ইস্টার্ন ডেডিকেটেড ফ্রেট করিডর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ইস্টার্ন ডেডিকেটেড ফ্রেট করিডর
Eastern Dedicated Freight Corridor of India.jpg
সংক্ষিপ্ত বিবরণ
ধরনপণ্য করিডর
ডেডিকেটেড ফ্রেট করিডর
অবস্থানির্নিয়মান (মন্ত্রিসভা কমিটি দ্বারা ফেব্রুয়ারী ২০০৮ সালে অনুমোদন করা হয়)
সেবাগ্রহণকারী অঞ্চলপূর্ব ভারত
উত্তর ভারত
বিরতিস্থলডানকুনি (কলকাতা)
লুধিয়ানা
ক্রিয়াকলাপ
মালিকভারতীয় রেল
পরিচালনাকারীভারতীয় রেল
প্রযুক্তিগত
রেললাইনের মোট দৈর্ঘ্য১,৮৫৮ কিলোমিটার (১,১৫৫ মাইল)
ট্র্যাক গেজব্রডগেজ
ইস্টার্ন ডেডিকেটেড ফ্রেট করিডর
লুধিয়ানা
ধান্ধারীকালান
সিরহিন্দ
রাজপুরা
পাঞ্জাব - হরিয়ানা সীমান্ত
আম্বালা
যমুনানগর
কালানুর
হরিয়ানা - উত্তরপ্রদেশ সীমান্ত
সাহারানপুর
মুজাফ্ফরনগর
মিরাট
হাপুর
বুলান্দশহর
খুর্জা
উত্তরপ্রদেশ - হরিয়ানা সীমান্ত
Dadri
ওয়েস্টার্ন ডিএফসি
আলিগড়
হাতরাস
বারহান
টুন্ডলা
ইত্তয়া
ভুপুর (কানপুরের জন্য)
প্রেমপুর (কানপুরের জন্য)
মানাউরী (কানপুরের জন্য)
চেওকী/নেনী(এলাহাবাদের জন্য)
জেওণাথপুর
মুঘলসরাই
গাঁজখবাজ
উত্তরপ্রদেশ - বিহার সীমান্ত
সোননগর
বিহার - ঝাড়খন্ড সীমান্ত
গমোহ
ঝাড়খণ্ড - পশ্চিমবঙ্গ সীমান্ত
অন্ডাল
ডানকুনি

কলকাতা-লুধিয়ানা পণ্য করিডর বা ইস্টার্ন ডেডিকেটেড ফ্রেট করিডর হল সহজে পণ্য পরিবহনের জন্য কলকাতা (ডানকুনি) থেকে লুধিয়ানা পর্যন্ত নির্নিমান রেল করিডর। এই রেল করিডরে শুধু মাত্র রেল ওয়াগান বা মালগাড়ি চলাচল করবে। ফলে সহজে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে পণ্য পরিবহন করা যাবে ফলে শিল্পের বিকাশ ঘটবে। এই করিডর এর পাশে মোট ২০ টি শহরে শিল্পতালুক গড়া হবে।[১] রেলপথের জন্য, ব্রড গেজ ব্যবহার করা হবে। পূর্ব ডিএফসিতে দুটি ট্র্যাক থাকবে এবং বিদ্যুতায়িত হবে। পাঞ্জাবের লুধিয়ানা থেকে উত্তর প্রদেশের খুর্জা (বুলমানশহর) বিভাগটি ৪০০ কিলোমিটারে জমির অভাবের কারণে একক রেল ট্র্যাক নির্মান করা হবে এবং রেলথপটি বিদ্যুতায়িত হবে। এই মালবাহী করিডোর মোট ১৮৫৮ কিলোমিটার দীর্ঘ হবে। করিডোরে পশ্চিম ডেডিকেটেড মালবাহী করিডোরের উৎপত্তি পয়েন্ট বা স্থান থাকবে যা দাদরি মধ্য দিয়ে যাবে, যা একটি জংশন হিসাবে পরিষেবা প্রদান করবে।

করিডর[সম্পাদনা]

ইস্টার্ন ডেডিকেটেড ফ্রেট করিডর এর মোট দৈর্ঘ্য ১৮৩৯ কিলোমিটার। এই করিডর নির্মানের জন্য বিশ্ব ব্যাংক ₹৪,১৩৫ কোটি টাকা ঋণ দিয়েছে। [২] করিডরটি মোট সাতটি রজ্যের উপর দিয়ে গেছে । রাজ্য গুলি হল- পশ্চিমবঙ্গ (২০৩ কিলোমিটার (১২৬ মা)), ঝাড়খন্ড (১৯৬ কিলোমিটার (১২২ মা)), বিহার (২৩৯ কিলোমিটার (১৪৯ মা)), উত্তরপ্রদেশ (১,০৫৮ কিলোমিটার (৬৫৭ মা)), হরিয়ানা (৭৭ কিলোমিটার (৪৮ মা)), পাঞ্জাব (৮৮ কিলোমিটার (৫৫ মা))।

ইস্টার্ন ডিএফসি
রাজ্য দূরত্ব (কিমি)
পাঞ্জাব ৮৮ কিলোমিটার (৫৫ মা)
হরিয়ানা ৭৭ কিলোমিটার (৪৮ মা)
উত্তরপ্রদেশ ১,০৫৮ কিলোমিটার (৬৫৭ মা)
বিহার ২৩৯ কিলোমিটার (১৪৯ মা)
ঝাড়খন্ড ১৯৬ কিলোমিটার (১২২ মা)
পশ্চিমবঙ্গ ২০৩ কিলোমিটার (১২৬ মা)
মোট ১৮৫৬

মালবাহী করিডোরটি প্রথমে ৪৪৭ কিলোমিটার লুধিয়ানা-দাদরি-খুর্জা বিভাগকে একক বিদ্যুতায়িত ট্র্যাক নির্মান করা হবে। এর পর অবশিষ্ট লাইন পশ্চিমবঙ্গের ডানকুনি (কলকাতা) পর্যন্ত বিদ্যুতায়িত ডাবল ট্র্যাক নির্মান করা হবে। সাহনেওয়াল, দারোহা, সিরহিন্দ, রাজপুরা, আম্বালা, যমুনানগর, সাহারানপুর, মুজাফ্ফরনগর, মিরাট, হাপুর, বুলান্দশহর, আলিগড়, হাতরাস, বরন, টুন্ডলা, ফিরোজাবাদ, ইত্তয়া, কানপুর, এলাহাবাদ এবং মুঘলসরাইসহ গুরুত্বপূর্ণ স্টেশনগুলি অন্তর্ভুক্ত রয়েছে এই করিডোরে। প্রধান লাইনের উপরে পণ্যের চাপ কমানোর জন্য, এই লাইনে অনেকগুলি সংযোগ বা জংশন থাকবে। এই লাইনের প্রস্তাবিত জংশনগুলি হলো ধান্ধারীকালান, সিরহিন্দ, রাজপুরা, খালানৌর, খুর্জা, দাউদখাঁন, টুন্ডলা, ভাউপুর, প্রেমপুর, চেওকী/নেনী, জেওনাথপুর, মুঘলসরাই, গাঁজখবাজ, সোনানগর রেলওয়ে স্টেশন, গোমোহ, অন্ডাল এবং ডানকুনি (পূর্ব টার্মিনাল পয়েন্ট।

অবস্থা[সম্পাদনা]

এই করিডোরের ঠিকাদারি কাজের জন্য একাধিক বিভাগে বিভক্ত করা হয়েছে করিডোরটিকে।[৩]

ইস্টার্ন ডিএফসি
বিভাগ দূরত্ব রুট প্রকল্প ঠিকাদার
লুধিয়ানা-খুর্জা ৪০৪ লুধিয়ানা-আম্বালা-শাহরানপুর-যমুনানগর-মুজাফ্ফরনগর-মিরাট-হাপুর-বুলান্দশহর-খুর্জা জিএমআর গ্রুপ
খুর্জা-ভাউপুর (কানপুরের কাছাকাছি) ৩৪৩ খুর্জা-আলিগড়-হাথরাস, উত্তরপ্রদেশ-টুন্ডাল-ইত্তয়া-ভাউপুর টাটা প্রজেক্টস ইন্ডিয়া-অলডেসা স্পেন[৪][৫]
ভাউপুর (কানপুরের কাছাকাছি)-মুঘলসরাই ৩৯৩ ভাউপুর-প্রেমপুর-মানৌরী (এলাহাবাদের কাছাকাছি)-চৈকি ইস্ট (এলাহাবাদ কাছাকাছি)-মুঘলসারাই জিএমআর গ্রুপ[৬]
মুঘলসরাই-সোননগর ১১৮ মুঘলসরাই-সোননগর সি অ্যান্ড সি কন্সট্রাকশন গুড়গাঁও এবং বিএসসিপিএল
সোননগর-ডানকুনি ৫৩৮ সোননগর-গমোহ-ডানকুনি পিপিপি মডেল
দাদরি-খুর্জা ৪৬ দাদরি-খুর্জা জিএমআর গ্রুপ
মোট ১৮৫৮

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ফ্রেট করিডরের জমির জট খুলছে"আনন্দবাজার প্রত্রিকা। সংগ্রহের তারিখ ২৪-০৯-২০১৬  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)
  2. "কলকাতা লুধিয়ানা রেল করিডরে বিশ্ব ব্যাংকের ঋণ"। সংগ্রহের তারিখ ২৪-০৯-২০১৬  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  3. Rlys’ reluctance to cede control delays $1-billion World Bank loan | Business Line. Thehindubusinessline.com (2013-04-03). Retrieved on 2014-05-05.
  4. DFCC awards Rs 3,300 cr Khurja-Bhaupur contract to Tata Aldesa JV. Business Standard (2013-01-24). Retrieved on 2014-05-05.
  5. Work on Eastern dedicated freight corridor project begins. The Hindu (2013-03-09). Retrieved on 2014-05-05.
  6. http://www.railjournal.com/index.php/asia/more-indian-freight-corridor-contracts-awarded.html