উমিয়া বিশ্ববিদ্যালয়

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
উমিয়া বিশ্ববিদ্যালয়
উমিয়া ইউনিভার্সিতেত
UMU LOGO.png
ধরন পাবলিক, গবেষণামূলক বিশ্ববিদ্যালয়
স্থাপিত ১৭ সেপ্টেম্বর ১৯৬৫
রেক্টর অধ্যাপক লিনা গুস্তাফসন
অ্যাকাডেমিক কর্মকর্তা
৪,১৪৩
শিক্ষার্থী ৩৬,৭০০
১,৩০০
অবস্থান সুইডেন উমিয়া, সুইডেন
শিক্ষাঙ্গন শহর
অধিভুক্তি ইইউএ, ইউআর্কটিক
ওয়েবসাইট www.umu.se/english
উমিয়া বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গন
নোরা স্কেনেট
ওপেনস্ট্রীটম্যাপ থেকে উমিয়া বিশ্ববিদ্যালয়

উমিয়া বিশ্ববিদ্যালয় (সুয়েডীয়: Umeå universitet) সুইডেনের মধ্য-উত্তর অঞ্চলের উমিয়ায় অবস্থিত একটি বিশ্ববিদ্যালয়। ১৯৬৫ সালে বিশ্ববিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত হয় এবং সুইডেনের বর্তমান সীমান্তমধ্যবর্তী পঞ্চম প্রাচীনতম বিশ্ববিদ্যালয়। ২০১২ সালে ব্রিটিশ ম্যাগাজিন টাইমস হায়ার এডুকেশন (টিএইচই)-এ ৫০ বছরের মধ্যে উচ্চশিক্ষার জন্য উত্তম বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের তালিকায় এটি ২৩তম স্থান দখল করে।[১] ২০১৩ সালে আন্তর্জাতিক গ্রাজুয়েট অন্তর্দৃষ্টি গ্রুপ আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীদের পছন্দের দিক দিয়ে আন্তর্জাতিক স্টুডেন্ট ব্যারোমিটারে এটি গোটা সুইডেনের মধ্যে প্রথম হয়।[২]

২০১৩ সালে উমিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতকোত্তর এবং ডক্টরেট পর্যায়ে মোট নিবন্ধিত শিক্ষার্থীসংখ্যা ৩৬,০০০ (এদের মধ্যে ১৭,০০০ শিক্ষার্থী ফুলটাইম)। এর ৪,০০০ কর্মকর্তা আছেন এবং ৩৬৫ জন অধ্যাপক।

আন্তর্জাতিকভাবে বিশ্ববিদ্যালয়টি পপুলাস বৃক্ষর জিনোম (জীবন-বিজ্ঞান) এর জন্য পরিচিত। এরা গ্লিসন সমস্যা এবং ফ্র্যাক্টালস-এর ওপর ফাংশন স্পেস (গণিত) এবং এর শিল্প-কারখানার নকশা তৈরি করে।

প্রতিষ্ঠান[সম্পাদনা]

সংস্থা[সম্পাদনা]

উমিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে মোট চারটি অনুষদ এবং নয়টি ক্যাম্পাস স্কুল রয়েছে। সেই সাথে স্কেলেফটিয়াঅরনস্কোল্ডসভিক-এর শহরে অতিরিক্ত ক্যাম্পাস রয়েছে। ৫০টি বিভিন্ন গবেষণার কর্মসূচী এবং ৮০০টি আলাদা কোর্সে মোট ৩৬,০০০ শিক্ষার্থী রয়েছে।

বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়টির মোট চারটি অনুষদ আছে। নিচে তাদের বর্ণাক্রমিকভাবে দেয়া হলঃ

  • কলা অনুষদ
  • ঔষধ অনুষদ
  • বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অনুষদ
  • সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ

উমিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের নয়টি ক্যাম্পাস স্কুল রয়েছে। নিচে তাদের বর্ণাক্রমিকভাবে দেয়া হলঃ

  • উমিয়া ডিজাইন ইনস্টিটিউট - হল উমিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অনুষদের মধ্যকার একটি কলেজ। ইনস্টিটিউটটি ১৯৮৯ সালে কাজ শুরু করে এবং শিক্ষাদান ও শিল্প-কারখানার কাজের জন্য ১৯৮৯ সালে সম্পূর্ণরূপে নকশা ও সজ্জিত হয়। উমিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উচ্চ একাডেমিক মানের কারণে সারা বিশ্বে খ্যাত। বিজনেসউইক-এর প্রথম ৬০টি ডিজাইন স্কুলের মধ্যে থাকা একমাত্র সুইডীয় স্কুল। ইনস্টিটিউটটি পরিবহন নকশা, মিথস্ক্রিয়া নকশা এবং উন্নত শিল্পকৌশল ডিজাইন এর মাস্টার ডিগ্রীও দেয়।
  • উমিয়া প্রযুক্তি ইনস্টিটিউট - হল উমিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অনুষদের অংশ। এই ইনস্টিটিউটটি নানারকম শিক্ষার প্রোগ্রামের আয়োজন করে এবং তার কিছু আছে যা সুইডেনের অন্য কোথাও পাওয়া যায়না। প্রকৌশল বিভাগের গবেষণা ধীরে ধীরে সম্প্রসারিত হচ্ছে। প্রাকৃতিক বিজ্ঞানে অনুষদের ঐতিহাসিক শক্তিশালী অবস্থান একধরণের মঞ্চ তৈরি করে দেয় যার ওপর নতুন প্রযুক্তি নির্মিত হয়। ইনস্টিটিউটটি সিডিআইওর সদস্য।
  • উমিয়া স্থাপত্যবিদ্যা বিভাগ - ২০০৯ সালের শরতে শুরু হয় এবং আন্তর্জাতিকভাবে ভিন্ন মাত্রার উপর শিক্ষা অনুগমন পাশাপাশি, স্থাপত্য বিকাশের পরীক্ষাবিষয়ক গবেষণা করে ধীরে ধীরে উন্নত হয়ে উঠছে। উমিয়া ৫ বছরের স্থাপত্যবিদের প্রোগ্রামে ২৫০টি আসনের ব্যবস্থা করে।
  • উমিয়া ব্যবসা ও অর্থনীতির বিভাগ - : ইউএসবিই-এর প্রায় ২,০০০ শিক্ষার্থী রয়েছে। স্কুল একটি ব্যাচেলর প্রোগ্রাম, চারটি স্নাতক প্রোগ্রাম (সিভিলইকোনিমোপ্রোগ্রাম), সাতটি স্নাতকোত্তর প্রোগ্রাম (কৌশলগত প্রজেক্ট ম্যানেজমেন্ট-প্রোগ্রামে ইরাসমাস ফোটোস মাস্টার এর অন্তর্ভুক্ত) এবং ডক্টরেট প্রোগ্রাম থাকে। আন্তর্জাতিক অবস্থা স্কুলটিকে অধিক গুরুত্বপূর্ণ করে তুলেছে এবং সকল স্নাতকোত্তর প্রোগ্রাম ও ডক্টরাল প্রোগ্রামের ব্যবস্থা সম্পূর্ণ ইংরেজিতে করে।
  • উমিয়া শিক্ষা বিভাগ - : ইউএসই, ২০০৯ সালের জানুয়ারিতে উদ্বোধিত হয় প্রাক্তন শিক্ষক-শিক্ষণ অনুষদের পরিবর্তে।
  • উমিয়া কলা বিভাগ - ১৯৮৭ সালে উমে নদীর পরেই প্রাক্তন ফ্যাক্টরির স্থানে গড়ে উঠেছে। প্রতিবছর ১২টি নতুন শিক্ষার্থী এই স্কুলের পড়তে পারে। মোট ৬০জন শিক্ষার্থী এই একাডেমিতে পড়ছেন।
  • উমিয়া ক্রীড়া বিজ্ঞান কেন্দ্র
  • উমিয়া বিশ্ববিদ্যালয় রেস্টুরেন্ট এবং রন্ধনশিল্প বিভাগ

গবেষণা কেন্দ্র[৩][সম্পাদনা]

উমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতাল[সম্পাদনা]

  • উমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতাল, ("নরল্যান্ডস ইউনিভার্সিতেরসজুখুস", "এনইউএস") হল প্রধান হাসপাতাল এবং উত্তর সুইডেনের জন্য চিকিৎসা ও ঔষধ-এর গবেষণা কেন্দ্র। এটি হল সুইডেনে ঔষধ ও দন্ত-চিকিৎসার সাতটি স্কুলের একটি।

র‍্যাংকিং[সম্পাদনা]

University rankings
Global
ARWU[৪] ২০১-৩০০
Times[৫] ২৫১-২৭৫
QS[৬] ২৯৭

সম্প্রতি (২০১২) বৈশ্বিক বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের একাডেমিক র‍্যাংকিং-এ উমিয়া বিশ্ববিদ্যালয় সারা বিশ্বের সকল বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের মধ্যকার তালিকায় ২০১-৩০০র মধ্যে অবস্থিত ছিল[৭] এবং একই সময় কিউএস বৈশ্বিক বিশ্ববিদ্যালয় র‍্যাংকিং-এ (সর্বোপরি) বিশ্ববিদ্যালয়টি ২৯৭তম হয়।[৮] ২০১২/২০১৩ সালের টাইমস হায়ার এডুকেশন ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি র‍্যাংকিংস ২০১২/২০১৩-তে উমিয়া বিশ্ববিদ্যালয় সকল আন্তর্জাতিক বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের মধ্যে ২৫১-২৭৫-এর মধ্যে অবস্থিত ছিল।[৯]

উল্লেখযোগ্য প্রাক্তন ছাত্র[সম্পাদনা]

অনুষদ[সম্পাদনা]

অনারারি ডক্টরেটসমূহ[সম্পাদনা]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "THE 100 Under 50 university rankings: results"Times Higher Education। ৩১ মে ২০১২। 
  2. "Umeå University ranked 1st in International Student Satisfaction: results"। ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৩। 
  3. উমিয়া বিশ্ববিদ্যালয় ওয়েবসাইটে গবেষণা কেন্দ্রসমূহ
  4. "Academic Ranking of World Universities: Global"। Institute of Higher Education, Shanghai Jiao Tong University। ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ৩, ২০১৩ 
  5. "Top 400 – The Times Higher Education World University Rankings 2013–2014"। The Times Higher Education। ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ২, ২০১৩ 
  6. "QS World University Rankings (2013/14)"। QS Quacquarelli Symonds Limited। ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ৩, ২০১৩ 
  7. "ARWU World University Rankings 2012" 
  8. "QS World University Rankings 2012 (overall)" 
  9. "Times Higher Education World University Rankings" 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]


টেমপ্লেট:সুইডীয় বিশ্ববিদ্যালয়সমূহ

স্থানাঙ্ক: ৬৩°৪৯′১৪″ উত্তর ২০°১৮′১৩″ পূর্ব / ৬৩.৮২০৫৬° উত্তর ২০.৩০৩৬১° পূর্ব / 63.82056; 20.30361