ঋষি ধাওয়ান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ঋষি ধাওয়ান
ব্যক্তিগত তথ্য
জন্ম (1990-02-19) ১৯ ফেব্রুয়ারি ১৯৯০ (বয়স ৩৩)
মণ্ডী, হিমাচল প্রদেশ, ভারত
ব্যাটিংয়ের ধরনডান-হাতি
বোলিংয়ের ধরনডান-হাতি মিডিয়াম ফাস্ট
ভূমিকাঅল-রাউন্ডার
সম্পর্করাগব ধাওয়ান (ভাই)
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় দল
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ২০৮)
১৭ জানুয়ারি ২০১৬ বনাম অস্ট্রেলিয়া
শেষ ওডিআই২৩ জানুয়ারি ২০১৬ বনাম অস্ট্রেলিয়া
একমাত্র টি২০আই
(ক্যাপ ৬১)
১৮ জুন ২০১৬ বনাম জিম্বাবুয়ে
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
২০০৭–বর্তমানহিমাচল প্রদেশ
২০০৮কিংস ইলাভেন পাঞ্জাব
২০১৩মুম্বই ইন্ডিয়ান্স
২০১৪-২০১৬কিংস ইলাভেন পাঞ্জাব
২০১৭কলকাতা নাইট রাইডার্স
২০২২পাঞ্জাব কিংস
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা ওডিআই টি২০আই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ৮১ ১০৯
রানের সংখ্যা ১২ ৩,৭২৫ ২,৩৮৫
ব্যাটিং গড় ১২.০০ - ৪০.০৫ ৩৯.০৯
১০০/৫০ ০/০ ০/০ ৪/৩০ ১/১৪
সর্বোচ্চ রান * ১২৮ ১১৭*
বল করেছে ১৫০ ২৪ ১৭,১৮৫ ৫,২৪৫
উইকেট ৩০৯ ১৫৮
বোলিং গড় ১৬০.০০ ৪২.০০ ২৭.১৭ ২৯.৭০
ইনিংসে ৫ উইকেট ২১
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং ১/৭৪ ১/৪২ ৭/৫০ ৬/২৭
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ০/– ২/– ৪০/– ২৮/–
উৎস: ক্রিকইনফো, ২১ মার্চ ২০২২

ঋষি ধাওয়ান (জন্ম ১৯ ফেব্রুয়ারি ১৯৯০) একজন ভারতীয় ক্রিকেটার যিনি হিমাচল প্রদেশের হয়ে প্রথম-শ্রেণীর এবং লিস্ট এ ক্রিকেট খেলেন। [১] ধাওয়ান মূলত একজন মাঝারি-ফাস্ট বোলিং অলরাউন্ডার যিনি মিডল অর্ডারে ব্যাট করেন। ধাওয়ান ২০০৮ সালের আইপিএলে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের হয়ে খেলেছেন। [২] তিনি ২০১৩ সালে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স কর্তৃক চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন। ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে, ২০১৭ ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের জন্য কলকাতা নাইট রাইডার্স দল তাকে ৫৫ লাখে কিনে নেয়।[৩] রাজ্য দলে তাঁর বিশাল অবদান এবং খেলাগুলিতে একক প্রচেষ্টার জন্য, তিনি প্রায়শই হিমাচল প্রদেশের সেরা ক্রিকেটার হিসাবে সমাদৃত হতেন।

১৭ জানুয়ারী ২০১৬-এ অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ভারতের হয়ে তার একদিনের আন্তর্জাতিকে অভিষেক হয়[৪][৫] ২০১৬-এর জুনে হারারে স্পোর্টস ক্লাবে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তার টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক (টি২০আই) ক্রিকেটে অভিষেক হয়।

২০১৮-১৯ রণজি ট্রফিতে হিমাচল প্রদেশের হয়ে তিনি সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারী ছিলেন,[৬] আট খেলায় ৫১৯ রান। [৭] ২০২১ সালের ডিসেম্বরে, ২০২১-২২ বিজয় হাজারে ট্রফির ফাইনালে তামিলনাড়ুকে হারিয়ে ভারতীয় ঘরোয়া ক্রিকেটে ধাওয়ান হিমাচল প্রদেশকে তাদের প্রথম শিরোপা এনে দেন। [৮] ধাওয়ান টুর্নামেন্টে একটি শক্তিশালী অলরাউন্ড নৈপুন্য প্রদর্শন করে, ৭৬ গড়ে ৪৫৮ রান করে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান স্কোরার এবং আট ম্যাচে ২৩ গড়ে ১৭ উইকেট নিয়ে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী। [৯] পরবর্তীতে, ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে, ২০২২ ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ টুর্নামেন্টের নিলামে তাকে পাঞ্জাব কিংস কিনে নেয়। [১০]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. http://www.espncricinfo.com/ci/content/player/290727.html Rishi Dhawan
  2. "IPL auction: Rishi Dhawan, the apple of Kings XI Punjab's eyes | Cricket News"NDTVSports.com (ইংরেজি ভাষায়)। 
  3. "List of players sold and unsold at IPL auction 2017"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ 
  4. "India tour of Australia, 3rd ODI: Australia v India at Melbourne, Jan 17, 2016"ESPNcricinfo। ESPN Sports Media। ১৭ জানুয়ারি ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১৭ জানুয়ারি ২০১৬ 
  5. "India tour of Zimbabwe, 1st T20I: Zimbabwe v India at Harare, Jun 18, 2016"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জুন ২০১৬ 
  6. Mukherjee, Abhishek (২৪ ডিসেম্বর ২০২১)। "Vijay Hazare Trophy: Rishi Dhawan the difference between HP and Services"sportstar.thehindu.com (ইংরেজি ভাষায়)। 
  7. "Ranji Trophy, 2018/19 - Himachal Pradesh: Batting and bowling averages"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১০ জানুয়ারি ২০১৯ 
  8. "How Himachal Pradesh did it"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৬ জানুয়ারি ২০২২ 
  9. "Stats - Himachal Pradesh's first big title, Rishi Dhawan's all-round brilliance"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৭ ডিসেম্বর ২০২১ 
  10. "IPL 2022 auction: The list of sold and unsold players"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২২ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]