একাইনোডার্মাটা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
কোরাল প্রাচীরের গায়ে আটকে থাকা ক্রিনয়েড

একাইনোডার্মাটা প্রাণিজগতের অন্যতম একটি প্রধান পর্ব। একাইনোডার্মাটা পর্বের অন্তর্ভুক্ত প্রাণিদের কে একাইনোডার্ম বলে। গ্রিক শব্দ Echinos অর্থ Spine তথা কাঁটা এবং Derma অর্থ skin তথা ত্বক থেকে একাইনোডার্মাটা শব্দটি এসেছে।[১] এজন্য এদের সাধারণ নাম কন্টকত্বকী।

বৈশিষ্ট্য[সম্পাদনা]

  • অখণ্ডায়িত দেহের বহির্ভাগ চুননির্মিত (Calcareous) কাঁটা (Spine) ও অসিকলে (Ossicle) আবৃত।
  • পূর্ণাঙ্গ প্রাণী অরীয় প্রতিসম (Radial symmetry) ও পঞ্চপার্শীয় (Pentamerous) হলেও লার্ভা দ্বিপার্শ্বীয় প্রতিসম।
  • দেহের বহির্ভাগে পাঁচটি নিচু খাঁজের ন্যায় গঠন অ্যাম্বুল্যাক্রাল খাঁজ (Ambulacral groove) বর্তমান।
  • বিশেষায়িত জলসংবহনতন্ত্র (Water Vascular System)বর্তমান, যা সিলোম থেকে উদ্ভূত।
  • ত্রিস্তর কোশবিশিষ্ট দেহে ভূমির দিকে মৌখিক (Oral) এবং ভূমির বিপরীত দিকে বিমৌখিক (Aboral) তল অবস্থিত।
  • অ্যাম্বুল্যাক্রাল খাঁজের দু'দিকে সারিবদ্ধভাবে এদের গমনাঙ্গ নালিকা পদ (Tube feet) উপস্থিত।
  • ত্রিস্তরীয় (Triploblastic) ও প্রকৃত সিলোম (Coelom) বিশিষ্ট এই প্রাণীদের মস্তক অনুপস্থিত।
  • পরিপাক নালি (Alimentary canal) সোজা অথবা প্যাঁচানো (Coiled)।
  • নির্দিষ্ট শ্বসন অঙ্গ ও রেচন অঙ্গ অনুপস্থিত। দেহগহ্বর থেকে পাতলা থলির মতো প্রবর্ধিত অঙ্গ বা প্যাপুলি (papulae) শ্বসন অঙ্গের কাজ করে।
  • স্নায়ুতন্ত্র ও সংবেদ অঙ্গ প্রাচীন ও অনুন্নত।
  • সাধারণত একলিঙ্গ (Dioecious), যৌন জনন পদ্ধতিতে জননক্রিয়া ঘটে। সাধারণত বহিঃনিষেক ঘটে।
  • মুক্ত সাঁতারু লার্ভা দশা বর্তমান। বিভিন্ন প্রকার লার্ভা দশা পাওয়া যায়, যথা-- বাইপিনারিয়া, ব্রাকিওলারিয়া, ডলিওলারিয়া ইত্যাদি।
  • সকলেই সামুদ্রিক (ব্যতিক্রম: Synapta simplex, এটি স্বাদু জলে বসবাস করে)।[১]

শ্রেণীবিন্যাস[সম্পাদনা]

একাইনোডার্মাটা পর্বের প্রানী ব্রিটল স্টার

শ্রেণী: ক্রিনয়ডিয়া (Crinoidea)[সম্পাদনা]

গ্রিক শব্দ Crinon অর্থ Lily তথা কুমুদ/লিলি ফুল এবং Eidos অর্থ Form তথা আকৃতি থেকে ক্রিনয়ডিয়া (Crinoidea) শব্দটি এসছে।[১] লিলি ফুলের আকৃতির গোলাকার দেহ বাটির ন্যায় দেহবৃতি (Calyx) গঠন করে যা থেকে সঞ্চালনশীল শাখান্বিত পিনিউল (Pinnules) বিশিষ্ট বাহু সৃষ্টি হয়। মৌখিক তলে (Oral surface) মুখ ও পায়ু অবস্থিত। এ তলেই সিলিয়া বিশিষ্ট (Ciliated) এ্যাম্বুলাক্রাল খাদ (Ambulacral groov) বর্তমান। নালিকা পদে (Tube feet) চোষক (Sucker) ও ম্যাড্রেপোরাইট (Madereporite) অনুপস্থিত তবে কাটা (Spine) বর্তমান। এরা সমুদ্রের লিলি নামে পরিচিত। উদাহরণ: Antedon bifida (সমুদ্র পদ্ম)

শ্রেণী: এস্টেরয়ডিয়া (Asteroidea)[সম্পাদনা]

গ্রিক শব্দ Aster অর্থ Star তথা তারা এবং Eidos অর্থ Form তথা আকৃতি থেকে এস্টেরয়ডিয়া (Asteroidea) শব্দটি এসছে।[১] মৌখিক-বিমৌখিকভাবে (Oral-aborally) চাপা পঞ্চপার্শীয় দেহের কেন্দ্রে কেন্দ্রীয় চাকতি (Central disk) অবস্থিত এবং এ চাকতি থেকে বর্ধিত বাহুগুলো সুস্পষ্টভাবে চিহ্নিত নয়। পঞ্চবাহুর প্রতিটির অঙ্কীয় দিকে অ্যাম্বুল্যাক্রাল খাদ (Ambulacral groove) উন্মুক্ত এবং এ খাদের উভয় পাশে দুই/চার সারিতে চোষকযুক্ত নালিকাপদগুলো (Tube feet) অবস্থিত। এরা মুক্ত সাঁতারু এবং ধীরগতিতে হামাগুড়ি (Creeping) দিয়ে চলা প্রাণী। এরা তারামাছ (Starfish) বা সমুদ্র তারা (Sea star) নামে পরিচিত। উদাহরণ: Asterias vulgaris (সমুদ্র তারা)

শ্রেণী:ওফিউরয়ডিয়া(Ophiuroidea)[সম্পাদনা]

সমূদ্র শসা

গ্রিক শব্দ Ophis অর্থ Snake তথা সাপ, Oura অর্থ Tail তথা লেজ এবং Eidos অর্থ Form তথা আকৃতি থেকে ওফিউরয়ডিয়া(Ophiuroidea) শব্দটি এসছে।[১] মৌখিক-বিমৌখিকভাবে (Oral-aborally) চাপা পঞ্চপার্শীয় (Pentamerous) দেহের কেন্দ্রে অবস্থিত কেন্দ্রীয় চাকতি (central disk) এবং এ চাকতি থেকে বর্ধিত বাহুগুলো সুস্পষ্ট এবং সুচিহ্নিত। চাবুকের মত ও সঞ্চালনশীল পঞ্চবাহুর প্রতিটির অঙ্কীয় দিকের উভয় পাশে দুই/চার সারিতে চোষকবিহীন নালিকাপদগুলো (Tube feet) অবস্থিত। অনেক প্রাণীতে অ্যাম্বুল্যাক্রাল খাদ (Ambulacral groove) অনুপস্থিত। যাদের উপস্থিত তাদের ক্ষেত্রে তা ওসিকল (Ossicles) দ্বারা আবৃত। পাকস্থলী (Stomach) থলি (Sack) আকৃতির এবং পায়ু (Anus) অনুপস্থিত। উদাহরণ: Ophiura ciliaris (সর্পতারা)

শ্রেণী:একাইনয়ডিয়া (Echinoidea)[সম্পাদনা]

গ্রিক শব্দ Echinos অর্থ Hedgehog এবং Eidos অর্থ Form তথা আকৃতি থেকে একাইনয়ডিয়া (Echinoidea) শব্দটি এসছে।[১] দ্বিপার্শ্বীয় প্রতিসম দেহ বাহুবিহীন এবং আকৃতিতে গোলাকার, ডিম্বাকার, চাকতিকার বা হৃদপিণ্ডাকার। দেহ চুনজাতীয় পদার্থে নির্মিত খোলকে আবৃত যার উপরের স্তরে সঞ্চালনশীল কণ্টক উপস্থিত। অ্যাম্বুল্যাক্রাল খাদ (Ambulacral groove) ওসিকল (Ossicles) দ্বারা আবৃত এবং নালীকাপদ (Tube feet) চোষক বিশিষ্ট। দাঁতসহ এরিস্টটলের লন্ঠন (Aristotle’s lantern) নামক চর্বণ অঙ্গ (Chewing apparatus) বর্তমান। গোনাডের (Gonad) সংখ্যা পাঁচ অথবা পাঁচের কম। এরা সমুদ্র আর্চিন ও ডলার (Sea urchins and dollars) নামে পরিচিত। উদাহরণ: Echinus esculentus (সাগর অর্চিন)

শ্রেণী: হলোথুরয়ডিয়া (Holothuroidea)[সম্পাদনা]

গ্রিক শব্দ Holothurion অর্থ Sea cucumber তথা সমুদ্র শসা এবং Eidos অর্থ Form তথা আকৃতি থেকে হলোথুরয়ডিয়া (Holothuroidea) শব্দটি এসছে।[১] নলাকার দেহ মৌখিক (Oral) ও বিমৌখিক (Aboral) অক্ষ (Axis) বরাবর লম্বা এবং দ্বিপার্শ্বীয় প্রতিসম। দেহপ্রাচীর নরম, চামড়ার মত এবং কাঁটাবিহীন। সম্মুখস্থ মুখ ছিদ্রের চারপাশের কর্ষিকায় (Tentacle) চক্রাকারে সজ্জিত থাকে। নালীকাপদ চোষক বিশিষ্ট। অবসারণীতে একজোড়া শ্বসন-বৃক্ষ (Respiratory tree) উন্মুক্ত হয়। এরা সমুদ্র শসা নামে পরিচিত। উদাহরণ: Cucumaria planci (কুকুমারিয়া)

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. মুত্তাবি, ইকবাল আজিজ। মাধ্যমিক জীববিজ্ঞান। জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড। পৃষ্ঠা ৬৭। 


পর্ব (জীববিজ্ঞান) Carl von Linné.jpg
পর্ব: পরিফেরা  · নিডারিয়া  · প্লাটিহেলমিনথিস  · নেমাটোডা  · এনিলিডা  · আর্থোপোডা  · মলাস্কা  · একাইনোডার্মাটা  · কর্ডাটা