সুদুভা স্টেডিয়াম

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(এআরভিআই ফুটবল এরিনা থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মারিয়াম্পোল ফুটবল এরিনা
Marijampoles stadiono tribunos.JPG
পূর্ণ নামমারিয়াম্পোল ফুটবল এরিনা
প্রাক্তন নামএআরভিআই ফুটবল এরিনা (২০১১–২০১৯)
অবস্থানমারিয়াম্পোল, লিথুয়ানিয়া
স্থানাঙ্কস্থানাঙ্ক: ৫৪°৩৪′২৮.৩৭″ উত্তর ২৩°২১′৫৫.৪১″ পূর্ব / ৫৪.৫৭৪৫৪৭২° উত্তর ২৩.৩৬৫৩৯১৭° পূর্ব / 54.5745472; 23.3653917
মালিকমারিয়াম্পোল পৌরসভা, সুদুভা
ধারণক্ষমতা৬,৫০০
উপস্থিতির রেকর্ড৬,২১১ (ফ্রান্স অনূর্ধ্ব-১৯ বনাম সার্বিয়া অনূর্ধ্ব-১৯, ২০১৩ উয়েফা ইউরোপীয় অনূর্ধ্ব-১৯ চ্যাম্পিয়নশিপ)
মাঠের আয়তন১০৫ বাই ৬৮ মিটার (১১৫ বাই ৭৪ গজ)
উপরিভাগঘাস
নির্মাণ
কপর্দকহীন ভূমি২৫ মে ২০০৭
উন্মোচন৬ জুলাই ২০০৮
সম্প্রসারিতমে ২০০৯
ভাড়াটিয়া
সুদুভা, লিথুয়ানিয়া জাতীয় ফুটবল দল

মারিয়াম্পোল ফুটবল এরিনা (যেটি সুদুভা স্টেডিয়াম হিসাবেও পরিচিত) হচ্ছে লিথুয়ানিয়ার মারিয়াম্পোলের একটি বহুমুখী স্টেডিয়াম। এটি বর্তমানে প্রধানত ফুটবল ম্যাচের জন্য ব্যবহৃত হয়। এটি হচ্ছে সুদুভার নিজস্ব স্টেডিয়াম।

এআরভিআই এন্টারপ্রাইজ গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতার অধিকার ক্রয় করার পরে ২০১১ এবং ২০১৯ মৌসুমের মধ্যে এই স্টেডিয়ামটির নাম এআরভিআই ফুটবল এরিনা দেওয়া হয়েছিল।[১][২]

এই স্টেডিয়ামটি ইউরোপীয় ইউনিয়নের তহবিল ব্যবহার করে নির্মিত হয়েছিল এবং ২০০৮ সালের ৬ই জুলাই তারিখে উন্মোচন করা হয়েছিল।[৩] লিথুয়ানিয়া জাতীয় ফুটবল দল এবং রোমানিয়া জাতীয় ফুটবল দলের মধ্যকার একটি ম্যাচের পূর্বে এই স্টেডিয়াম ধারণক্ষমতা ৪,২০০ হতে ৬,৫০০ করা হয়েছিল।[৪]

২০১৯ সালের ১১ই ডিসেম্বর তারিখে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে, এআরভিআই গ্রুপ আর সুদুভা ক্লাবকে সমর্থন করবে না। এই স্টেডিয়ামে প্রাক্তন স্পনসরের নামসহ নোট এবং সাইনবোর্ড ছিল। পরবর্তীতে এআরভিআই এরিনার নামকরণ করা হয়েছে মারিয়াম্পোল ফুটবল এরিনা (সাময়িকভাবে অন্য স্পনসর না পাওয়া পর্যন্ত)।[৫]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Marijampolės futbolo klubo sporto kompleksas turi naują vardą" (ইতালীয় ভাষায়)। Alfa.lt। ২০১১-০৩-১৪। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-০৮-২৮ 
  2. Krasnickas, Mantas (১১ ডিসেম্বর ২০১৯)। "Atnaujinama „Sūduvos" namų tvirtovė liko be pavadinimo: atsitraukė rėmėjas"15min.lt (লিথুয়ানীয় ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১১ ডিসেম্বর ২০১৯ 
  3. Raškauskas, Juozas (২০০৮-০৭-০১)। "Savaitgalį - naujojo stadiono Marijampolėje atidarymas" (ইতালীয় ভাষায়)। Miesto laikraštis and delfi.lt। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০৬-২৮ 
  4. "Stadionas" (লিথুয়ানীয় ভাষায়)। FK Sūduva। সংগ্রহের তারিখ ২২ অক্টোবর ২০১৭ 
  5. https://www.15min.lt/sportas/naujiena/futbolas/atnaujinama-suduvos-namu-tvirtove-liko-be-pavadinimo-atsitrauke-remejas-24-1244940?copied&copied

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]