এক্সট্র্যাকশন (২০২০-এর চলচ্চিত্র)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
এক্সট্র্যাকশন
এক্সট্র্যাকশন.webp
অফিসিয়াল মুক্তিপ্রাপ্ত পোস্টার
পরিচালকস্যাম হারগ্রেভ
প্রযোজক
রচয়িতাজো রুশো
কাহিনীকার
  • অ্যান্ডি পার্কস
  • জো রুসো
  • অ্যান্টনি রুসো
উৎসঅ্যান্ডি পার্কস
জো রুসো
ফার্নান্দো লেওন গঞ্জালেজ কর্তৃক 
সিউদাদ
শ্রেষ্ঠাংশে
সুরকারহেনরি জেকম্যান
জুলিয়াস প্যাকিয়াম
চিত্রগ্রাহকনিউটন থমাস সিগেল
বিশাল সিনহা
সম্পাদকস্টান সেলফাস
প্রযোজনা
কোম্পানি
  • এজিবিও
  • থিম্যাটিক এন্টারটেইনমেন্ট
  • ইন্ডিয়া টেক ওয়ান প্রোডাকসন্স
  • টি.জি.আই.এম. ফিল্মস
পরিবেশকনেটফ্লিক্স
মুক্তি২৪ এপ্রিল ২০২০ (মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র)
দৈর্ঘ্য১১৭ মিনিট
দেশমার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
ভাষা
নির্মাণব্যয়$৬.৫ কোটি

এক্সট্র্যাকশন (অর্থ "বের করে আনা") হলো ২০২০ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত একটি মার্কিন অ্যাকশন রোমাঞ্চকর চলচ্চিত্র, যা পরিচালনা করেছেন স্যাম হারগ্রেভ ও চিত্রনাট্য রচনা করেছেন জো রুশো। চলচ্চিত্রটি অ্যান্ডি পার্কস, জো রুশো, অ্যান্টনি রুসো, ফার্নান্দো লেওন গনজালেজ এবং এরিক স্কিলম্যানের সিউদাদ নামক কমিকের উপর ভিত্তি করে তৈরি। [২][৩] চলচ্চিত্রটিতে উল্লেখযোগ্য চরিত্রে অভিনয় করেছেন ক্রিস হেমসওর্থ, রণদীপ হুদা, ডেরেক লিউক ও ডেভিড হার্বার। চলচ্চিত্রটির কাহিনী আবর্বিত হয় একজন ভাড়াটে ব্ল্যাক অপ্স সৈনিককে কেন্দ্র করে, যাকে অবশ্যই বাংলাদেশের ঢাকায় অপহৃত হওয়া ভারতীয় ড্রাগ লর্ডের ছেলেকে উদ্ধার করতে হবে।

চলচ্চিত্রটির পরিবেশনার কাজ করে মার্কিন অনলাইন চলচ্চিত্র স্ট্রিমিং এবং প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান নেটফ্লিক্স। এটি ২০২০ সালের ২৪ এপ্রিল নেটফ্লিক্সে মুক্তি পায়। এটি সমালোচকদের কাছ থেকে মিশ্র প্রতিক্রিয়া পায়, যারা হেমসওর্থের অভিনয় এবং স্টান্ট কাজের প্রশংসা করে, তবে গল্প এবং অতিরিক্ত সহিংসতার জন্য সমালোচিত হয়।

কাহিনী[সম্পাদনা]

একজন ভারতীয় ব্যবসায়ীর পুত্রকে অপহরণ করে বাংলাদেশের ঢাকায় আটকে রাখা হয়।[৪] তাকে উদ্ধার করতে একজন ভাড়াটে সৈন্যকে নিয়োগ করা হয়।[৫] তারপর ছেলেটিকে উদ্ধার করতে চলতে থাকে একের পর এক অভিযান।

অভিনয়[সম্পাদনা]

নির্মাণ[সম্পাদনা]

৩১শে আগস্ট ২০১৮ সালে ঢাকা চলচ্চিত্রটির তৈরির ঘোষণা দেয়া হয়।[৬] সাথে সাথে এটাও ঘোষণা করা হয় যে, ক্রিস হেমসওর্থ এর প্রধান চরিত্রে অভিনয় করবেন। ২০১৮ সালের নভেম্বরে অন্যন্য চরিত্র নির্ধারণ করা হয়।[৭][৮]

একই বছরের নভেম্বরের শুরু থেকে ২৯ নভেম্বর পর্যন্ত ভারতের আহমেদাবাদমুম্বাইয়ে চলচ্চিত্রটির দৃশ্য ধারণ করা হয়।[৮][৯] এর পরবর্তী দৃশ্যায়ন হয় থাইল্যান্ডে এবং প্লেটশট ধারণ করার হয় বাংলাদেশে। সিনেমার কাহিনী ঢাকা কেন্দ্রিক হলেও ঢাকার কোন শুটিং হয়নি। ঢাকার প্লেট শটে নিয়ে তাতে ক্রোমায় বসিয়ে দেয়া হয়েছে অভিনেতাদের। ভারতের আহমেদাবাদে পুরান ঢাকার আদলে শুটিং স্পট বানানো হয়েছিল।[১০] ২০১৯ সালের মার্চে এর মূল সৃজন শেষ হয়।[১১][১২] ২০২০ সালের ১৯ ফেব্রুয়ারি এক্সট্র্যাকশন নাম চূড়ান্ত হওয়ার আগ পর্যন্ত এর নাম পরিবর্তন করে আউট অব দ্যা ফায়ার রাখা হয়েছিল।

বাংলাদেশের অংশগ্রহণ[সম্পাদনা]

চলচ্চিত্রটিতে ঢাকার সংস্কৃতি চিত্রায়ণের জন্য একজন ভারতীয় পরামর্শক নিয়োগ করা হয়। বাংলাদেশী অংশগ্রহণ হিসেবে রয়েছেন অভিনেতা তারিক আনাম খান[১৩][১৪] ও তাঁর প্রতিষ্ঠান এবং ভিএফএক্সে অস্কার মনোনীত চলচ্চিত্রে কাজ করা ওয়াহিদ ইবনে রেজা[১৫] তারিক আনাম খান ও তাঁর প্রতিষ্ঠানের কাজ ছিল চলচ্চিত্রের প্রায় সব কাজ শেষ হবার পর নির্মাতাদের ছোট একটি দল ঢাকায় প্লেটশটের জন্য এলে তার ব্যবস্থাপনা করা। অপরদিকে ওয়াহিদ ইবনে রেজাকে পরামর্শক হিসাবে নিযুক্ত করা হয়। তার মূল কাজ ছিল বাংলা ও হিন্দি সাবটাইটেলের ইংরেজি ভাবানুবাদ করা। এছাড়াও তিনি অভিও-ভিজুয়াল অসামঞ্জস্য খুঁজে বের করার দায়িত্বেও ছিলেন। তিনি সংলাপের সঙ্গে সাবটাইটেলের অমিল খুঁজে বের করেন, অতিরিক্ত ডাবিং সেশনের সময় বাংলা সংলাপে সাহায্য করেন। এছাড়াও সিনেমার শেষ অংশে বাংলা হিপ হপ গানের গায়কদের সাথে প্রোডাকশন ব্যবস্থাপকদের যোগাযোগ স্থাপন করতে সাহায্য করেন। এছাড়াও তিনি অনলাইনে কলকাতার দুজন বাঙালি কণ্ঠশিল্পী এবং মুম্বাইয়ের দুজন বাংলা না জানা অবাঙালি কণ্ঠশিল্পীকে সংলাপের বাংলা বলে দেন। [১৬][১৭]

বিতর্ক[সম্পাদনা]

চলচ্চিত্রটি ঢাকাভিত্তিক গল্পের ওপর নির্মিত জানতে পারার পর বাংলাদেশী চলচ্চিত্র ভক্তদের ভেতর বেশ আগ্রহ তৈরি হয়।[১৮][১৯][২০] কিন্তু মুক্তির পর বাংলাদেশী দর্শকদের কাছ থেকেই ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়ে। বাংলাদেশের দর্শকদের অভিযোগ, চলচ্চিত্রটিতে বিপুল পরিমাণ দৃষ্টিকটু ভুল বাংলা বানান, বাংলা উচ্চারণ এর মানকে প্রশ্নবিদ্ধ করে, বাংলাদেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পোশাকের ভুল চিত্রায়ণ নির্মাতাদের কাজে অবহেলাকে নির্দেশ করে। তাছাড়া এতে দেখানো সিএনজি অটোরিক্সার গায়ে লেখা ভুল বাংলা ('আল্লাহ সর্বশক্তিমান' এর স্থলে 'আল্লাহ সার্ভ শক্তিমান'), রাতের বেলা বাংলা নববর্ষের উৎসব, ঢাকার রাস্তায় মাফিয়া দলের শিশু যোদ্ধাদের ভারী আগ্নেয়াস্ত্র হাতে বাধাহীনভাবে ঘুরে বেড়ানো বাংলাদেশের দর্শকরা মেনে নিতে পারেননি। [১০] [২১][২২][২৩][২৪][২৫][২৬][২৭]
বাংলাদেশী অভিনেত্রী মৌটুসী বিশ্বাস ও চিত্রনাট্যকার গাউসুল আলম শাওন ঢাকার এধরনের উপস্থাপনাকে নেতিবাচক ও দৃষ্টিকটু হিসেবে মত দিয়েছেন। তবে পরিচালক রেদওয়ান রনি একে নেতিবাচক বললেও এধরনের বিষয়কে গুরুত্ব না দিয়ে নিজস্ব চলচ্চিত্রের মানোন্নয়নের মাধ্যমে বিশ্বে বাংলাদেশের পরিচয় তুলে ধরার দিকে গুরুত্ব দিয়েছেন। আর তারিক আনাম খান দর্শকদের এধরনের অভিযোগ সমর্থন না করলেও চলচ্চিত্রটির জন্য শেষে ঢাকায় না আসলেও হতো বলে জানান।[১৬]
তবে বিশ্লেষকদের মতে এই আলোচনা সমালোচনা ও বিতর্কই চলচ্চিত্রটির খ্যাতি ও সাফল্যের অন্যতম কারণ হিসেবে কাজ করেছে। প্রথম সপ্তাহেই এটি নেটফ্লিক্সের আগের সমস্ত রেকর্ড ভেঙে প্রায় নয় কোটি পরিবারে পৌঁছে গেছে। [২৮][২৯] এদিকে তুমুল আলোচনার ভেতরেই নির্মাতারা চলচ্চিত্রটির সিকুয়েল এক্সট্র্যাকশন টু নির্মাণের ঘোষণা দেন। ক্রিস হেমসওর্থকেই এতে মূখ্য ভূমিকায় আবারো পাওয়া যাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। [৩০][৩১][৩২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. https://www.nytimes.com/2020/04/24/movies/extraction-review.html
  2. "Busy AGBO Sets India Kidnap Drama 'Dhaka' At Netflix: Chris Hemsworth Stars & Sam Hargrave Helms Joe Russo Script"। আগস্ট ৩০, ২০১৮। 
  3. "ছবির নাম 'ঢাকা', নায়ক হেমসওর্থ"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  4. "'ঢাকা' ছবিতে 'থর' অভিনেতা ক্রিস হেমসওর্থ"বাংলাদেশ টুডে। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  5. "বাংলাদেশ নিয়ে নির্মিত হচ্ছে হলিউড চলচ্চিত্র 'ঢাকা'"ঢাকা ট্রিবিউন। ১৩ নভেম্বর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  6. "হলিউডের সিনেমা 'ঢাকা' নায়ক ক্রিস হেমসওর্থ"। বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  7. "David Harbour Joins Chris Hemsworth in Russo Brothers Action Movie 'Dhaka' (Exclusive)"। নভেম্বর ১৬, ২০১৮। 
  8. Russo Brothers Wrap Indian Leg Of Netflix Pic ‘Dhaka’ With Chris Hemsworth, David Harbour, Golshifteh FarahaniNetflix https://deadline.com/2018/11/netflix-chris-hemsworth-dhaka-india-golshifteh-farahani-russo-brothers-1202510896/ Russo Brothers Wrap Indian Leg Of Netflix Pic ‘Dhaka’ With Chris Hemsworth, David Harbour, Golshifteh FarahaniNetflix |ইউআরএল= এর মান পরীক্ষা করুন (সাহায্য)  |শিরোনাম= অনুপস্থিত বা খালি (সাহায্য)
  9. "নেটফ্লিক্সের ছবি ঢাকা-র শুটিংয়ে আমেদাবাদে ক্রিস হেমসওর্থ"ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস। ৫ নভেম্বর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  10. "এক্সট্রাকশন দেখতে পারেন; 'এক্সপেকটেশন' ছাড়া"প্রথম আলো। ২০২০-০৪-২৬। ২০২০-০৪-২৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৪-২৬ 
  11. Kit, Borys (আগস্ট ৩০, ২০১৮)। "Chris Hemsworth to Star in Action Thriller 'Dhaka' for the Russo Bros"The Hollywood Reporter। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ৯, ২০২০ 
  12. "Chris Hemsworth begins shooting for Netflix film 'Dhaka' in India"New Indian Express। নভেম্বর ৫, ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ৯, ২০২০ 
  13. "‘অ্যাভেঞ্জার্স’ থেকে ‘এক্সট্র্যাকশন’", দৈনিক প্রথম আলো, ২৩ এপ্রিল, ২০২০ খ্রি.।
  14. "এক্সট্র্যাকশন: প্যারাগুয়ে ছেড়ে গল্প কেন বাংলাদেশে?", দেশ রূপান্তর, ২৪ এপ্রিল, ২০২০ খ্রি.।
  15. "ঢাকা কেন্দ্রিক হলিউডের ‘এক্সট্র্যাকশন’", দৈনিক ভোরের কাগজ, ১লা এপ্রিল, ২০২০ খ্রি.।
  16. "‘এক্সট্র্যাকশন’ নিয়ে তোলপাড়", দৈনিক প্রথম আলো, ৩০ এপ্রিল, ২০২০ খ্রি.।
  17. "যেভাবে নেটফ্লিক্সের ‘এক্সট্রাকশন’-এ", দৈনিক প্রথম আলো, ৯ এপ্রিল, ২০২০ খ্রি.।
  18. "First stills of Chris Hemsworth movie set in Dhaka released", The Daily Star, 19 February, 2020.
  19. "Of Extraction and Yellow Filters", The Daily Star, 23 April, 2020.
  20. "A bleak and inaccurate Dhaka, but Dhaka nonetheless", The Daily Star, 9 April, 2020.
  21. "Extraction: A white man’s rescue mission in a filthy South Asian city", The Daily Star, 27 April, 2020.
  22. "এক্সট্র্যাকশন: বাংলাদেশের বিপজ্জনক পরিচয়", দৈনিক প্রথম আলো, ৪ মে, ২০১০ খ্রি.।
  23. "হলিউড মুভি ‘এক্সট্র্যাকশন’ নিয়ে সমালোচনার ঝড়", বৈশাখী টিভি অনলাইন, ২৫ এপ্রিল, ২০২০ খ্রি.।
  24. "ঢাকা ও মুম্বাইয়ের প্রেক্ষাপটে তৈরি নেটফ্লিক্সের সিনেমা 'এক্সট্র্যাকশন' নিয়ে বাংলাদেশে কেন এত সমালোচনা", বিবিসি বাংলা, ২৬ এপ্রিল, ২০২০ খ্রি.।
  25. "এক্সট্র্যাকশন': দেখা থেকে পাঠকের লেখা", দৈনিক প্রথম আলো, ৩০ এপ্রিল, ২০২০ খ্রি.।
  26. "The ‘Extraction’ Attraction", The Daily Star, 3 May, 2020.
  27. "Bangladesh according to Hollywood: Govt should take measures to stop misrepresentation", The Daily Star, 3 May, 2020.
  28. "নেটফ্লিক্সের ইতিহাসের সবচেয়ে বড় হিট ‘এক্সট্র্যাকশন’", দৈনিক প্রথম আলো, ৩ মে, ২০২০ খ্রি.।
  29. "Chris Hemsworth thanks fans who watched Extraction as it looks set to be Netflix's 'biggest film of all time'", Dailymail, 3 May, 2020.
  30. "Extraction 2 confirmed with Chris Hemsworth expected to star and Joe Russo returning to write the script", Dailymail, 5 May, 2020.
  31. "আসছে এক্সট্র্যাকশন টু", ঢাকা ট্রিবিউন, ৫ মে, ২০২০ খ্রি.।
  32. "প্রথম পর্বের সাফল্যের পর আসছে ‘এক্সট্র্যাকশন ২’", বাংলানিউজ টুয়েন্টিফোর, ৫ মে, ২০২০ খ্রি.।

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]