এবাদত হোসেন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
এবাদত হোসেন
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামএবাদত হোসেন চৌধুরী
জন্ম (1994-01-07) ৭ জানুয়ারি ১৯৯৪ (বয়স ২৮)
বড়লেখা উপজেলা, মৌলভীবাজার, বাংলাদেশ[১]
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি
ভূমিকাফাস্ট বোলার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ৯৫)
২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ বনাম নিউজিল্যান্ড
শেষ টেস্ট১ জানুয়ারি ২০২২ বনাম নিউজিল্যান্ড
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
২০১৭-বর্তমানমধ্যাঞ্চল ক্রিকেট দল
২০১৮-বর্তমানমোহামেডান
২০১৮রংপুর রাইডার্স
২০২০মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহী
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট প্রথম-শ্রেণী লিস্ট এ টি২০
ম্যাচ সংখ্যা ১১ ৪০ ১১ ৩৮
রানের সংখ্যা ৮৪ ১৪ ২৫
ব্যাটিং গড় ০.৫০ ২.৪৭ ৩.৫০ ৮.৩৩
১০০/৫০ ০/০ ০/০ ০/০ ০/০
সর্বোচ্চ রান ১২* ৯*
বল করেছে ১৭৪৬ ৬৩৪৪ ৪৬৬ ৮০৭
উইকেট ১৮ ১০৮ ১০ ৩৬
বোলিং গড় ৫৬.৫৫ ৩১.৬৯ ৪৬.৬০ ২৯.৩৩
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং ৬/৪৬ ৬/৪৬ ২/২৬ ৪/১৭
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১/০ ৯/০ ০/০ ৮/০
উৎস: ক্রিকইনফো, ১ জানুয়ারি ২০২২

এবাদত হোসেন (জন্ম ৭ জানুয়ারি ১৯৯৪) একজন বাংলাদেশি ক্রিকেটার[২] ২০১৬-১৭ জাতীয় ক্রিকেট লীগে সিলেট বিভাগের হয়ে ২০১৬ সালের ২৫ সেপ্টেম্বরে প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে তার অভিষেক ঘটে।[৩] ২০১৯ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তার অভিষেক ঘটে। তিনি বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর একজন সক্রিয় সৈনিক।[৪]

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

এবাদতের শৈশব কেটেছে মৌলভীবাজারের বড়লেখায়। তার বাবার নাম নিজাম উদ্দিন চৌধুরী ও মাতার নাম সামিয়া বেগম চৌধুরী। ছয় ভাই-বোনের মধ্যে এবাদত দ্বিতীয়।[১] এবাদত হোসেন চৌধুরী ২০১২ সালে বিমান বাহিনীতে সৈনিক হিসাবে যোগ দেন। সেখানেই চাকরির পাশাপাশি বিমান বাহিনীর নিয়মিত ভলিবল খেলতে শুরু করেন।[৪] ভলিবল দিয়ে ক্রীড়া জীবন শুরু করলেও, পরবর্তীতে তিনি ক্রিকেট খেলার প্রতি বেশি আগ্রহী হয়ে ওঠেন। ২০১৪ সালে সিটি ক্লাবের হয়ে ঢাকায় প্রথম বিভাগ ক্রিকেট খেলার সুযোগ পান। ২০১৬ সালে রবি পেসার হান্ট জেতেন এই ডান হাতি ফাস্ট বোলার। চূড়ান্ত পর্বে তার সর্বোচ্চ গতির বলটি ছিল ১৩৯.৯ কিমি/ঘণ্টা। সেখান থেকেই তিনি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের হাই পারফর্মেন্স ক্যাম্পে ডাক পান।[৫] ২০১৬ সালের নভেম্বরে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের নিউজিল্যান্ড সফরের আগে অস্ট্রেলিয়া প্রশিক্ষণের জন্য ‘শিক্ষানবিশ' হিসেবে অন্তর্ভুক্ত হন তিনি।[৬]

ঘরোয়া ক্রিকেট[সম্পাদনা]

২০১৬ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬-১৭ জাতীয় ক্রিকেট লীগে সিলেট বিভাগের হয়ে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অভিষেক হয় এবাদতের।

২০১৮ সালের ৮ মে, ২০১৬-১৭ ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লীগে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের হয়ে লিস্ট এ ক্রিকেটে তার অভিষেক হয় এবাদতের।[৭] তার টুয়েন্টি২০-তে অভিষেক হয় ২০১৭ সালের ৬ নভেম্বরে ২০১৭-১৮ বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগে রংপুর রাইডার্স-এর হয়ে।[৮]

২০১৭-১৮ বাংলাদেশ ক্রিকেট লীগে তিনি মধ্যাঞ্চল দলের হয়ে সর্বোচ্চ উইকেট শিকার করেন। এতে ৩ ম্যাচে ৬ ইনিংসে ১৩ উইকেট লাভ করেন।[৯]

২০১৮ সালের অক্টোবরে ২০১৮-১৯ বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগে তিনি সিলেট সিক্সার্সের হয়ে খেলেন।[১০]

২০২০ সালের নভেম্বরে, ২০২০-২১ বঙ্গবন্ধু টি২০ কাপ প্রতিযোগিতা শুরুর পূর্বে ১২ নভেম্বর অনুষ্ঠিত খেলোয়াড় নিলামে মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহী তাকে কিনে নেয়।[১১]

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে তিনি নিউজিল্যান্ড সফরে বাংলাদেশের টেস্ট দলে যুক্ত হন।[১২] ২০১৯ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি, নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট অভিষেক ঘটে এবাদত হোসেনের এবং তার প্রথম টেস্ট উইকেট হিসেবে তিনি নিল ওয়াগনারের উইকেট লাভ করেন।

২০২২ সালের জানুয়ারিতে, এবাদত বে ওভালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিপক্ষীয় সিরিজের প্রথম টেস্টে প্রথমবারের মত পাঁচ উইকেট শিকার করেন। ক্রিকেটের যেকোনো ফরম্যাটে বাংলাদেশকেে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তাদের নিজস্ব মাঠে প্রথম জয় পেতে অগ্রণী ভূমিকা রাখেন এবং ম্যাচসেরা হন। বিদেশের মাটিতে প্রথম বাংলাদেশি পেসার হিসেবেও ম্যাচসেরা হন তিনি।[১৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "এবাদতের গ্রামের বাড়িতে বইছে আনন্দের বন্যা"দৈনিক সমকাল। সংগ্রহের তারিখ ৫ জানুয়ারি ২০২২ 
  2. অয়নী, তাহসিনা (৪ জানুয়ারি ২০২২)। "পেস বোলিংয়ে উন্নতি করতে আমরা এখনো শিখছি : এবাদত"বিডিক্রিকটাইম। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০২২ 
  3. "National Cricket League, Tier 2: Rajshahi Division v Sylhet Division at Rajshahi, Sep 25-28, 2016"ক্রিকইনফো। সংগ্রহের তারিখ ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  4. "এবাদত হোসেন : বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ পেসার!"কালের কণ্ঠ। ৪ অক্টোবর ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০২২ 
  5. "এবাদত হোসেন যেভাবে ভলিবল খেলোয়াড় থেকে টেস্ট জয়ের নায়ক হয়ে উঠলেন"বিবিসি বাংলা। সংগ্রহের তারিখ ৫ জানুয়ারি ২০২২ 
  6. "Bangladesh include Mustafizur in preparatory squad"ক্রিকইনফো। সংগ্রহের তারিখ ৪ নভেম্বর ২০১৬ 
  7. "Dhaka Premier Division Cricket League, Abahani Limited v Mohammedan Sporting Club at Savar (4), May 8, 2017"ক্রিকইনফো। সংগ্রহের তারিখ ৮ মে ২০১৭ 
  8. "41st match, Bangladesh Premier League at Dhaka, Dec 6 2017"ক্রিকইনফো। সংগ্রহের তারিখ ৬ নভেম্বর ২০১৭ 
  9. "Bangladesh Cricket League 2017/18, Central Zone: Batting and Bowling Averages"ক্রিকইনফো। সংগ্রহের তারিখ ২৭ এপ্রিল ২০১৮ 
  10. "Full players list of the teams following Players Draft of BPL T20 2018-19"বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। সংগ্রহের তারিখ ২৯ অক্টোবর ২০১৮ 
  11. "Dhaka pick Mushy, Shakib landed by Khulna"The Daily Star। ১২ নভেম্বর ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২১ নভেম্বর ২০২০ 
  12. "Shafiul, Ebadot replace injured Taskin in ODI, Test squads"ক্রিকইনফো। সংগ্রহের তারিখ ৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  13. "নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে বাংলাদেশের ইতিহাস"দৈনিক সমকাল (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৫ জানুয়ারি ২০২২ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]