উজবেক খান মসজিদ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
উজবেক খান মসজিদ
উজবেক খান মসজিদের ছবি
ধর্ম
অন্তর্ভুক্তিইসলাম
ধর্মীয় অনুষ্ঠানসুন্নি
অবস্থাসক্রিয়
অবস্থান
অবস্থানস্তারিয় ক্রিম,ক্রিমিয়া, রাশিয়া
দেশরাশিয়া
মসজিদের অবস্থান
মসজিদের অবস্থান
ক্রিমিয়াতে মসজিদের অবস্থান
এলাকাক্রিমিয়া ক্রিমিয়া
ভৌগোলিক স্থানাঙ্ক৪৫°০১′৪৫″ উত্তর ৩৫°০৫′১৯″ পূর্ব / ৪৫.০২৯১৭° উত্তর ৩৫.০৮৮৬১° পূর্ব / 45.02917; 35.08861স্থানাঙ্ক: ৪৫°০১′৪৫″ উত্তর ৩৫°০৫′১৯″ পূর্ব / ৪৫.০২৯১৭° উত্তর ৩৫.০৮৮৬১° পূর্ব / 45.02917; 35.08861
স্থাপত্য
ধরনমসজিদ
সম্পূর্ণ হয়১৩১৪
মিনারসমূহ

উজবেক খান মসজিদ ক্রিমিয়ার স্তারিয় ক্রিমের একটি মসজিদ। এটি ক্রিমিয়ার প্রাচীনতম মসজিদগুলোর মধ্যে একটি, এটি ১৩১৪ সালে উজবেক খান রাজত্বকালে নির্মিত।[১]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

চতুর্দশ শতাব্দী অবধি স্তারিয় ক্রিম সোনারহাট নামে পরিচিত ছিল, সোনা জোড়ের রাজত্বকালে এটি একটি সমৃদ্ধ শহর ছিল। ষোড়শ শতাব্দীর প্রথমভাগ পর্যন্ত ক্রিমীয় খাঁদের রাজধানী ছিল সোলখাত। যখন রাজধানীটি বখছিসারায় স্থানান্তরিত হয়, তখন সোলখাত ধীরে ধীরে সাংস্কৃতিক ও অর্থনৈতিক কেন্দ্র হিসেবে এর গুরুত্ব হারাতে থাকে।[১]

উজবিক খান মসজিদের পাশের ইসা করিমের মাদ্রাসা (১৩৩২)

উজবিক খান মসজিদটি ১৩১৪ সালে নির্মিত হয়েছিল এবং মসজিদের দক্ষিণ প্রাচীর সংলগ্ন মাদ্রাসাটি ১৩৩২ সালে কিলবুরুন বেয়ের মেয়ে ইনসি খাতুন নির্মাণ করেছিলেন। মাদ্রাসার ধ্বংসাবশেষ আজও রয়ে গেছে। মসজিদটির একটি বর্গাকার তল পরিকল্পনা রয়েছে, যেমন সেলজুক আমলে আনাতোলিয়ায় পাওয়া গিয়েছিল, তার মতো স্থাপত্য বৈশিষ্ট্য প্রকাশ করে। মসজিদটির একটি অনন্য বৈশিষ্ট্য হল, এতে একটি খোদাই করা কাঠের দরজা সহ স্মৃতিস্তম্ভ প্রবেশদ্বার রয়েছে।[১]

স্তারিয় ক্রিমের ক্রিমীয় তাতারিতে অল্প সংখ্যক লোক রয়েছে এবং উজবেক খান মসজিদ আবারও নামাজের স্থান হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে।

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Crimean Tatar Architecture"। International Committee for Crimea। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০২-২০ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]