এন্টিট্রাস্ট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
এন্টিট্রাস্ট
Antitrust poster.jpg
চলচ্চিত্রের পোস্টার
পরিচালক পিটার হুইট
প্রযোজক ডেভিড হুবারম্যান
অশোক অম্রিতাজ
সি.ও. এরিকসন
জুলিয়া চেসম্যান[১]
রচয়িতা হাওয়ার্ড ফ্রাঙ্কলিন
অভিনেতা রায়ান ফিলিপ
টিম রবিন্স
রিচ্যাল লি কোক
ক্ল্যারি ফোর্লানি
সুরকার ডন ডেভিস[১]
সম্পাদক জাস স্টেইনবার্গ[১]
স্টুডিও কাব টু প্রোডকসন্স
ইন্ড্রাস্ট্রি এন্টারটেইনমেন্ট
হাইদি পার্ক এন্টারটেইনমেন্ট[১]
পরিবেশক মেট্রো-গোল্ডউইন-মেয়ার[১]
মুক্তি জানুয়ারি ১২, ২০০১ (২০০১-০১-১২)
দৈর্ঘ্য ১১০ মিনিট
দেশ যুক্তরাজ্য
ভাষা ইংরেজি
আয় $১৮,১৯৫,৬১০[২]

এন্টিট্রাস্ট (কনসপাইরেসি.কম[৩] ও স্টার্টআপ[৪] নামেও পরিচিত) ২০০১ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত আমেরিকান সাইবার-থ্রিলার চলচ্চিত্র। চলচ্চিত্রটির কাহিনী লিখেছেন হাওয়ার্ড ফ্রাঙ্কলিন ও পরিচালনা করেছেন, পিটার হুইট। [১] ছবিটিতে কিছু তরুন পোগ্রামারদের নার্ভ নামে একটি বড় সফ্ট্যায়ার কম্পানিতে কাজ করতে দেখা যায়।

কাহিনী[সম্পাদনা]

গ্যারি উইনস্টন, নার্ভ নামক সফ্টয়ার কম্পানির মালিক। তাদের নতুন প্রোগ্রাম সিনাপ্স্ চালো করার জন্য কিছু প্রোগরামারের দরকার পরে। গ্যারি কম্পিউটার সাইন্স এর দুই ছাএ মাইলো (রায়ান ফিলিপ) ও টেডিকে তার কম্পানিতে কাজ করার প্রস্তাব দেয়। কিন্তু মাইলো আগ্রহ প্রকাশ করলেও টেডি অনিহা প্রকাশ করে। এদিকে মাইলোকে পুলিশ ডিপার্টমেন্টও তাদের হয়ে কাজ করার জন্য প্রস্তাব দেয়। কিন্তু মাইলো পুলিশের প্রতিনিধি বার্টনের কাছে প্রস্তাব ফিরিয়ে দেয় এবং নার্ভে যোগদান করে। মাইলো একদিন তার অফিসে কাজ করছিল এমন সময় গ্যারি একটি সফ্ট্যায়ার নিয়ে আসে ও মাইলোকে দেখতে বলে। ঠিক তখনই টেলিভিশনে দেখায় ওইলিয়াম সাদ নামে পোর্টল্যান্ডের এক সফ্ট্যায়ার ইন্জিনিয়ার সড়ক দূর্ঘটনায় মারা গেছে।

গ্যারির অফিসে মাইলোর সাথে কথা বলার সময় গ্যারি আর একাট সফ্ট্যায়ারের নমুনা দেখায়। মাইলো কোডগুলো কে লিখেছে জিগ্গাস করলে গ্যারি রেগে যায়। এদিকে হঠাৎ একদিন মাইলোর বন্ধু টেডি খুন হয়। মাইলো খুনের স্থান দেখতে গিয়ে টেডির ঘরে একটি অপটিক ফাইবার পায় যেটা সিসি ক্যামেরার কত কাজ করে। ঠিক তার পরের দিনই গ্যারি একটি নতুন নমুনা নিয়ে হাজির হয়। কথা বলার সময় মাইলোর গ্যারিকে সন্দেহ হয়। তারপর থেকে সে বিভিন্ন ভাবে তথ্য জানার চেষ্ঠা করে। একসময় মাইলো ভিডিও ফুটেজ দেখে নিশ্চিত হয এর সাথে গ্যারি জড়িত সেই সাথে তার স্ত্রী লিসাও জড়িত। অবশেষে মাইলো তার বন্ধুর সহয়তায় সিন্প্স্ এর সোর্স কোড ফাঁস করে দেয়। সেই সাথে এফবিআই গ্যারি উইনস্টনকে গ্রেফতার করে।

শ্রেষ্ঠাংশে[সম্পাদনা]

  • রায়ান ফিলিপ – মাইলো হফম্যান
  • রিচ্যাল লি কোক – লিসা কলিগান
  • ক্ল্যারি ফোর্লানি – এলিস পলসন
  • টিম রবিন্স – গ্যারি উইনস্টন
  • ডগলাস ম্যাকফেরান – বব সর্ট
  • রিচার্ড রানটি – লেলি বার্টন
  • টেগ রানিয়ান – ল্যারি ব্যাঙ্কস
  • ইয়ে জি টিসো – টেডি চিন
  • নাতে দাসকো – ব্রেইন বিসেল
  • নেড বেলামাই – ফিল গ্রিমিস
  • টেইলর লেবেইন – রেডমন্ড সমিচিন
  • স্কট বিল – রেন্ডি
  • ডেভিড লভগ্রিন – ড্যানি

ডিভিডি[সম্পাদনা]

এন্টিট্রাস্টের স্পেশাল ইডিসনের ভিডিও ডিভিডিতে ১৫ মে, ২০০১ সালে[৫] এবং ভিএইসএস এ ২৬ ডিসেম্বর, ২০০১ সালে মুক্তি পেয়েছিল।[৬] ডিভিডিতে পরিচালক ও প্রযোজকের বাণী ছাড়াও একটি ভিডিও গান ছিল। ১ আগস্ট ২০০৬ সালে ডিভিডিটি পুনরায় মুক্তি দেওয়া হয়।[৭]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Antitrust (2001) - Cast and Credits"Yahoo! Movies। Yahoo। 
  2. "Antitrust (2001)"Box Office Mojo। Box Office Mojo LLC। সংগৃহীত ২০০৮-০২-২৬ 
  3. "conspiracy.com" (german language ভাষায়)। OutNow.CH। ২০০১-০২-০৬। সংগৃহীত ২০১৩-০৫-১৮ 
  4. "Filmlexikon FILME von A-Z - startup" (german German ভাষায়)। ৯ ফেব্রুয়ারি ২০০৮-এ মূল থেকে আর্কাইভ। সংগৃহীত ২০০৮-০২-২৬ 
  5. "Antitrust (2001)"। Amazon.com। 
  6. "Antitrust (2000)"। Amazon.com। 
  7. "Antitrust - Special Edition (DVD)"। CinemaClock Canada Inc.। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]