উত্তরা উন্নিকৃষ্ণন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
উত্তরা উন্নিকৃষ্ণন
জন্ম (2004-06-11) ১১ জুন ২০০৪ (বয়স ১৬)
কর্মজীবন২০১২–বর্তমান
পিতা-মাতাপি. উন্নিকৃষ্ণন (পিতা)
প্রিয়া উন্নিকৃষ্ণন (মাতা)
আত্মীয়বাসুদেব কৃষ্ণন
সঙ্গীত কর্মজীবন
ধরননেপথ্য সঙ্গীত
বাদ্যযন্ত্রসমূহকণ্ঠ

উত্তরা উন্নিকৃষ্ণন (জন্ম ২০০৪) একজন ভারতীয় নেপথ্য সঙ্গীতশিল্পী। ২০১৫ সালে তিনি ২০১৪ সালের তামিল চলচ্চিত্র সাইভামের "আজাগু" (সুন্দর) গানের জন্য ৬২ তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে শ্রেষ্ঠ নারী নেপথ্য কণ্ঠশিল্পী বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন, এই পারিবারিক নাটকীয়তাপূর্ণ চলচ্চিত্রটি পরিচালনা করেন এ. এল. বিজয়। তিনি মাত্র সাত বছর বয়সে এই গানটি রেকর্ড করেছিলেন। জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের ইতিহাসে তিনি সবচেয়ে কমবয়সে, ১০ বছর বয়সে এই পুরস্কারট লাভ করেন। [১][২]

জীবনী[সম্পাদনা]

উত্তরা উন্নিকৃষ্ণন কর্ণাটকীয় ধ্রুপদী গায়ক পি. উন্নিকৃষ্ণন এবং ভরতনাট্যম নৃত্যশিল্পী প্রিয়া উন্নিকৃষ্ণনের মেয়ে। তার বাবা একাধিক বার শ্রেষ্ঠ পুরুষ নেপথ্য কণ্ঠশিল্পী বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন। ১৯৯৫ সালে তিনি তামিল গান "এন্নাভালে আদি এন্নাভালে" এবং "উয়িরুম নীয়ে" গেয়ে তার অভিষেকেই প্রথমবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন। [১]

উত্তরা মাত্র ছয় বছর বয়সে সুধা রাজার কাছ থেকে কর্ণাটকীয় সংগীত শিক্ষা শুরু করেন। তিনি লেডি আন্দাল স্কুল এবং এপিএল গ্লোবাল স্কুলে পড়াশোনা করেছেন। তামিল সংগীত ছাড়াও তিনি পশ্চিমা (ধ্রুপদী, রক এবং পপ) উপভোগ করেন এবং এই সমস্ত ঘরানার উপর দক্ষতা অর্জন করতে চান। [৩]

সঙ্গীত[সম্পাদনা]

"আজাগু" (সুন্দর) রাগ কানাদা ভিত্তিক এবং এর সুর রচনা করেন জি. ভি. প্রকাশ কুমার। গানটির কথা লিখেছেন না. মুথুকুমার, তিনি সেরা গীতিকার হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরষ্কারও পেয়েছেন। [৪] গানটিতে তার চারপাশের সৌন্দর্য্য সম্পর্কে একটি শিশুর উপলব্ধি বর্ণনা করা হয়েছে। উত্তরা উন্নিকৃষ্ণন যখন গোলু উৎসব চলাকালীন তার মা প্রিয়া উন্নিকৃষ্ণনের সাথে কর্ণাটকীয় সংগীতশিল্পী সাইন্ধভীর বাড়িতে গিয়েছিলেন, তখন তিনি গানের কয়েকটি লাইন গেয়েছিলেন। এর কয়েক মাস পরে সাইন্ধভীর স্বামী জি. ভি. প্রকাশ কুমার উত্তরা উন্নিকৃষ্ণনকে সাইভামের জন্য একক সুর বেঁধে নেওয়ার আহ্বান জানান। [৫] ২০১৩ সালে আট বছর বয়সে শিশু অভিনেতা সারা অর্জুনের জন্য উত্তরা গানটি রেকর্ড করেন। [৬] ‘আজাগু’ ছাড়াও তিনি আরও দুটি তামিল গান গেয়েছেন। [৭]

অনেক লোকের প্রশংসায় প্রশংসিত হওয়ার সময়, গায়ক প্রদীপ সোমাসুন্দরন জুরির নির্বাচনের সমালোচনা করেন এবং গীতটিকে মাত্রা সংশোধক সফ্টওয়্যার ব্যবহারের মাধ্যমে ব্যাপক পরিবর্তন করা হয়েছে বলে তিনি অভিহিত করেন। [৮] উত্তরা এর পরে জি. ভি. প্রকাশ কুমারের সাথে থেরি চলচ্চিত্রে "এনা মীনা টেকা" গানে কাজ করেন। [৯] তিনি ফ্লাওয়ার্স টিভিতে সম্প্রচারিত মালায়ালাম টিভি সিরিজ মুনুমানি -তে মুনুমানি কুঞ্জলে শিরোনামের গানটিতেও কন্ঠ দিয়েছেন। তিনি তার বাবার মতো কর্ণাটকীয় সংগীতানুষ্ঠান করাও শুরু করেছেন। ২০১৭ সালে কানাডার ইজানাদু সংবাদপত্রের (প্রাইভেট লিমিটেড) প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে তার সাম্প্রতিক উপস্থাপনা দর্শকদের কাছে ভূয়সী প্রশংসিত হয়েছে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Like Father, Like Daughter"। Tehleka.com। ১১ এপ্রিল ২০১৫। ২৭ এপ্রিল ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০ এপ্রিল ২০১৫ 
  2. "62nd National Film Awards: Complete list of winners". IBN Live. 24 March 2015. Retrieved 24 March 2015.
  3. "10-year old Uthara to receive National Award 20 years after father singer P Unnikrishnan got"Indian Express। ৩০ মার্চ ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মার্চ ২০১৫ 
  4. "62nd National Film Awards: Tamil movies bag eight honours"। Times of India। ২৪ মার্চ ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মার্চ ২০১৫ 
  5. "The family note"The Hindu। ২৪ মার্চ ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মার্চ ২০১৫ 
  6. "Eight-year old Uthara croons for 'Saivam'"। sify.com। ১৯ নভেম্বর ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মার্চ ২০১৫ 
  7. "Uthara Unnikrishnan: Like father, like daughter"। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মার্চ ২০১৫ 
  8. "Best female singer award is amusing"The Times of India। ২৫ মার্চ ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মার্চ ২০১৫ 
  9. "GV50- 'Theri' audio review"Sify। সংগ্রহের তারিখ ১০ মে ২০১৬ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]