এল রিসিটাস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
জুয়ান জোয়া বোরজা
Risitas.jpg
২০১৫ সালে তোলা জোয়ার ছবি
জন্ম
৫ এপ্রিল ১৯৫৭, সেভিল, আন্দালুসিয়া, স্পেন
মৃত্যু২৮ এপ্রিল, ২০২১, সেভিল, আন্দালুসিয়া
জাতীয়তাস্প্যানিশ
পেশাকমেডিয়ান, অভিনেতা
কর্মজীবন২০০০-২০২১
উচ্চতা১৭০ সেন্টিমিটার (৫ ফুট ৭ ইঞ্চি)

জুয়ান জোয়া বোরজা (৫ এপ্রিল ১৯৫৭- ২৮ এপ্রিল ২০২১) একজন স্প্যানিশ কমেডিয়ান ও অভিনেতা যিনি মূলত এল রিসিটাস নামে অধিক পরিচিত।[১] ২০০১ সালে স্প্যানিশ উপস্থাপক জেসাস কুইন্টেরোর একটি টেলিভিশন প্রোগ্রামের সাক্ষাৎকারে তিনি ২০১৫ সালে ইন্টারনেট মিম হিসেবে বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয়তা লাভ করেন। টেলিভিশন প্রোগ্রামটির নাম ছিল র‍্যাটোনেস কলোর‍্যাওস[২]

জীবনী[সম্পাদনা]

রিসিটাস আন্দালুসিয়ার সেভিলে ১৯৫৬ সালের ৫ এপ্রিল জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর জীবদ্দশায় তিনি বিভিন্ন পেশায় কর্মরত ছিলেন যেমনঃ রান্না করা ও সিমেন্টের থলি বহন করা।

টেলিভিশনে তাঁকে প্রথম দেখা যায় ২০০০ সালে, এল ভ্যাগামুন্ডো শোতে যেটির উপস্থাপক ছিলেন জেসাস কুইন্টারো। সেখানে জোয়া তাঁর সঙ্গী "এল পেইতো" কিংবা "এল কুনাও" এর সঙ্গে হাস্যরসাত্মক উপায়ে তাঁর জীবনের বিভিন্ন ঘটনার ব্যাপারে সাক্ষাৎকার দিচ্ছিলেন। তিনি স্মরণীয় হয়ে উঠেছিলেন তাঁর উঁচু কম্পাংকের শাঁ শাঁ ধরণের হাসির জন্য যা দ্য গার্ডিয়ান-এ লেখা হয় এভাবে "ডলফিন উইথ এ টুয়েন্টি এ ডে হ্যাবিট"। এ বিষয়টি তাঁর ডাকনেম দিয়ে দেয় " এল রিসিটাস" (ইংরেজিতেঃ মিস্টার গিগল)। জোয়াকে ২০০৫ সালের একটি চলচ্চিত্র টোরেন্টে ৩ঃ এল প্রোটেক্টর এও দেখা যায়। ২০১৫ সালের দিকে বৈশ্বিকভাবে জনপ্রিয়তা পাওয়ার পর তিনি স্পেনের বাইরেও বিভিন্ন জায়গায় কাজ করেছেন যেমন ফিনিশ (ফিনল্যান্ড) একটি বিজ্ঞাপনে তাঁকে দেখা গিয়েছে।

র‍্যাটোনেস কলোরাওস সাক্ষাৎকার মিম[সম্পাদনা]

২০০৭ সালে জেসাস কুইন্টারোর টেলিভিশন প্রোগ্রাম র‍্যাটোনেস কলোরাওসে জোয়া নিমন্ত্রিত হন ও সেখানে তিনি একটি ঘটনা বর্ণনা করেন। ঘটনাটি সেসময়ের ছিল যখন তিনি রান্নাঘরের পরিচ্ছন্নকর্মীর পেশায় ছিলেন। সে বলা শুরু করলেন, একদিন রাতে তিনি পেলা (এক প্রকার স্প্যানিশ খাদ্য) পাত্র সাগর তীরে শুকাতে ও পরিষ্কার করার জন্য রেখে দেন। সকালে যখন ফিরে আসেন পাত্রগুলি নিয়ে যাবার জন্য তখন তিনি বুঝলেন যে পাত্রগুলি সব সমুদ্রের স্রোতে ভেসে চলে গিয়েছে। এই ঘটনাটি বর্ণনা করার সময়ই তিনি তার উদ্ভট হাস্যকর ভঙ্গিতে হাসি শুরু করে দেন। সাক্ষাৎকারের সময়ের উক্ত ভিডিওটি পরবর্তীতে ২০০৭ সালের ২৫ জুনে ইউটিউবে আপলোড করা হয় এবং মিমটি জনপ্রিয় হবার ৮ বছর আগেই এটি মিলিয়নের অধিকবার দেখা হয়৷ [২] [৩]

২০১৪ সালের মার্চ মাসে ভিডিওটি মিশরের সুন্নি ইসলামিক সংস্থা দ্য সোসাইটি অফ মুসলিম ব্রাদার্স এর সদস্য কর্তৃক ব্যবহৃত হয় তৎকালীন মিশরের প্রেসিডেন্ট আব্দেল ফাত্তাহ এল সিসিকে নিয়ে ঠাট্টা করার জন্য।[৪] তখন থেকেই শুরু। এর পাশাপাশি ভিডিওটির ব্যবহার করা হয় কিছু ভিডিও গেম ও প্রযুক্তি বিষয়ক হাসি-ঠাট্টার ভিডিও নির্মাণের জন্য। [২]তন্মধ্যে সর্বাধিকবার যে ভিডিওগুলি দেখা হয় তাদের শিরোনাম ছিল মোটামুটি এরূপ- এনভিডিয়া জিফোর্স জিটিএক্স ৯৭০ গ্রাফিক্স কার্ড এর ডিজাইনার হিসেবে জোয়া, ভালভ কর্পোরেশন ডটা ২ ভিডিও গেম নিয়ে আলোচনা করছেন, ক্যানন প্রতিনিধি সি৩০০ ক্যামেরা নিয়ে আলোচনা করছেন, এক্স বক্স লাইভ কর্মী প্ল্যাটফর্মটির সিস্টেম নিয়ে আলোচনা করছেন ও চিত্রগ্রাহক রেড ক্যামেরায় ছবি তোলার কথা বলছেন। [৫]

২০১৫ সালের মার্চ মাসে মিমটি সর্বাধিক জনপ্রিয়তা অর্জন করে ম্যাকবুক এর যাত্রা শুরু করার পরে। যেখানে রিসিটাসকে প্রোটোটাইপটির একজন ডিজাইনার হিসেবে নির্দেশ করে মিম বানানো হয়। ভিডিওটি ইউটিউবে আপলোডের এক মাসের মধ্যেই এটি ৫ মিলিয়ন দর্শন অতিক্রম করে।[৬] মিমটির প্রভাব ২০০৪ সালে জার্মান চলচ্চিত্র ডাউনফলকেও প্রভাবিত করে। চলচ্চিত্রটির কিছু অংশ নিয়ে সেখানে নকল উপশিরোনাম সম্পাদনা করা হয়। [২]

২০১৫ সালের এপ্রিলে আরেকটি জনপ্রিয় মিম প্রকাশিত হয় স্লোভাকিয়া দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে যা ভাহোস্তাভ এফায়ার নামে পরিচিত। [৭]মিমটিতে জোয়াকে স্লোভাকিয়ার বিখ্যাত স্ট্যান্ড আপ কমেডিয়ান জানো গার্ডিউলিকের স্থানে দেখানো হয়।

২০১৬ সালের জুনে গ্রেট ব্রিটেনের ব্রেক্সিট সিদ্ধান্তকে ঠাট্টা করার জন্যেও সাক্ষাৎকারের ভিডিওটি ব্যবহার করা হয়, যেখানে দেখানো হয় জোয়া ডেভিড ক্যামেরনের ব্রেক্সিট অভিযানের উপদেষ্টা। [৮]

স্বাস্থ্য এবং মৃত্যু[সম্পাদনা]

২০২০ সালের সেপ্টেম্বর মাসে জোয়া সেভিলের হসপিটাল ডে লা কারিদাদ-এ ভর্তি হন। সেখানে তার রক্তনালীর চিকিৎসা করা হয় ও তাঁর একটি পা কেটে ফেলা হয়। [৯]

২০২১ সালের ২৮ এপ্রিল দুপুরে তাঁকে হসপিটাল ডে লা কারিদাদ থেকে হসপিটাল ইউনিভার্সিটারিও ভারজেন ডেল রোসিওতে স্থানান্তর করা হয়৷ ঐদিন দুপুরেই তাঁর স্বাস্থ্যের আরো অবনতি হওয়ায় ৬৫ বছর বয়সে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। [১০][১১]

চলচ্চিত্রের তালিকা[সম্পাদনা]

২০০৫ঃ টরেন্টে ৩ঃ এল প্রোটেক্টর [১২]

টেলিভিশন[সম্পাদনা]

২০০০-২০০২ঃ এল ভ্যাগামুন্ডো,[১২] চানাল ২ আন্দালুসিয়া (চ্যানেল)

২০০২-২০০৫ঃ র‍্যাটোনেস কলোরাওস, চানাল সুর টেলিভিশন [১৩]

২০০৬-২০০৭ঃ এল লকো ডে লা কলিনা, লা১ [১৩]

২০০৭-২০১২ঃ এল গাতোপার্দো, চানাল সুর। [১৩]

  1. Sevilla, Diario de (৫ এপ্রিল ২০১৯)। "El Risitas confirma que "los franceses están locos" (con él)"Diario de Sevilla 
  2. Parkinson, Hannah Jane (১৩ মার্চ ২০১৫)। "Apple engineer spoof video: is Spanish Laughing Guy the new Downfall?"The Guardian। ৩১ মার্চ ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ মার্চ ২০১৫ 
  3. El Risitas, Jesús Quintero (২৪ জুন ২০০৭)। Risitas y las paelleras [Risitas and paelleras (paella pans)] (Television production) (Spanish ভাষায়)। Spain: Canal Sur (broadcaster), video via Jesús Quintero's YouTube channel। সংগ্রহের তারিখ ১২ এপ্রিল ২০১৫  Note: The date value is the video upload date on YouTube.
  4. "Viaje a Egipto del 'Risitas' y los 'Hermanos Ubnormales'" (Spanish ভাষায়)। El Mundo। ৪ জুন ২০১৪। ২৩ জুন ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ মার্চ ২০১৫ 
  5. Hardy, Robert (১৪ মার্চ ২০১৫)। "Hilarious Parody Video: DP Discovers That He Has to Shoot on a RED Camera"। nofilmschool। ৩১ মার্চ ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ এপ্রিল ২০১৫ 
  6. "'El Risitas' sorprende en Estados Unidos como ingeniero de Apple" (Spanish ভাষায়)। Europa Press। ১২ মার্চ ২০১৫। ১৩ মার্চ ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ মার্চ ২০১৫ 
  7. a.s., Petit Press। "Fico seeks to blame Figeľ for Váhostav"। ২৭ জুন ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ জুন ২০১৫ 
  8. (Risitas Parody) Brexit, UK leaves the EU ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২৯ এপ্রিল ২০২১ তারিখে.
  9. "El Risitas, ingresado en Sevilla tras sufrir la amputación de su pierna" (Spanish ভাষায়)। ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২০। ২৯ এপ্রিল ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ 
  10. Ybarra Bores, Pedro (২৮ এপ্রিল ২০২১)। "Muere 'el Risitas'" ['El Risitas' dies]। ABC Sevilla (স্পেনীয় ভাষায়)। ২৮ এপ্রিল ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ এপ্রিল ২০২১ 
  11. "El Risitas: Man behind 'Spanish laughing guy' meme dies"BBC News (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-০৪-২৯। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৪-৩০ 
  12. "Muere el 'Risitas' con 65 años, el del famoso 'cuñaooooo'"RTVE.es (স্পেনীয় ভাষায়)। ২৮ এপ্রিল ২০২১। ২৯ এপ্রিল ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ এপ্রিল ২০২১ 
  13. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; :2 নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি