এম শামসুল ইসলাম

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এম শামসুল ইসলাম
এম শামসুল ইসলাম.jpg
মন্ত্রী
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
মার্চ ১৯৯১ - সেপ্টেম্বর ১৯৯১ (ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী)

সেপ্টেম্বর ১৯৯১ - সেপ্টেম্বর ১৯৯৩ (খাদ্য মন্ত্রী)
সেপ্টেম্বর ১৯৯৩- ১৯৯৬ (বাণিজ্যমন্ত্রী এবং তথ্যমন্ত্রী)
১০ অক্টোবর ২০০১ - ২০০২ (ভূমিমন্ত্রী)

২০০২ - ২৯ অক্টোবর ২০০৬ (তথ্যমন্ত্রী)
মুন্সিগঞ্জ-৩ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
১৯৯১ - ফেব্রুয়ারি ১৯৯৬

ফেব্রুয়ারি ১৯৯৬ - জুন ১৯৯৬
জুন ১৯৯৬ - ২০০১

২০০১ - ২০০৬
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম১ জানুয়ারি ১৯৩২
সুখবাসপুর, টংগিবাড়ী, মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলা, মুন্সিগঞ্জ জেলা, বেঙ্গল প্রেসিডেন্সি, ব্রিটিশ ভারত
(বর্তমান বাংলাদেশ)
মৃত্যু২৬ এপ্রিল ২০১৮
ঢাকার ইউনাইটেড হাসপাতাল
নাগরিকত্বব্রিটিশ ভারত (১৯৪৭ সাল পর্যন্ত)
পাকিস্তান (১৯৭১ সালের পূর্বে)
বাংলাদেশ
রাজনৈতিক দলবাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল
দাম্পত্য সঙ্গীআনোয়ারা সুফিয়া ইসলাম
সন্তানসাইফুল ইসলাম ও মোনাদির ইসলাম
পিতামাতাহাজী ওসমান গনি (পিতা)

এম শামসুল ইসলাম (জন্ম: ১ জানুয়ারি ১৯৩২- মৃত্যু: ২৬ এপ্রিল ২০১৮) একজন বাংলাদেশী রাজনীতিবিদ। তিনি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের নেতা ছিলেন। তিনি ৫ম থেকে ৮ম জাতীয় সংসদে মুন্সিগঞ্জ-৩ (গজারিয়ামুন্সিগঞ্জ সদর) আসন থেকে সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন। খালেদা জিয়া সরকারের প্রথম ও দ্বিতীয় মন্ত্রিসভায় বিভিন্ন মন্ত্রনালয়ের মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।[১][২][৩]

জন্ম ও প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

এম শামসুল ইসলামের জন্ম ১ জানুয়ারি ১৯৩২ সালে ব্রিটিশ ভারতের পূর্ব বাংলার মুন্সিগঞ্জ জেলার সদর থানার টংগিবাড়ীর সুখবাসপুরে। তিনি হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর নেতৃত্বাধীন তৎকালীন জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্টের (এনডিএফ) ঢাকা জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক এবং ওই ফ্রন্টের কেন্দ্রীয় কমিটির কার্যকরী সদস্য ছিলেন। ১৯৬৮ থেকে ১৯৭১ সাল পর্যন্ত তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান পরিবার পরিকল্পনা সমিতির সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন । বিভিন্ন মেয়াদে তিনি লায়ন্স ক্লাবের সভাপতি, সম্পাদক ও ডেপুটি গভর্নরের দায়িত্বে নিয়োজিত ছিলেন। তিনি বাংলা একাডেমি, বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি , বাংলাদেশ বক্ষব্যাধি সমিতি , বাংলাদেশ পরিবার পরিকল্পনা সমিতি, লায়ন্স ফাউন্ডেশন, বিক্রমপুর ফাউন্ডেশন ও মুন্সিগঞ্জ-বিক্রমপুর সমিতির আজীবন সদস্য ছিলেন। তিনি বিক্রমপুর ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন ।[৪][৫][৬][৭]

রাজনৈতিক ও কর্মজীবন[সম্পাদনা]

এম শামসুল ইসলাম বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। সর্বশেষে তিনি বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ছিলেন। বিভিন্ন সময়ে তথ্য, খাদ্য, ভূমি, শিল্প ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। জিয়াউর রহমান ক্ষমতায় থাকাকালীন তিনি ইন্দোনেশিয়ায় বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ছিলেন। তিনি ৫ম থেকে ৮ম জাতীয় সংসদে মুন্সিগঞ্জ-৩ আসন থেকে সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন। তিনি মার্চ ১৯৯১ থেকে সেপ্টেম্বর ১৯৯১ পর্যন্ত ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী এবং সেপ্টেম্বর ১৯৯১ থেকে সেপ্টেম্বর ১৯৯৩ পর্যন্ত খাদ্য মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯৩ থেকে ১৯৯৬ সাল পর্যন্ত তিনি বাণিজ্যমন্ত্রী এবং একই সঙ্গে তথ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ১০ অক্টোবর ২০০১ থেকে ২০০২ সাল পর্যন্ত সরকারের ভূমিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। ২০০২ সাল থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত তথ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন।[৮][৯][১০][১১][১২]

পারিবারিক জীবন[সম্পাদনা]

এম শামসুল ইসলাম দুই ছেলে এম সাইফুল ইসলাম ও মোনাদির ইসলামকে রেখে গেছেন। তার স্ত্রী জুন ২০১৫ সালে মারা যান। বড় ছেলে সাইফুল ইসলাম বিএনপির থিংক ট্যাঙ্ক সংগঠন ‘জি-নাইন’ এর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন।[১৩]

মৃত্যু[সম্পাদনা]

এম শামসুল ইসলাম ২৬ এপ্রিল ২০১৮ সালে ৮৭ বছর বয়সে ঢাকার ইউনাইটেড হাসপাতালে দীর্ঘদিন ধরে ক্যান্সারের চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।[১৪][১৫][১৬]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "বিএনপি নেতা শামসুল ইসলাম আর নেই"NTV Online। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৯-১২ 
  2. "সাবেক তথ্যমন্ত্রী এম শামসুল ইসলাম মারা গেছেন"চ্যানেল আই অনলাইন। ২০১৮-০৪-২৬। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৯-১২ 
  3. "এম শামসুল ইসলামের জানাজা সম্পন্ন"Ekushey TV। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৯-১২ 
  4. "বিএনপি নেতা এম শামসুল ইসলাম মারা গেছেন"somoynews.tv। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৯-১২ 
  5. প্রতিবেদক, নিজস্ব। "সাবেক মন্ত্রী ও বিএনপি নেতা শামসুল ইসলামের ইন্তেকাল"DailyInqilabOnline। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৯-১২ 
  6. প্রতিবেদক, জ্যেষ্ঠ; ডটকম, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর। "বিএনপি নেতা এম শামসুল ইসলামের মৃত্যু"bangla.bdnews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৯-১২ 
  7. BanglaNews24.com। "সাবেক মন্ত্রী এম শামসুল ইসলাম আর নেই"banglanews24.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৯-১২ 
  8. "৫ম জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  9. "৬ষ্ঠ জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  10. "৭ম জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  11. "৮ম জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  12. "চলে গেলেন সাবেক মন্ত্রী শামসুল"RTV Online। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৯-১২ 
  13. "সাবেক মন্ত্রী শামসুল ইসলামের স্ত্রীর মৃত্যু"বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৯-১৮ 
  14. "বিএনপি নেতা শামসুল ইসলাম আর নেই : - Poriborton"www.poriborton.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৯-১২ 
  15. "এম শামসুল ইসলাম আর নেই"মানবজমিন। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৯-১২ 
  16. "সাবেক মন্ত্রী এম শামসুল ইসলামের ইন্তেকাল"সমকাল (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৯-১২ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]