্রিকেট লীগ চালু হয়। সেখানে তালিন-ভিত্তিক ৪ টি দল রাউন্ড-রবিন পদ্ধতিতে খেলত। এস্তোনীয় ক্রিকেট লীগে অংশগ্রহণ করা খেলোয়াড়রাই জাতীয় দলের জন্য নির্বাচিত হওয়ার সুযোগ পেতেন। ২০০৭ এবং ২০০৮ সালের টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হয় আন্দ্রেস বুরগেট এর দল কালেভ সিসি

২০২০ সালে ঘরোয়া লীগের পুনর্বিন্যাস করা হয়। বর্তমানে লীগে ৮ টি দল অংশগ্রহণ করে। দলগুলো হল;

  • এস্তি টাইগারস
  • তালিন হিপোজ
  • তালিন রাইজিং স্টারস
  • তালিন স্ট্যালিয়ন্স
  • তালিন স্ট্রাইকারস
  • তার্তু কেকে
  • তালিন ইউনাইটেড
  • ভাইকিং স্টারস

২০১৮ সালের এপ্রিল মাসে আইসিসি সকল টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক (টি২০আই) ম্যাচকে আন্তর্জাতিক খেলার মর্যাদা দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। ফলে ২০১৯ সালের ১ জানুয়ারি এর পরে এস্তোনিয়া এবং অন্যান্য আইসিসি সদস্য দেশের মাঝে অনুষ্ঠিত হওয়া টি২০ খেলাগুলো আন্তর্জাতিক টুয়েন্টি২০ এর মর্যাদা পায়।[৩]

তালিন হিপদ্রুমে এস্তোনিয়ার ক্রিকেট খেলা

ইতিহাস[সম্পাদনা]

  • ২০০৭ মৌসুমে খেলা সকল ম্যাচের মধ্যে ৮০ শতাংশ খেলায় এস্তোনিয়া জয়লাভ করে।
  • ২০০৮ সালে খেলা ৩৬ টি খেলার মাঝে ৩৪ টি খেলাতেই (৯৪ শতাংশ) এস্তোনিয়া জয়লাভ করে। এছাড়াও সে বছর ওয়েলসে একটি অনানুষ্ঠানিক আমন্ত্রণমূলক টুর্নামেন্টে এস্তোনিয়া অংশগ্রহণ করে জয়লাভ করে।
  • ২০০৯ সালে এস্তোনিয়া করফুতে অনুষ্ঠিত একটি ৫০ ওভারের টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ করে।
  • ২০১১ সালের মে মাসে, এস্তোনিয়া, স্লোভেনিয়ায় অনুষ্ঠিত ইউরোপীয় তৃতীয় বিভাগ টি চ্যাম্পিয়নশিপে অংশগ্রহণ করে। টুর্নামেন্টে তারা সুইডিশ জাতীয় দলের পেছনে থেকে রানার্স-আপ হয়। এই টুর্নামেন্টের একটি ম্যাচে অধিনায়ক টিম হেলথ ৪৫ বলে ১১৩ রান করেন। সে বছর আগস্ট মাসে, শেষ ওভারে লিথুনিয়াকে হারিয়ে বাল্টিক চ্যাম্পিয়ন হিসেবে বছর শেষ করে এস্তোনিয়া।
  • ২০১২ সালে এস্তোনিয়া তালিন হিপোদ্রুমে স্লোভেনিয়া এবং বুলগেরিয়াকে নিয়ে অনুষ্ঠিত একটি রাউন্ড-রবিন আইসিসি টুর্নামেন্টে জয়ী হয়। সে বছর তারা করফুতে একটি আইসিসি টি২০ টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ করে।
  • ২০১৯ সালে এস্তোনিয়া, স্পেনের লা মাগনাতে স্পেন এবং মাল্টা এর অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত ২০১৯ স্পেন ত্রিজাতীয় টি২০আই সিরিজ এ কোন ম্যাচেই জয়লাভ করতে ব্যর্থ হয়।

ঘরোয়া ক্রিকেট[সম্পাদনা]

এস্তোনীয় ঘরোয়া এবং প্রিমিয়ার লীগ প্রতিবছরই উন্নয়ন সাধন করে এবং একটি আঞ্চলিক উন্নয়ন প্রকল্প ২০১১ সালের পরবর্তী পর্যন্ত বলবৎ থাকে। ঘরোয়া লীগে এস্তোনীয় বংশোদ্ভুত খেলোয়াড়ের সংখ্যা ধীরে ধীরে বৃদ্ধি পাচ্ছে সেই সাথে আইসিসির পূর্ণসদস্যের দেশ হতে যাওয়া অভিবাসীদের সংস্পর্শে থেকে দলটি আরও অভিজ্ঞতা অর্জন করছে। অভিবাসীরা এস্তোনিয়ার ক্রিকেটের উন্নয়ন এবং নতুন ক্রিকেটারদের সাহায্য করার জন্য আগ্রহী হয়ে কাজ করছেন।

খেলোয়াড়[সম্পাদনা]

নিম্নোক্ত তালিকায় ২০১৯ স্পেন ত্রিজাতীয় টি২০আই সিরিজ এর জন্য ঘোষিত এস্তোনিয়া দলের খেলোয়াড়দের নাম রয়েছে।
  • ট্রাভিস বেজউইক
  • আকাশ চন্দ্রশেখরন
  • টিম ক্রস
  • টিমোথি ফিলার
  • শচীন এইচএম
  • স্টুয়ার্ট হুক
  • আশীষ রানা
  • ম্যালকম সেজউইক
  • আশরাফুল শুভ
  • মার্ট টামোজা
  • মার্কো ভাইক
  • কাল্লে বিশালাপ্পু
  • মশিউর রহমান

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

এস্তোনিয়া জাতীয় নারী ক্রিকেট দল

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "পরিচালনার বিস্তৃত সংস্কারের মাঝে আয়ারল্যান্ড এবং আফগানিস্তান আইসিসির নতুন পূর্ণ সদস্য হল"আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (ইংরেজি ভাষায়)। ২২ জুন ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  2. "এস্তোনীয় ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন"estoniancricket.com। সংগ্রহের তারিখ ২৫ ডিসেম্বর ২০১৬ 
  3. "আইসিসি সদস্যদের মধ্যকার সকল টি২০ ম্যাচ আন্তর্জাতিক মর্যাদা পাচ্ছে"আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (ইংরেজি ভাষায়)। ২৬ এপ্রিল ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 

উৎসসমূহ[সম্পাদনা]

  • "স্লগিং স্যা স্ল্যাভস: এ প্যারানর্মাল ক্রিকেট ট্যুর ফ্রম দ্যা বাল্টিক টু দ্যা বসফোরাস", অ্যাগনাস বেল

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]