উইকিপিডিয়া আলোচনা:নিবন্ধ সৃষ্টিকরণ/আর কে চৌধুরী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

আর কে চৌধুরী[সম্পাদনা]


আর.কে চৌধুরী (জন্ম: ৭ মে, ১৯৪১) একজন বাংলাদেশী মুক্তিযোদ্ধা, বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধে ২ ও ৩ নং সেক্টরের রাজনৈতিক উপদেষ্টা হিসেবে পালন করে। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বের সময় আওয়ামী লীগের ট্রেজারার। তিনি ঢাকা সিটি কর্পোরেশন প্লানিং ডেভেলপমেন্ট সাব-কমিটির চেয়ারম্যান এবং রাজউকের চেয়ারম্যান হিসাবেও দায়িত্ব পালন করেছেন।[১]তিনি নগর আওয়ামী লীগের প্রধান উপদেষ্টা ছিলেন।[২]

আর কে চৌধুরী
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম৭ মে, ১৯৪১
নাগরিকত্ববাংলাদেশী
রাজনৈতিক দলবাংলাদেশ আওয়ামী লীগ
দাম্পত্য সঙ্গীশিরীন চৌধুরী[৩]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

আর কে চৌধুরী সর্বপ্রথম কায়েদ-ই-আজম কলেজ (বর্তমানে সরকারি সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ) এ ছাত্রলীগ থেকে জিএস নির্বাচিত হই। বঙ্গবন্ধুর সময়ে তিনি ছিলেন ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ। তিনি রাজউকের চেয়ারম্যান, কমিশনার যাত্রাবাড়ী ও ধানমণ্ডি থানা, আলোকবালী ইউনিয়ন ও নরসিংদী থানা কাউন্সিলের চেয়ারম্যান এবং সেক্টর কমান্ডার্স ফোরামের উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। আর কে চৌধুরী নগর আওয়ামী লীগের প্রধান উপদেষ্টা ছিলেন। বঙ্গবন্ধু পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ছিলেন। তিনি এফবিসিসিআই, ঢাকা ক্লাব এবং কুর্মিটোলা গল্ফ ক্লাবের সদস্য।[৪]

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের পর হওয়ার পর আর কে চৌধুরী যাত্রাবাড়ী ও ধানমন্ডি থেকে কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়। সংযুক্ত প্রতিটি লেন তৈরী ও এর উন্নয়ন উনার অবদান ছিল। উনাকে বলা হয় আধুনিক যাত্রাবাড়ীর রূপকার।[৫]

মুক্তিযুদ্ধে অবদান[সম্পাদনা]

আর কে চৌধুরীর ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে, ২ ও ৩ নং সেক্টরের রাজনৈতিক উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি সংগঠক হিসাবে সে সময়ে মেলাঘর ট্রেনিং ক্যাম্পসহ ত্রিপুরার অনেক ক্যাম্পেই প্রতিনিয়তই যেতেন। ২৮ মে তৎকালীন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী শচীন্দ্র লাল সিং এর সঙ্গে সাক্ষাৎ করে মুক্তিযোদ্ধাদের বিভিন্ন প্রয়োজনীয়তা বিষয়ে কথা বলারও সুযোগ হয় উনার। মুক্তিযুদ্ধে সাংগঠনিক দায়িত্ব পালন শেষে দেশে আসলেন, ১৪ ডিসেম্বর মেজর আবু তাহের মোহাম্মদ হায়দার সহ হেলিকপ্টারে তিনি কুমিল্লায়। যাত্রাবাড়ীতে সেদিনই বিজয় উল্লাস। জনতা মেজর হায়দার ও আর কে চৌধুরী কে মাথায় তুলে যাত্রাবাড়ী চৌরাস্তায় তারা উদযাপন করে। ১৬ ডিসেম্বর, ঢাকা ক্লাব থেকে আর কে চৌধুরী আনলেন চেয়ার টেবিল- যে টেবিলে স্বাক্ষরিত হলো বাঙালির বিজয়ের দলিল।[৬]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "80th birthday of RK Chowdhury today" (ইংরেজি ভাষায়)। The New Nation। ৭ মে ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ৮ জুলাই ২০২১ 
  2. "আর কে চৌধুরীর জন্মদিন আজ"কালের কণ্ঠ। ৭ মে ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৭ জুলাই ২০২১ 
  3. "শিরীন চৌধুরী"দৈনিক যুগান্তর। ২৮ জানুয়ারি ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ২৭ জুলাই ২০২১ 
  4. "ডিসিসি দক্ষিণে মেয়র পদে আর কে চৌধুরী"বাংলাদেশ প্রতিদিন। ১৭ মার্চ ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৭ জুলাই ২০২১ 
  5. "যাত্রাবাড়ীর আর কে চৌধুরী সড়ক"আজকের অগ্ৰবাণী। ৭ জুন ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ১২ আগস্ট ২০২১ 
  6. "একাত্তরের বিজয়দীপ্ত সেই দিনগুলো"দৈনিক যুগান্তর। ১৭ ডিসেম্বর ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ১১ আগস্ট ২০২১