উইমেড (ওয়েবসাইট)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
워마드
উইমেড
উইমেড (ওয়েবসাইট) লোগো.png
সাইটের প্রকার
টেক্সটবোর্ড
মালিকঅজ্ঞাত
ওয়েবসাইটwomad.life
বাণিজ্যিকবিনা মূল্যে প্রত্যেকে বোর্ড খেলতে পারেন। কিন্তু ধরে নেওয়া হয় যে, শুধুমাত্র টাকা প্রদানের পর ভিআইপি ব্যবহারকারীদের জন্য গোপন (লুকানো) বোর্ড রয়েছে।
নিবন্ধনঐচ্ছিক
চালুর তারিখ২০১৬

উইমেড (কোরীয়: 워마드) দক্ষিণ কোরিয়া ভিত্তিক একটি মৌলবাদী নারীবাদী অনলাইন সম্প্রদায়। এটি পুরুষ বিরোধী অনুভূতির জন্য সমালোচিত হয়েছে। এটি দক্ষিণ কোরিয়া ভিত্তিক আরেকটি নারীবাদী অনলাইন সম্প্রদায় মেগালিয়া থেকে বিভক্ত হয়ে তৈরি হয়েছে।

ওভারভিউ[সম্পাদনা]

উইমেড ২২ জানুয়ারি ২০১৬ সালে মেগালিয়া থেকে বিচ্ছিন্ন হয়। [১][২] মেগালিয়া সমকামী পুরুষদের বিরুদ্ধে নির্দিষ্ট অশ্লীল ব্যবহারের প্রতি নিষেধাজ্ঞা জারি করার কারণে এটি গঠিত হয়েছিল। [৩][৪] নীতির এই পরিবর্তনের ফলে রূপান্তরিত লিঙ্গ বিরোধী সদস্যদের অভিবাসন ঘটে।

উইমেড চরম অনলাইন ট্রলিংয়ের কারণে বিতর্ক সৃষ্টি করেছে যেমন পশুর অপব্যবহারকে গর্ব করে এমন পোস্ট [৫] এবং রূপান্তরিত লিঙ্গদের প্রতি চরম বিদ্বেষ দেখায়;[৬] এই কারণে, উইমেড-কে বলা হয় "কোরীয় ধাঁচের রূপান্তরিত লিঙ্গ বিষয়ে নারীবাদী মতামত " [৭][৮] এটি কোরিয়ান যুদ্ধের প্রবীণদের এবং শ্রমিক অধিকার কর্মীদের উপহাস করার জন্য বেশ কয়েকটি অভিযোগে জড়িয়ে পড়েছিল। [৯] মৃত অভিনেতা কিম জু-হিউককে নিয়ে উপহাস করা বেশ কয়েকটি পোস্ট আরও বিতর্কের সৃষ্টি করেছিল। এই ধরনের ঘটনার পরে, সমালোচকরা উইমেড-কে "একটি ঘৃণ্য ওয়েবসাইট, যা দক্ষিণ কোরীয়দের মধ্যে দ্বন্দ্ব এবং সমাজের বিভাজন বাড়িয়ে তুলছে" বলে অভিহিত করে। [১০][১১]

এর কঠোর অবস্থানটি ওয়েব সাইটের বিভিন্ন স্থানে উপস্থাপন করা হয়। এটি 'থাম্বস-আপ' বোতামে একটি লাল স্বস্তিকা চিহ্ন ব্যবহার করে, যার নিচে '워 념글 추천' লেখা আছে, যার অর্থ 'কোরিয়ান ভাষায় এটি একটি অন্তর্দৃষ্টিপূর্ণ নিবন্ধ হিসেবে প্রস্তাব করুন'। এর ফেভিকন হল একটি ভালভার উপস্থাপনা, এর কেন্দ্রে লাল বিন্দু আছে যা রক্ত এবং আগুন উভয়েরই প্রতিনিধিত্ব করে। এটি কোরীয় সমাজে, বিশেষ করে ইলবেতে কুসংস্কারের প্রতিফলন বলে দাবি করা হয়।

ঘটনা[সম্পাদনা]

পুরুষদের লক্ষ্য করে হত্যার দাবি[সম্পাদনা]

২০১৬ সালে, ওয়েবসাইটে একাধিক পোস্ট হাজির হয়েছিল, তারা দাবি করেছিল যে তারা পুরুষদের খুন করেছে, যেমন "আমি গাড়ির অ্যান্টিফ্রিজ তরল মিশ্রিত কফি পুরুষদের খাওয়াই", "আমি একজন মানুষকে জলাশয়ে ঠেলে দিয়ে হত্যা করেছি" এবং "আমি একজন পুরুষ বাচ্চার গর্ভপাত করেছি" ইত্যাদি। " [১২] উলসান মেট্রোপলিটন পুলিশ এজেন্সি এবং গুয়াংজু মেট্রোপলিটন পুলিশ এজেন্সি ২৮ জুলাই ২০১৬ তারিখে পুলিশ প্রতিবেদন পাওয়ার পর তদন্ত শুরু করে। সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি 'বন্ধ করার' অনুরোধ করা হয়েছে, কিন্তু দাউম কাকাও অনুরোধগুলি প্রত্যাখ্যান করে বলে যে, "কিছু পোস্ট লুকানো হয়েছে, কিন্তু এটি বন্ধ করার জন্য সম্প্রদায়ে অপর্যাপ্ত অবৈধ কার্যকলাপ রয়েছে"।

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Kim Seo-yeong (김서영) (২০১৬-০৭-০৮)। ‘메갈리아’ 성향 따라 워마드·레디즘 등으로 분화Kyunghyang Shinmun (কোরীয় ভাষায়)। ২০১৬-০৭-২৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  2. Shinyun Dong-uk (신윤동욱) (২০১৬-০১-১৩)। 어떤 입으로 말하고, 누구의 귀로 들을까?The Hankyoreh (কোরীয় ভাষায়)। ২০১৬-১০-০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৭-০১-২৭ 
  3. Emily Singh (জুলাই ২৯, ২০১৬)। "Megalia: South Korean Feminism Marshals the Power of the Internet" 
  4. Raphael Rashid (নভেম্বর ২৩, ২০১৭)। "Ilbe vs. Womad: Alleged Child Abuse Reignites S. Korea's Gender War" 
  5. Hwang in-seong (황인성) (২০১৭-০৭-২১)। "목 졸린 채 눈물 흘리는 고양이?" 워마드 동물 학대 논란WIKI Tree (কোরীয় ভাষায়)। 
  6. 최형진 (Choi Hyung-jin) (২০১৭-১১-২১)। ‘아동 성폭행 논란’ 워마드, 그 시작은 “성 소수자 혐오”Asia Economy (কোরীয় ভাষায়)। 
  7. "한국형 TERF인 '워마디즘' 비평"Huffpost Korea (কোরীয় ভাষায়)। ২০১৭-১১-০১। 
  8. Lim ye-in(임예인) (২০১৭-১২-০১)। "[2030 세상보기] 워마드와 미러링의 그림자"Hankook Ilbo (কোরীয় ভাষায়)। 
  9. Kang so-yeong (강소영) (২০১৬-০৬-২৪)। ‘남혐’ 커뮤니티 워마드, 6.25 참전용사 조롱 논란 “대한민국 최대 고기파티”CNB News (কোরীয় ভাষায়)। 
  10. Lim Jeong-yeo (নভে ২১, ২০১৭)। "Female suspect faces probe over Australian child sexual assault allegation" 
  11. Hwang in-seong (황인성) (২০১৭-১২-০২)। '그것이알고싶다' 워마드 논란, 누리꾼 "김주혁 모욕 논란과 동물학대·호주에서 일어난 아동성추행 실상을 알려달라"KNS News (কোরীয় ভাষায়)। 
  12. 이, 재길 (২৮ জুলাই ২০১৬)। ""남성들에 부동액 타먹이자"…남성혐오 사이트 충격""CBS 노컷뉴스। সংগ্রহের তারিখ ২ ফেব্রু ২০১৮ 

 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]