এক্সপ্রেস ট্রেন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

এক্সপ্রেস ট্রেন হল এক ধরনের যাত্রীবাহী ট্রেন যা তার উৎপত্তিস্থল এবং গন্তব্য স্টেশনগুলির মধ্যে অল্প সংখ্যক যাত্রাবিরতি দেয়। মেইল ট্রেন ও এক্সপ্রেস ট্রেনগুলি একই ধরনের হয়।[১][২] এক্সপ্রেস ট্রেনগুলি যাত্রাপথে অধিকাংশ বা সমস্ত স্টেশনে বিরতি দেয় এমন লোকাল ট্রেনগুলির তুলনায় দ্রুত পরিষেবার প্রদান করে।

লালগুলো হচ্ছে লোকাল ট্রেন, নীল গুলো হচ্ছে এক্সপ্রেস ট্রেন

কখনও কখনও এগুলিকে দ্রুত ট্রেন হিসাবে উল্লেখ করা হয়, যার অর্থ তারা একই রুটের অন্যান্য ট্রেনের চেয়ে দ্রুত চলে। যদিও অনেক উচ্চ-গতির রেল পরিষেবা এক্সপ্রেস, তবে সমস্ত এক্সপ্রেস ট্রেন অন্যান্য পরিষেবার তুলনায় দ্রুত নয়। ১৯ শতকের যুক্তরাজ্যের প্রথম দিকের ট্রেন এক্সপ্রেস ট্রেন হিসাবে শ্রেণীবদ্ধ করা হয়েছিল যতক্ষণ না তাদের যাত্রার গতি ঘণ্টায় ৪০ মাইল (৬৩কিমি/ঘণ্টা) ছিল। এক্সপ্রেস ট্রেনে কখনও কখনও অন্যান্য রুটের তুলনায় বেশি ভাড়া থাকে এবং রেল পাস বহনকারীদের অতিরিক্ত ফি দিতে হতে পারে। প্রথম শ্রেণীর চেয়ার উপলব্ধ হতে পারে। কিছু এক্সপ্রেস ট্রেনের রুট লোকাল ট্রেন পরিষেবার সাথে ওভারল্যাপ করে লাইনের শেষ প্রান্তের কাছাকাছি স্টেশনগুলিতে থামতে পারে।

এক্সপ্রেস ও মেইল ট্রেনের পার্থক্য[সম্পাদনা]

এক্সপ্রেস ও মেইল ট্রেনে বর্তমানে আর পার্থক্য না থাকলেও এক সময়ে ছিল। তখন মেল গাড়ির বাকি কামরার সঙ্গে ডাক বাক্সের রঙের মতো একটি লাল রঙের কামরা যুক্ত থাকত। কামরার বাইরে লেখা থাকত আর এম এস বা রেলওয়ে মেল সার্ভিস। ভারতীয় ডাক বিভাগের সঙ্গে ভারতীয় রেলওয়ের যৌথ সহযোগিতায় চিঠিপত্রের আদান-প্রদান চলত এই কামরার মাধ্যমে। তখন যে ট্রেনের সঙ্গে এই কামরা যুক্ত থাকত তারা একটু কুলিন পর্যায়ের ছিল। তবে সেই কৌলিন্যের দিন এখন আর নেই। এখন এক্সপ্রেস ও মেইল ট্রেনে কোনও তফাৎ নেই। আবার এখন এমনও এক্সপ্রেস ট্রেন আছে যাতে আর এম এস কামরা আছে। মোটামুটি ভাবে গত শতকের ৭০ দশকের পর থেকে মেল ট্রেনের সঙ্গে বিশেষ ভাবে আর এম এস কামরা যুক্ত হওয়ার বিষয়টি উঠে যেতে শুরু করে এবং প্রয়োজনের নিরিখে এক্সপ্রেস ট্রেনের সঙ্গেও আর এম এস যুক্ত হতে থাকে। তাই আজকের দিনে এই দুই ট্রেনে কোনও তফাৎই নেই।

তথ্যসুত্র[সম্পাদনা]

  1. "মেল-এক্সপ্রেস ট্রেন চালু হতেই হইচই আর যাত্রীর ভিড়ে ছন্দে ফিরল রেলস্টেশন"Hindustantimes Bangla। ২০২০-০৬-০১। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০১-২৮ 
  2. BonikBarta। "বিভিন্ন রুটে কমিউটার মেইল, এক্সপ্রেস ও লোকাল ট্রেন চলবে"বিভিন্ন রুটে কমিউটার মেইল, এক্সপ্রেস ও লোকাল ট্রেন চলবে (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০১-২৮