বিষয়বস্তুতে চলুন

এককক্ষ আইনসভা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

এককক্ষ আইনসভা (উচ্চারণ: [ækːokːʰo]) একধরনের আইনসভা যা কেবল একটি কক্ষ বা সদন নিয়ে গঠিত এবং একক কক্ষ হিসাবে নির্বাচন ও আইন প্রণয়ন করে।[১] ২০২২-এর হিসাব অনুযায়ী বিশ্বের জাতীয় আইনসভার প্রায় ৬০% এককক্ষ ও ৪০% দ্বিকক্ষ এবং প্রাদেশিক স্তরে এককক্ষ আইনসভা বেশি প্রচলিত।[২]

পক্ষে ও বিপক্ষে মতামত

[সম্পাদনা]
বাংলাদেশের জাতীয় সংসদ—একটি এককক্ষ আইনসভার উদাহরণ।

এককক্ষ আইনসভাতে আরও দক্ষভাবে আইন পেশ করা যায়, কারণ সেখানে আইন প্রণয়নের প্রক্রিয়া আরও সরল এবং সেখানে দুই কক্ষের মধ্যে অচলাবস্থার সম্ভাবনা থাকছে না। এককক্ষ আইনসভার সমর্থকরা এটাও দাবি করেছে যে এর মাধ্যমে আইনপ্রণেতার সংখ্যা একই রেখে খরচ কমানো যায়, কারণ এক্ষেত্রে রক্ষণাবেক্ষণ ও আর্থিক চাহিদার জন্য আইন প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা কম থাকবে। আধুনিক গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রের মধ্যে এককক্ষ আনুপাতিক আইনসভা আরও গণতান্ত্রিক ও কার্যকরী বলে মনে করা হয়।[৩]

দ্বিকক্ষ আইনসভার সমর্থকদের দাবি যে আইনসভাকে দুটি কক্ষে বিভক্ত করলে সংখ্যাগরিষ্ঠতে এক অতিরিক্ত নিয়ন্ত্রণ প্রয়োগ করা যায়, যদিও সমালোচকদের পর্যবেক্ষণ যে সংখ্যাগরিষ্ঠকে নিয়ন্ত্রণ করার অন্যান্য উপায় রয়েছে, যেমন নিরপেক্ষ আদালত ও দৃঢ় সংবিধান।[৪]

বর্তমান উদাহরণ

[সম্পাদনা]
  জাতীয় স্তরে দ্বিকক্ষ আইনসভা রয়েছে
  জাতীয় স্তরে এককক্ষ আইনসভা রয়েছে
  জাতীয় স্তরে এককক্ষ আইনসভা ও উপদেশক প্রতিষ্ঠান রয়েছে
  জাতীয় স্তরে আইনসভা নেই
  তথ্যবিহীন

২০২২-এর হিসাব অনুযায়ী বিশ্বের জাতীয় আইনসভার প্রায় ৬০% এককক্ষ ও ৪০% দ্বিকক্ষ এবং প্রাদেশিক স্তরে এককক্ষ আইনসভা বেশি প্রচলিত।[২]

জাতীয়

[সম্পাদনা]

যুক্তরাষ্ট্রীয়

[সম্পাদনা]
দেশ এককক্ষ আইনসভা আসনসংখ্যা টীকা
 ইরাক প্রতিনিধি সভা ৩২৯টি
 ভেনেজুয়েলা জাতীয় সভা ২৭৭টি
 সংযুক্ত আরব আমিরাত যুক্তরাষ্ট্রীয় জাতীয় সংসদ ৪০টি

এককেন্দ্রিক

[সম্পাদনা]
দেশ এককক্ষ আইনসভা আসনসংখ্যা টীকা
 আফগানিস্তান নেতৃত্ব সভা ৩০টি মূলত উপদেশক, রাষ্ট্রপ্রধানের হাতে আইন প্রণয়নের ক্ষমতা রয়েছে।
 চীন জাতীয় গণ কংগ্রেস ২,৯৭৭টি
 বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ ৩৫০টি

তথ্যসূত্র

[সম্পাদনা]
  1. Lanham, Url (২০১৮)। The insects। Gene-Tech Books। আইএসবিএন 978-81-89729-42-4ওসিএলসি 1003201754 
  2. "IPU PARLINE database: Structure of parliaments"ipu.org। ২০২২। ৩ মে ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৫ অক্টোবর ২০১৫ 
  3. Wirls, Daniel (২০০৪)। The invention of the United States Senate। Stephen Wirls। Baltimore: Johns Hopkins University Press। আইএসবিএন 0-8018-7438-6ওসিএলসি 51878651 
  4. Litt, David (২০২০)। Democracy in one book or less : how it works, why it doesn't, and why fixing it is easier than you think (First সংস্করণ)। New York, NY। আইএসবিএন 978-0-06-287936-3ওসিএলসি 1120147424